বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বরখাস্তকৃত ন্যানগ্যাগওয়াই হচ্ছেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট  » «   খালেদার গাড়িবহরে হামলা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের পরিকল্পনার অংশ  » «   এক মোটরসাইকেলেই বিশ্ব রেকর্ড  » «   কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া, ১শ শিশুর ঠোঁটের অস্ত্রোপচারে খরচ দিবেন  » «   কাল থেকে পুনরায় চালু হচ্ছে চুয়েট বাস  » «   বলি একটা লেখেন আরেকটা: সাংবাদিকদের রোনালদো  » «   এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি  » «   মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ছাত্রলীগের স্কুল কমিটি  » «   এগিয়ে থাকুন সৃজনশীলতায়  » «   সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ১ বছরে সাড়ে ৩ কোটি ইয়াবা জব্দ  » «   শ্রীমঙ্গলে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন  » «   দখলমুক্ত হচ্ছে খাল ও নদী  » «   কুমিল্লায় হানিফ‘আ’লীগকে হুংকার দিয়ে লাভ নেই’  » «   কমলগঞ্জে প্রতিহিংসায় বিনষ্ট কৃষকের শিম বাগান  » «   অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ নানা অভিযোগ  » «  

সফরসূচি বাড়ছে মমতার?



mamata-sushma copyনিউজ ডেস্ক :: একজন কেন্দ্রীয় সরকার প্রধান, অন্যজন রাজ্য সরকার প্রধান; কিন্তু দু’জনের কথার লড়াই পুরো ভারত জুড়েই চর্চিত। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা

বন্দোপাধ্যায়ের ‘অম্ল’ সম্পর্ক ‘মধুর’ হওয়ার বড় উপলক্ষ ছিল তাদের বাংলাদেশ সফর। কিন্তু মোদির বাংলাদেশ আসার আগের রাতেই ঢাকায় মমতা, ফিরবেনও একদিন আগে। থাকছেন ভিন্ন হোটেলে।

ফলে মোদির সফরসঙ্গী হয়েও দূরত্ব কাটেনি ভারতের প্রধান এই দুই রাজনীতিবিদের। এরই মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মমতার কাছে আরো একদিন থাকার নিমন্ত্রণ জানিয়ে করেছেন ফোন, মমতাও সরাসরি না বলেন নি। অন্যদিকে আজ রাতের অনুষ্ঠান শেষের আগেই মমতার ফ্লাইট পড়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির অনুষ্ঠানের মাঝপথে বেরিয়ে যাওয়ার মতো শিষ্টাচারবিরোধী কাজ মমতা করবেন কি-না সেটাই এখন দেখার বিষয়।

শুক্রবার রাতে মমতা বন্দোপাধ্যায় ঢাকায় আসেন। তাকে ভিআইপি মর্যাদা দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। মমতা বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে এসে বসার পরেই শেখ হাসিনার ফোন আসে মমতার কাছে। সাড়ে তিন মাসের মাথায় আবারো বাংলাদেশে আসায় স্বাগত জানালেন মমতাকে। এরপরেই অনুরোধ- আরো একদিন থাকতে হবে বাংলাদেশে। উত্তরে সরাসরি ‘না’ বলতে পারেন নি মমতা। বলেছেন, ‘ভেবে দেখি! আসলে কলকাতায় অনেক কাজ পড়ে রয়েছে তো।’। পরে শুক্রবার রাতেই প্রধানমন্ত্রী গণভবনে নিমন্ত্রণ জানান মমতাকে। জবাবে মমতা হেসে বলেন, ‘কালই দেখা হবে।’

এদিকে, মমতা উঠেছেন র‌্যাডিসন ব্লু গার্ডেনে। মোদির সঙ্গে তাকেও একই হোটেলে থাকার জন্য অনুরোধ করা হলেও সফরসঙ্গীদের সঙ্গে আড্ডা দেয়া থেকে দূরে থাকতে চাননি তিনি।

ঢাকায় এসেও অবশ্য দৈনন্দিন রুটিন থেকে দূরে থাকছেন না মমতা। র‌্যাডিসন হোটেলের চক্রাকার লাউঞ্জে বেশ কয়েক বার হেঁটেছেন তিনি।

হিসাব মতো আজ রাতেই মুখ্যমন্ত্রীর কলকাতায় ফেরার কথা। ফেরার বিমান রাত সাড়ে ন’টায়। কিন্তু রাতের অনুষ্ঠান শেষ হতে ১০টা-সাড়ে ১০টা বেজে যাওয়ার কথা। অনুষ্ঠানের মাঝখানে তিনি চলে যাবেন কি না প্রশ্ন সেটাই।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: