সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
হবিগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি  » «   গণপিটুনিতে রেনু নিহতের ঘটনায় আটক ৩ জন রিমান্ডে  » «   ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা  » «   ফের জাতীয় সংলাপের আহ্বান ড. কামালের  » «   জবানবন্দি প্রত্যাহার ও চিকিৎসা- মিন্নির পক্ষে দুই আবেদনই নামঞ্জুর  » «   উ. কোরিয়ায় নির্বাচন: ভোট পড়েছে ৯৯.৯৮ শতাংশ  » «   এইডস ঝুঁকিতে সিলেট ও মৌলভীবাজার  » «   ঈদের আগেই সরকারি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার ফল  » «   বিমানের ৪৫ হাজার টিকিট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে হরিলুট  » «   মিন্নি নয়, রিফাত হত্যার নেপথ্যে চেয়ারম্যানের স্ত্রী?  » «   পাকিস্তানে নারী আত্মঘাতীর বিস্ফোরণে ছয় পুলিশসহ নিহত ৯  » «   সাইকেল চালিয়ে হজ করতে যাচ্ছেন ৮ ব্রিটিশ মুসলিম  » «   প্রিয়া সাহার মিথ্যা বক্তব্য মার্কিন আধিপত্য বিস্তারের ষড়যন্ত্র : জয়  » «   বাংলাদেশের পোশাক খাতে রপ্তানি বেড়েছে ২২ শতাংশ  » «   ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার শোরুম সিলগালা করলো সিসিক  » «  

সন্ত্রাস ও হিংসা মোকাবেলায় একসঙ্গে কাজ করতে পাকিস্তানকে আহ্বান মোদির



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: পাকিস্তানের গণতান্ত্রিক দিবস বা জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে প্রতিবেশী পাকিস্তানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মোদির শুভেচ্ছা গ্রহণ করে তাকে ধন্যবাদও জানান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শনিবার (২৩ মার্চ) এক রকম কূটনৈতিক শিষ্টাচার মেনে পাকিস্তানকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি।

পাকিস্তানের গণতান্ত্রিক দিবসে সন্ত্রাসবাদ ও হিংসা মোকাবেলায় দুই দেশের সকলকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বানের পাশাপাশি এক টুইটার বার্তায় মোদি লেখেন, ‘পাকিস্তানের জাতীয় দিবসে সকল পাক নাগরিককে জানাই আমাদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। উপমহাদেশের মানুষের এই মুহূর্তে উচিত গণতন্ত্র বাঁচাতে এবং শান্তি ও উন্নতির জন্য হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করা’। একই সঙ্গে সন্ত্রাস ও হিংসা মোকাবিলায় এ অঞ্চলের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার বার্তাও দেন মোদি।

এদিকে মোদির পাঠানো শুভেচ্ছার জবাব দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। অপর একটি টুইট বার্তায় তিনি তার প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি লেখেন, ‘আমাদের দেশবাসীর প্রতি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছাবার্তাকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি। আমরা আজ পাকিস্তান দিবস পালন করছি। একই সঙ্গে আমি বিশ্বাস করি, এটাই ভারতের কাছে কার্যকর একটি আলোচনায় বসার এটাই সময়। যাতে দুই দেশের বিদ্যমান সকল ইস্যুতে সমাধান আসে, বিশেষ করে কাশ্মির সমস্যার সমাধান করে শান্তি এবং উন্নতির পথে এই দুই দেশ আরও এগিয়ে যাবে বলে আমি বিশ্বাস করি’।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: