শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তিন সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী যারা  » «   ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি: চিদম্বরমের সময় অমিত, অমিতের সময় চিদম্বরম গ্রেপ্তার  » «   অক্টোবর থেকে মোবাইল অ্যাপে মিলবে বিমানের টিকিট  » «   আগামীকাল জুমার নামাজের পর গণবিক্ষোভের ডাক কাশ্মীরিদের  » «   হবিগঞ্জে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে নবজাতক চুরি, নারী আটক  » «   কলকাতায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ বাংলাদেশির মৃত্যু, চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ  » «   ভীতি কাটাতে চা বিস্কুট খেতে খেতে ভাইভা দেবেন বিসিএস পরীক্ষার্থীরা  » «   তৃতীয় ড্রিমলাইনার ‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   রাস্তার পাশে চা বানাচ্ছেন মমতা! ভিডিও ভাইরাল  » «   ঋণের টাকায় ভারত থেকে অস্ত্র কিনবে বাংলাদেশ  » «   কানাইঘাটে মৃত্যুর পাঁচ মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন  » «   কাশ্মীরে ফের যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন, গুলি চালিয়েছে পাকিস্তান  » «   রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু হতে পারে আজ  » «   পুলিশের ছেলে বিশ্বের এক নম্বর ডন  » «   জাহালম কাণ্ড: ১১ তদন্ত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা  » «  

সন্তান জন্মদানের পর জানলেন তিনি গর্ভবতী ছিলেন!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ব্রিটিশ কিশোরী এবনি স্টিভেনসন সম্প্রতি অসুস্থ হয়ে কোমায় চলে যান। এরপর ১৮ বছর বয়সী এই কিশোরীর যখন জ্ঞান ফেরে তখন তার পাশে ফুটফুটে এক কন্যাশিশু। এই শিশু যে স্টিভেনসনের নিজেরই এটা জানার পর তিনি বিস্ময়াভিভূত হয়ে পড়েন। যুক্তরাজ্যের ম্যানচেস্টারে অবস্থিত ওল্ডহ্যাম শহরে সম্প্রতি এ ঘটন ঘটেছে।

হঠাৎ করেই প্রচণ্ড ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েন স্টিভেনসন। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তাকে জরুরি অস্ত্রোপচার করতে গিয়ে ডাক্তাররা আবিষ্কার করেন, স্টিভেনসন সন্তানসম্ভবা এবং পেটের শিশুকে বাঁচাতে হলে দ্রুত সিজার করতে হবে।

স্টিভেনসনের মা এই কথা বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না। কারণ মেয়ের শরীরের গর্ভধারণের কোনো লক্ষণই ছিল না।কিন্তু ডাক্তাররা তাকে দেখান, হঠাৎ-হঠাৎ একটু সময়ের জন্য কিভাবে ফুলে ওঠে স্টিভেনসনের পেট। অবশেষে অস্ত্রোপচার হয়। জন্ম নেয় ফুটফুটে এক কন্যাশিশুর।

চিকিৎসকদের তখনও অবাক হওয়া বাকি। জ্ঞান ফিরে স্টিভেনসন জানান, গর্ভবতী হওয়ার বিষয়টা তিনি নিজেও জানতেন না।এমনকি গর্ভবতী নারীদের পেট যেভাবে ফুলে উঠে তার ক্ষেত্রে সেটাও ঘটেনি।অবাক করা বিষয় হলো, স্টিভেনসনের মাসিক-ও হয়েছে প্রতিমাসে, নিয়মিতভাবে। তাহলে এই শিশু জন্ম নিলো কিভাবে!

চিকিৎসকেরা জানান, এই অবস্থাটিকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় বলা হয় ‘ইউটেরাস ডিডালফিস’। স্টিভেনসনের ছিল দুটো জরায়ু। সামনের জরায়ুটি থেকে প্রতিমাসে মাসিক হয়েছে। আর এর পেছনে লুকিয়ে থাকা দ্বিতীয় জরায়ুতে বেড়ে উঠেছে এই শিশু। ফলে, গর্ভাবস্থায় তার পেট-ও বড় হয়নি।

শুধু মাঝে মাঝে সকালবেলায় স্টিভেনসনের একটু দুর্বল লাগতো। এছাড়া আর কিছুই টের পাননি তিনি। তাই, সন্তানসম্ভবা হওয়ার পরেও বিষয়টি স্বয়ং গর্ভবতীই টের পাননি।স্টিভেনসন জানান, নিজের মেয়েকে এখন তিনি পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশী ভালোবাসেন। কোনো কিছু না জেনে-বুঝেই প্রথমবারের মতো মা হওয়া এই কিশোরী তার মেয়ের নাম রেখেছেন এলোডি।

সূত্র: বিবিসি

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: