শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

সচিবালয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে চিতা!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: দিনের বেলা এই চত্বরে দাপিয়ে বেড়ান রাজনীতি-প্রশাসনের ‘বাঘ-সিংহরা’। তাদের অনেকের দাপটেই বাঘে-মহিষে এক ঘাটে জল খায়। এই ভবন থেকেই নিয়ন্ত্রিত হয় গোটা রাজ্যের প্রশাসনিক কার্যকলাপ। আর সেই ভবনেই কিনা হানা দিল চিতাবাঘ। ফলে সোমবার ভোরে আতঙ্কে কাঁপছিলো ভারতের গুজরাট রাজ্যের প্রশাসনিক সদর দফতর।

সিসিটিভিতে ধরা পড়েছে চিতাবাঘের ছবি। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর সেই ভিডিয়ো দেখে আঁতকে উঠেছেন অনেক মন্ত্রী-আমলারাও। চিতার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছেন বন দফতরের কর্মীরা। গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ ও নিরাপত্তা কর্মীরা। কোনও কর্মী বা নেতা-মন্ত্রীদের কাউকেই ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

রবিবার রাতের ডিউটি প্রায় শেষ করেই ফেলেছিলেন নিরাপত্তা কর্মীরা। আচমকা সিসিটিভির পর্দায় চোখ রেখে চমকে উঠেছিলেন তাদেরই একজন। সচিবালয় চত্বরের ভিতরেই যে অবলীলায় ঘুরে বেড়াচ্ছে এক চিতাবাঘ। কখনও লনে দুলকি চালে ঘুরে বেড়াচ্ছে, তো কখনও গ্রিলের ব্যারিকেডের নীচের ফাঁক দিয়ে ঢুকে পড়ছে অন্য দিকে।

সঙ্গে সঙ্গে ওই নিরাপত্তা কর্মী বাকিদের ডেকে নেন। তারা সবাই ঘরে ঢুকে পড়ে বন দফতরে খবর পাঠান। খবর পেয়ে বন দফতরের উচ্চপদস্থ কর্তারাও ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। কিন্তু ততক্ষণে চিতাবাঘটি গা ঢাকা দিয়েছে। বন দফতরের কর্মীরা গোটা বিধানসভা চত্বরে কার্যত চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছেন বাঘটি ধরতে।

আনাচে-কানাচে চিতা বাঘের খোঁজ চালাচ্ছেন। তবে পায়ের ছাপ দেখে বা অন্য কোনও সূত্র থেকে তারা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি, চিতাবাঘটি জঙ্গলে ফিরে গিয়েছে, নাকি এখনও সচিবালয় চত্বরেই কোথাও গা ঢাকা দিয়ে রয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ খতিয়ে দেখে বন বিভাগের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সম্ভবত খাবারের টানেই লোকালয়ে চলে আসে চিতাবাঘটি।

শহরের প্রাণকেন্দ্র এবং হাই প্রোফাইল এলাকায় চিতাবাঘ ঢুকে পড়ায় ঘুম ছুটে যায় পুলিশ কর্তাদেরও। তারা গিয়ে গোটা এলাকা ঘিরে ফেলেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ কর্তারা জানিয়েছেন, বন দফতর গোটা বিধানসভা চত্বর নিরাপদ ঘোষণা না করা পর্যন্ত কাউকে ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

সূত্র: আনন্দবাজার

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: