মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মাত্র ১০০ মিটার দূরেই শত্রু  » «   অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকবে সরকার: কাদের  » «   থানায় ‘গণধর্ষণের’ শিকার সেই নারীর জামিন নামঞ্জুর  » «   মিন্নির স্বীকারোক্তির আগে নাকি পরে এসপির ব্রিফিং : হাইকোর্ট  » «   প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবারে মন্ত্রিসভার সায়  » «   নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ নিয়ে আপিল বিভাগের সিদ্ধান্ত মঙ্গলবার  » «   পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে প্রবাসীর ওপর হামলা: দুই ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেপ্তার  » «   সিলেটসহ রেলের পূর্বাঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিতে হাইকোর্টের রুল  » «   বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়া নয়, আ.লীগ নেতারা জড়িত : ফখরুল  » «   রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: ‘শঙ্কা’ নিয়েই প্রস্তুত বাংলাদেশ  » «   সুনামগঞ্জে বিষপানে যুবকের আত্মহত্যা  » «   পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ইভিনিং প্রোগ্রামে জমজমাট শিক্ষা বাণিজ্য  » «   ১০ দিনে ১৭৫ কোটি ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা  » «   আজ বাংলাদেশে আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী, গুরুত্ব পাবে তিস্তা চুক্তি  » «   হবিগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু  » «  

সকালে দেরি করে ওঠেন? জেনে নিন অতিরিক্ত ঘুমের ৫ মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকি!



slpলাইফস্টাইল ডেস্ক :: ঘুমাতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ মনে হয় না খুঁজে পাওয়া যাবে। ছোটো শিশুদের ঘুমাতে একটু অপছন্দ হলেও বড়দের কিন্তু ঘুম খুবই প্রিয়। কিন্তু এই প্রিয় জিনিসটি অতিরিক্ত করে ফেললে তা আপনার জন্য ডেকে আনবে নানান ধরণের শারীরিক সমস্যা। অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়। ২০১০ সালের ১৬ টি গবেষণায় প্রায় ১,৩৮২,৯৯৯ জন মানুষের উপর গবেষণা চালিয়ে দেখা গিয়েছে অতিরিক্ত ঘুমানোর কারণে মৃত্যু ঝুঁকি বাড়ে প্রায় ১.৩ গুণ। যদি আপনি প্রতিদিনই বেশি ঘুমিয়ে থাকেন তাহলে জেনে রাখুন নিজেরই নিজের কী ধরণের ক্ষতি করে চলছেন আপনি।

১) অতিরিক্ত বিষণ্ণতা ভর করে
২০১৪ সালের একটি গবেষণায় দেখা যায় অতিরিক্ত ঘুমানো মানুষের বিষণ্ণতার মাত্রা অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়। যারা ৯ ঘণ্টার বেশি ঘুমান প্রতিদিন তাদের বিষণ্ণতায় আক্রান্তের ঝুঁকি প্রায় ৪৯% বেশি।

২) মস্তিষ্কের উপর অতিরিক্ত চাপ পড়ে
২০১২ সালের অপর একটি গবেষণায় দেখা যায় অতিরিক্ত ঘুমানোর ফলে প্রতি রাতে প্রায় ২ বছর সমান বুড়িয়ে যায় আপনার মস্তিষ্ক। এই সমস্যাটি হয় তাদেরই যারা ৯ ঘণ্টা বা তার বেশি ঘুমিয়ে থাকেন।

৩) সন্তান জন্মদানে অক্ষমতা
২০১৩ সালে কোরিয়ার একটি গবেষণা দল ৬৫০ জন নারীর উপর গবেষণা চালিয়ে দেখতে পান যারা ৯ থেকে ১১ ঘণ্টা ঘুমান তাদের সন্তান জন্মদানের ব্যাপারে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। ডঃ ইভান রোজেনব্লাথ বলেন, ‘অতিরিক্ত ঘুম হরমোনের নিঃসরণ এবং মাসিকের উপর বেশ খারাপ প্রভাব ফেলে, আর সেকারনেই সন্তান জন্মদানে সমস্যা শুরু হয়’।

৪) ওজন বেড়ে যায়
গবেষণায় প্রমানিত হয় যারা বেশি ঘুমান তাদের স্বাভাবিক দৈহিক কর্মকাণ্ড অনেকাংশে ব্যাহত হয় যার কারণে মুটিয়ে যাওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। যারা ৯-১০ ঘণ্টা ঘুমান যাদের মোটা হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় ২৫% বেড়ে যায়।

৫) হৃদপিণ্ডের সমস্যা দেখা দেয়
২০১২ সালে অ্যামেরিকান কলেজ অফ কার্ডিওলজির একটি মিটিংয়ে একটি গবেষণায় ফলাফল প্রকাশ করা হয়, ‘যারা অতিরিক্ত বেশি ঘুমান তারা অনেক বেশি হৃদপিণ্ডের সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন’। গবেষকগণ প্রায় ৩,০০০ মানুষের উপর গবেষণা চালিয়ে দেখতে পান অন্যান্য সকলের তুলনায় হৃদপিণ্ডের রোগে আক্রান্তের সম্ভাবনা তাদেরই বেশি যারা অনেক বেশি ঘুমান। এই সমস্যা মৃত্যুঝুঁকি বাড়িয়ে দেয় অনেকাংশেই।

সূত্রঃ দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: