সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শুধুমাত্র আইন দিয়ে দুর্নীতি দমন করা যায় না: আইনমন্ত্রী  » «   জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ  » «   সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জা‌নি‌য়ে মোদিকে শেখ হাসিনার বার্তা  » «   গুগলে ‘টয়লেট পেপার’ লিখলে আসছে পাকিস্তানের পতাকা  » «   পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে ভারত?  » «   সাত বছরে ৬৩ বার পেছালো সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন  » «   তিন দিনের সীমান্ত সম্মেলনে বিএসএফ প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে  » «   বড় রাজনৈতিক দল অংশ না নেওয়া ইসির জন্য হতাশাজনক: সিইসি  » «   পাকিস্তানকে কী করতে পারবে ভারত?  » «   বঙ্গবীর ওসমানীর জন্ম-মৃত্যুবার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের দাবি  » «   দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় সা’দপন্থীদের ইজতেমা শুরু  » «   মোদির স্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না, পাল্টা হুঙ্কার পাকিস্তানের  » «   চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার খবরটি ‘টোটালি ফলস’  » «   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী  » «   জামায়াত নতুন নামে পুরনো চরিত্রে ফিরে আসে কিনা তা ভাবনার বিষয়  » «  

শ্লীলতাহানির অভিযোগে কারাগারে ২



নিউজ ডেস্ক::বান্দরবানের লামায় এক নিরীহ নারীকে মারধর ও শ্লীলতাহানির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ২ আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে লামা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট আদালত।

আদালতের দেয়া সমণের প্রেক্ষিতে সোমবার (২৩ জুলাই) আসামিরা হাজিরা দিতে আসলে উভয় পক্ষের আইনজীবিদের যুক্তিতর্ক শুনে ৫ মধ্যে ৩ জনকে জামিন ও ছাবের আহমদ, রেজাউল করিম এর জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে আদালত।

মামলা সূত্রে জানা যায়, একটি গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড কাঁঠালছড়া এলাকার নুর মোহাম্মদের স্ত্রী মোতাহারা বেগমকে (২৫) শনিবার (২১ জুন) বৃহস্পতিবার দিনদুপুরে ঘরে প্রবেশ করে মারধর ও শ্লীলতাহানি করে পার্শ্ববর্তী ছাবের আহমদ (৪০), রেজাউল করিম (২৩), জিয়াবুল করিম (২০), জিন্নত আলী (৪০) ও মোস্তাফিজ (২৪)।

এ সময় আসামিরা বাদীর ঘর থেকে ১ জোড়া স্বর্ণের কানের ফুল মূল্য ১৮ হাজার টাকা, ১টি আট আনা ওজনের স্বর্ণের চেইন মূল্য ২৩ হাজার টাকা ও জায়গা খরিদ করার জন্য ঘরে রক্ষিত নগদ ৫০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় নিরীহ গৃহবধু মোতাহারা বেগম ২দিন লামা হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ৫জনকে আসামি করে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রট আদালতে মামলা দায়ের করে।

মোতাহারা বেগম বলেন, আসামীদের দলবল ভারী। আমার স্বামী নেই। আমি নিরীহ মহিলা। মামলা করে আমি এখন নিরাপত্তাহীনতায় আছি। তারা আমাকে কেটে বস্তায় ভর্তি করে কাঁঠালছড়া খালে ভাসিয়ে দেবে বলে হুমকি দিচ্ছে। তারা উশৃঙ্খল হওয়ায় এলাকার কোন শালিসদাররা তাদের বিচার করেনা। জামিনপ্রাপ্ত জিয়াবুল করিম, জিন্নত আলী ও মোস্তাফিজ আমাকে দেখে নেবে বলে হুমকি দিচ্ছে। তারা সোমবার বিকেলে বাড়িতে এসে আমাকে মারধর করতে চেয়েছিল। আমি ঘর থেকে বাহির না হওয়ায় বেঁচে যায়।

এই বিষয়ে ছাবের আহমদের মুঠোফোনে কল দিলে তার মেয়ে পিংকি আক্তার বলেন, মোতাহারা বেগমের অভিযোগ সত্য নয়।

কাঁঠালছড়া পোয়াং বাড়ি মসজিদের সভাপতি মো. ইউনুচ বলেন, ছাবের আহমদসহ সবাইকে মসজিদের জায়গা থাকতে আমরা সুযোগ দিয়েছি। এই ফাঁকে ছাবের মৌজা হেডম্যান হতে একটি রিপোর্ট নিয়ে মসজিদের জায়গা তার নিজের বলে দাবি করে এবং অন্যদের তুলে দিতে গেলে এই সমস্যার সৃষ্টি হয়। ঘটনার দিন ছাবের লোকজন নিয়ে মোতাহারা বেগমকে অতিরিক্ত মারধর করে। এইভাবে মানুষ মানুষকে মারে না।

বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট মৃদুল বড়ুয়া বলেন, ঘটনার বিবরণ শুনে মহামান্য আদালত মামলাটি ৪৪৮/৩২৩/৩২৪/৩৫৪/৩৭৯/৫০৬ ও ৩৮০ ধারায় আমলে নিয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। সোমবার আদালত অভিযুক্ত ৫ জনের মধ্যে ৩ জনকে জামিন দেন ও ২ জনের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: