বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সুমনের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম  » «   দেশ থেকে পালানোর চেষ্টা করছিলেন দুদকের বাছির  » «   কে হচ্ছেন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী, জনসন না হান্ট?  » «   মিলানে ফেনী সমিতির জাকজমকপূর্ণ পুনর্মিলনী ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত  » «   সিলেট বিভাগে ফিটনেসবিহীন গাড়ির সংখ্যা প্রায় ৪৫ হাজার  » «   ভয়াবহ দাবানলে জ্বলছে পর্তুগাল  » «   কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতায় আগ্রহী ট্রাম্প, ভারতের না  » «   ‘কল্লা কাটা’ গুজব রটানো সুনামগঞ্জের কথিত কবি আজাদ গ্রেফতার  » «   সৎ পথে থাকলে আল্লাহ সহায় হবেন: ব্যারিস্টার সুমন  » «   জিএম কাদের জাপার চেয়ারম্যান নন: রওশন  » «   মক্কা-মদিনায় হাজিদের ‘হজ অ্যাপ’ সুবিধা দিচ্ছে ভারত!  » «   হজরত শাহজালালের (রহ.) মাজারে ভক্ত-আশেকানদের ঢল  » «   পশ্চিমবঙ্গেও ছেলেধরা গুজব, একজনকে পিটিয়ে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি  » «   গণপিটুনিতে রেনু নিহতের ঘটনায় আটক ৩ জন রিমান্ডে  » «  

শ্রীলংকার পার্লামেন্টে হাতাহাতি



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোটের একদিন পরেই শ্রীলংকার পার্লামেন্টে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছেন এমপিরা। বৃহস্পতিবার রাজাপাকসের সমর্থক এমপিরা হাতাহাতিতে জড়ান রনিল বিক্রমসিংহের এমপিদের সঙ্গে।

পার্লামেন্টের স্পিকার কারু জয়সুরিয়া ঘোষণা করেন,শ্রীলংকার এখন কোনও প্রধানমন্ত্রী বা মন্ত্রিসভা নেই। বুধবার অনাস্থা ভোটে হেরে যান মাহিন্দা রাজাপাকসে।স্পিকার কণ্ঠভোট গ্রহণের সময় রাজাপাকসের সমর্থকরা চিৎকার ও স্লোগান দেন। এরপরই পার্লামেন্টে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

রাজাপাকসে পার্লামেন্টে দেওয়া ভাষণে স্পিকারের এই পদক্ষেপকে প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি সাধারণ নির্বাচনের প্রস্তাব সমর্থন করতে এমপিদের প্রতি আহ্বান জানান। এরপরই তার সমর্থক এমপিরা প্রতিদ্বন্দ্বি দলের এমপিদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। অনেকে স্পিকারের দিকে পানির বোতল ছুড়ে মারেন।

শ্রীলংকার এই রাজনৈতিক সংকটের শুরু হয় ২৬ অক্টোবর। ওই দিন প্রেসিডেন্ট মৈত্রিপালা সিরিসেনা প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিংহকে বরখাস্ত করে রাজাপাকসেকে স্থলাভিষিক্ত করেন।পরদিনই পার্লামেন্ট অধিবেশন স্থগিত করেন।আন্তর্জাতিক চাপের মুখের গত সোমবার পার্লামেন্টের অধিবেশন শুরু হয়।কিন্তু যখন প্রতীয়মান হয় যে, রাজাপাকসে পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটে জয়ী হতে পারবেন না তখন সিরিসেনা পার্লামেন্ট ভেঙে দেন এবং আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দেন। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট প্রেসিডেন্টের এই সিদ্ধান্তকে বাতিল করে দেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: