সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
গাদ্দাফিকে হত্যায় ফ্রান্সের হাত থাকার ঘটনা ফাঁস!  » «   গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া অভিনব প্রতিবাদ  » «   আইনজীবীর সহকারী হত্যা : ১২ জনের মৃত্যুদণ্ড  » «   শয়তানের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক সৌদি যুবরাজের!  » «   মন্দিরের নিরাপত্তায় মাদ্রাসা ছাত্ররা  » «   ভোলার সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলা, আসামি ৫ হাজার  » «   সৌদিতে নিহত ১১ বাংলাদেশির মধ্যে ৯ জনের পরিচয় প্রকাশ  » «   টনক নড়াতে টনিক  » «   শিক্ষামন্ত্রীর যেসব যুক্তি খণ্ডন করতে পারেননি ননএমপিও শিক্ষক নেতারা  » «   প্রথমবার মহাকাশে হাঁটলেন যে দুই নারী  » «   যে কোনো মুহূর্তে গ্রেপ্তার হচ্ছেন যুবলীগের বহিস্কৃত চেয়ারম্যান  » «   ‘জনগণ ভোট দিতে পারেনি’ বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন মেনন  » «   ঐক্যফ্রন্টে মেনন?  » «   পরীক্ষা জালিয়াতি: এমপি বুবলীকে প্রধানমন্ত্রীর তলব  » «   মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ৫  » «  

শ্রীমঙ্গলে লাশবাহী গাড়ি আটকে ‘পুলিশের চাঁদাবাজি’



নিউজ ডেস্ক:: শ্রীমঙ্গলে লাশবাহী গাড়ি আটকে হাইওয়ে পুলিশের চাঁদাবাজির প্রতিবাদে তিন ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন পরিবহন শ্রমিকরা। পরে শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালেক এর সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তোলে নেন।

শ্রমিকরা জানায়, শনিবার (১৫ জুন) সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের বিলাসের পাড় নামক স্থানে সিলেট থেকে শ্রীমঙ্গলগামী একটি লাশবাহী পিকআপ ভ্যানকে কাগজপত্র যাচাইয়ের জন্য থামান হাইওয়ে পুলিশের সাতগাঁও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল। এসময় ওই গাড়ীর ড্রাইভারের কাছ থেকে তিনি নিয়ম বহির্ভূত ভাবে চাঁদা দাবি করেন এবং লাশবাহী গাড়িটিকে আটকে রাখেন।

এর প্রতিবাদে শ্রমিকরা সাড়ে দশটা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে রাখেন। এতে ঢাকা সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। পরে শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস ছালেক এর সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তোলে নেন।ওসি আব্দুস ছালেক জানান, শ্রমিকদের অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ব্যবস্থা নিবেন।

এদিকে ট্রাক ও ট্যাংক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহাজান মিয়া বলেন, নান্নু মণ্ডলের নৈরাজ্যের মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। আজ উনি যা করেছেন তা অমানবিক। আমরা এর তদন্ত সাপেক্ষে সুষ্ঠু বিচার চাই।

অপরদিকে এই সড়কে চলাচলকারী একাধিক গাড়ির চালক নান্নু মণ্ডলের বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ আনেন। ড্রাইভার পারভেজ মিয়া বলেন, প্রতিনিয়ত নান্নু মণ্ডলের চাঁদাবাজির কারণে আমরা অতিষ্ঠ। সে এই রোডের প্রত্যেকটি গাড়ী জায়গায় জায়গায় আটকিয়ে চাঁদাবাজি করে। চাঁদা না দিলে হাইওয়ে পুলিশের সাতগাঁও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল চালকদের মারধর করেন বলেও অভিযোগ করেন চলক।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে হাইওয়ে পুলিশ সাঁতগাও ফাড়ির ইনচার্জ নান্নু মণ্ডল বলেন, ‘আমাদের হাইওয়ে পুলিশের মূল দায়িত্ব নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করা। এই কাজ করতে গিয়ে আমরা নানা ধরনের যানবাহন আটকিয়ে কাগজপত্র যাচাই করি। এ কারণেই তারা আমার উপর এরকম ভিত্তিহীন অভিযোগ এনেছে।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: