শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’



23. gulshanনিউজ ডেস্ক::
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের সামনে পিঠে এবং বুকে ‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’ লিখে প্রতিবাদ জানিয়েছে মো. দেলোয়ার হোসেন নূর নামের এক যুবক। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে গুলশানে বিএনপির রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে নূর হোসেন তার গায়ে ‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’ লেখা নিয়ে একাই বিক্ষোভ করেন।

এ সময় চেয়ারপার্সনের প্রেস উইং শায়রুল কবির খান গেটের ভেতর থেকে মো. দেলোয়ার হোসেন নূরকে বলেন, আপনাকে ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) সালাম জানিয়েছেন। এই যুবকের বাড়ি গাজিপুরের কালিগঞ্জের বোক্তারপুর গ্রামে। বাড়ি থেকে সে এ দাবি নিয়ে এসেছেন। নূর হোসেন কার্যালয়ের সামনে দাড়িয়ে বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আপনি আপসহীন নেত্রী। আপনি গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে আপোসহীন নেত্রী হয়েছেন। আপনি কারো সাথে গণতন্ত্রের জন্য আপোস করবে না। জনগণ আপনার সাথে আছে।

এ সময় তার কাছে একটি ব্যানার দেখা গেছে। এতে লেখা ছিল- বেগম খালেদা জিয়ার হুলিয়া তুলে নিতে হবে। সংঘাত চাই নয়, শান্তি চাই। প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ চাই, করতে হবে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, গাজীপুরের মেয়র এম এ মান্নান, যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী সহ সকল রাজবন্দীর মুক্ত চাই। প্রায় ১০ মিনিট নূর হোসেন দাড়িয়ে বক্তব্য দেওয়ার পর পুলিশ তাকে কার্যালয়ের সমানে থেকে ৮৬ নং রোড়ের উত্তর দিকে নিয়ে যায়। এ সময় নূর হোসেন যেতে না চাইলে পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যায়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: