সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইতালির নাগরিকত্ব হারাতে পারেন ৩ হাজার বাংলাদেশি  » «   নবীগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাই ৫টি ঘর, ১২ লাখ টাকার ক্ষতি  » «   ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি-সম্পাদকের প্রতিশ্রুতি  » «   শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে রণক্ষেত্র, আহত ৩০  » «   চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের  » «   কাশ্মিরের মুসলমানদের ওপর নির্যাতন বন্ধের দাবিতে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ মিছিল  » «   হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ  » «   আফগান সীমান্তে ৪ পাকিস্তানি সেনা নিহত  » «   ঈদের খরচ হিসেবে ‘ন্যায্য পাওনা’ চেয়েছিলাম: রাব্বানী  » «   পুলিশ সুপারদের কুচকাওয়াজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  » «   ছাত্রলীগের নেতৃত্বে জয়-লেখক  » «   হিন্দি চাপিয়ে দিলে ভাষা যুদ্ধের হুমকি, রাজ্যে রাজ্যে প্রতিবাদ  » «   শিক্ষামন্ত্রীর কড়া চিঠি  » «   পরিবহন ধর্মঘটে বিপর্যস্ত প্যারিস; ৩৮০ কিমি ট্র্যাফিক জ্যাম!  » «  

‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’



23. gulshanনিউজ ডেস্ক::
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের সামনে পিঠে এবং বুকে ‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’ লিখে প্রতিবাদ জানিয়েছে মো. দেলোয়ার হোসেন নূর নামের এক যুবক। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে গুলশানে বিএনপির রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে নূর হোসেন তার গায়ে ‘শেখ হাসিনার পদত্যাগ চাই, গণতন্ত্রের মুক্তি চাই’ লেখা নিয়ে একাই বিক্ষোভ করেন।

এ সময় চেয়ারপার্সনের প্রেস উইং শায়রুল কবির খান গেটের ভেতর থেকে মো. দেলোয়ার হোসেন নূরকে বলেন, আপনাকে ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) সালাম জানিয়েছেন। এই যুবকের বাড়ি গাজিপুরের কালিগঞ্জের বোক্তারপুর গ্রামে। বাড়ি থেকে সে এ দাবি নিয়ে এসেছেন। নূর হোসেন কার্যালয়ের সামনে দাড়িয়ে বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আপনি আপসহীন নেত্রী। আপনি গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে আপোসহীন নেত্রী হয়েছেন। আপনি কারো সাথে গণতন্ত্রের জন্য আপোস করবে না। জনগণ আপনার সাথে আছে।

এ সময় তার কাছে একটি ব্যানার দেখা গেছে। এতে লেখা ছিল- বেগম খালেদা জিয়ার হুলিয়া তুলে নিতে হবে। সংঘাত চাই নয়, শান্তি চাই। প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ চাই, করতে হবে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, গাজীপুরের মেয়র এম এ মান্নান, যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী সহ সকল রাজবন্দীর মুক্ত চাই। প্রায় ১০ মিনিট নূর হোসেন দাড়িয়ে বক্তব্য দেওয়ার পর পুলিশ তাকে কার্যালয়ের সমানে থেকে ৮৬ নং রোড়ের উত্তর দিকে নিয়ে যায়। এ সময় নূর হোসেন যেতে না চাইলে পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যায়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: