সোমবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

‘লন্ডনে ১০দিন আছি, যে যা করতে চান যোগাযোগ করেন’



লন্ডন সংবাদদাতা:: একের পর এক দম্ভোক্তি দেখিয়ে যাচ্ছেন সিলেটীদের নিয়ে কটুক্তি করা গাজী টিভির (জিটিভি) চাকরিচ্যুত ক্রীড়া সাংবাদিক জাওয়াদ নির্ঝর। সিলেটবাসীদের নিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে দিচ্ছেন উস্কানিমূলক স্ট্যাটাস। জাওয়াদ নির্ঝর ২৪ঘন্টার ব্যবধানে আবারো তাঁর ফেসবুক ওয়ালে নিজেকে এখন মুক্ত উল্লেখ করে লিখেন, আমার কলম এখন সম্পূর্ণ স্বাধীন। আমাকে থ্রেট দিয়ে লাভ নেই, আমার পরিবার নিয়ে গালিগালাজ করা যৌক্তিক না। আমি লন্ডনে আরো ১০দিনের উপরে আছি। যে যা করতে চান, আমার ফেসবুকে যোগাযোগ করেন। আমি প্রস্তুত আছি। অপর আরেকটি স্ট্যাটাসে জাওয়াদ নির্ঝর তার চাকুরি থেকে অব্যহতি দেয়াকে হাস্যকর উল্লেখ্য করে লিখেন, আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে, চাকুরি থেকে অব্যহতি দেয়াটা হাস্যজনক। প্রিয় প্রতিষ্টান জিটিভির সিদ্ধান্তের প্রতি পূর্ন সম্মান রেখে বলতে চাই, আমার ফোনটা মিসিং ছিল। আমার বক্তব্য অবশ্যই শোনা উচিত ছিল। সিদ্ধান্তটা দেশে যাওয়ার পরেও নিতে পারতো। একজন রিপোর্টার যখন হাজার মাইল দূরে অফিসের কাজে থাকে..সে মূহুর্তে অফিসের এমন সিদ্ধান্তটা সত্যিই রিপোর্টারকে অকূল সমুদ্রে ফেলে দেয়ার মতো। আর আমি এতো বিখ্যাত মানুষ নই যে,আমার এক স্ট্যাটাসে দেশ গরম হয়ে যাবে।
এর আগে মঙ্গলবার তিনি লন্ডনে অবস্থান করছেন উল্লেখ্য করে আরেকটি স্ট্যাটাসে লিখেন, আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হচ্ছে। যাই হোক আমি ঠিক আছি। আমার কিছু হলে দায়ভারটা ইব্রাহিম মিয়ার মতো কিছু মানুষদের নিতে হবে। আমি সব প্রশ্নের জবাব দিবো।
তাঁর দেয়া এ সকল স্ট্যাটাসকে উস্কানিমূলক বলে ক্ষোভ ঝাড়ছেন প্রবাসীসহ সকল সিলেটীরা। লন্ডন প্রবাসী মিজানুর রহমান বলেন, জাওয়াদের তথাকথিত দাপটে আমরা হতবাক। তাকে জিটিভি থেকে পেশাগত দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ায় আমরা প্রবাসীরা শান্ত ছিলাম। কিন্তু তার এসকল কথাবার্তা প্রবাসীদের ক্ষোভ বাড়াচ্ছে। আমাদের প্রবাসীদের অনেকেই এসব লেখা দেখে তাকে হন্য হন্য হয়ে খুঁজছেন।
প্রবাসীরা জানান, এ নিয়ে লন্ডন জুড়ে তীব্র অসন্তোষ বিরাজ করছে। আমরা তাঁর অবস্থান জানার চেষ্টা করছি। সে ইতিমধ্যে হোটেল থেকে পালিয়েছে। তাকে যেখানেই পাওয়া যাবে সেখানেই গণধোলাই দেয়া হবে। প্রবাসীদের দাবি, সিলেটবাসী সম্পর্কে জাওয়াদ যে বিদ্বেষী বক্তব্য দিয়েছেন তা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে সবার কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।
উল্লেখ্য, ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির নিউজ কাভার করতে গিয়ে লন্ডনে সিলেটীদের নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন সাংবাদিক জাওয়াদ নির্ঝর। । তবে তার দেয়া ফেসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে তোলপাড় শুরু হয় বাংলাদেশসহ যুক্তরাজ্য প্রবাসী সিলেটিদের মাঝে। সিলেটীদের নিয়ে কটুক্তি করা স্ট্যাটাসে হারান চাকরি। মঙ্গলবার (৬ জুন) রাত ১১টার দিকে জিটিভির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে এক আনুষ্ঠানিক ঘোষণায় জাওয়াদকে পেশাগত দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।
এর আগে জাওয়াদ ফেসবুকে সিলেটীদের নিয়ে লিখেন- লন্ডন যতটা না… তারচেয়েও বেশী খারাপ এখানকার সিলেটীরা ! এরা না হইতে পারছে বাঙালী…না হইছে ব্রিটিশ…হইছে শুয়ারের বাচ্চা! প্রমাণ স্বরুপ ভিডিও আসছে!
আরেকটি ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন জাওয়াদ। সেখানে তিনি লিখেন, ‌”ভাই, লন্ডন থেকে যাবেন নাকি! অপরিচিত বাঙ্গালীদের এই বিরক্তিকর কমন প্রশ্ন! ফইন্নির ঘরের ফইন্নিদের লন্ডনে থাইকা টাকা পয়সা হইছে ঠিকই! মানুষ হইতে পারে নাই!!”

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: