সোমবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

লতিফকে নিয়ে ইদুর-বিড়াল খেলা শেষ করলেন স্পিকার



Latif-spikerনিউজ ডেস্ক :: দীর্ঘ আট মাস জিইয়ে রেখে শেষ পর্যন্ত দলের বিতর্কিত সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কারের চিঠি প্রাপ্তির কথা অবশেষে স্বীকার করেছেন স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী। এর আগে গত দুইদিন এ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ইদুর-বিড়াল খেলা খেলেন স্পিকার। গত ৫ জুলাই পাঠানো এ চিঠির বিষয়টি আজ মঙ্গলবার গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেন তিনি।

এর আগে ৬ জুলাই সোমবার চিঠির বিষয়ে জানতে স্পিকারের কাছে সাংবাদিকরা গেলে তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন বলে দাবি করেন তার ব্যাক্তিগত সহকারি এ কে এম কামাল বিল্লাহ। এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে অলিখিত বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছিলো সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তাদের ওপর।

অবশেষে মঙ্গলবার সকালে স্পিকারের বরাত দিয়ে একটি বার্তা সংস্থা চিঠি প্রাপ্তির কথা প্রচার করে।

তবে সাবেক মন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর সংসদ সদস্য পদ থাকবে কী না তা এখনো চূড়ান্ত করেননি স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী তিনি বলেছেন, এই চিঠি নির্বাচন কমিশনে পাঠানো হবে তার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তিনি সংসদ সদস্য থাকবেন কি থাকবেননা।

উল্লেখ্য: গত ২৮ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে এক অনুষ্ঠানে নবী হযরত মোহাম্মদ (সা.), হজ ও তাবলীগ জামাত সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্য দেয়ায় লতিফ সিদ্দিকীকে প্রথমে মন্ত্রিপরিষদ থেকে অপসারণ করা হয়। এরপর তাকে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ ও সর্বশেষ দলের সাধারণ সদস্য পদ থেকেও বহিষ্কার করা হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: