মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইসি প্রশ্নবিদ্ধ ভোট করতে চায় না: সিইসি  » «   বিয়ানীবাজারে ‘পুলিশ প্রহরায়’ নাহিদের প্রচারণা!  » «   হবিগঞ্জে ধানের শীষ পেলেন রেজা কিবরিয়া  » «   কাতারে কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম সিলেটের সাইয়্যেদ  » «   প্রিয়ডটকম-বিএনপিনিউজ২৪-সিএনএনবিডি২৪ সহ ৫৮ নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ  » «   আজ থেকে শুরু জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ  » «   নিজেকে ট্রাম্পকন্যা দাবি এক পাকিস্তানি তরুণীর!  » «   প্রতীক বরাদ্দ আজ, শঙ্কা নিয়ে শুরু হচ্ছে ভোটযুদ্ধ  » «   আজ খালেদা জিয়ার ভাগ্য নির্ধারণ  » «   নৌকা প্রতীকে লড়বেন জাতীয় পার্টির যে ২৯ প্রার্থী  » «   জাপা পেলো ৩০ আসন, উন্মুক্ত ১৩২  » «   মেয়র পদে থেকেই সংসদ নির্বাচন করা যাবে: হাইকোর্ট  » «   সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতি প্রবেশ করছে: প্রধান বিচারপতি  » «   প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে হিরো আলম  » «   যেসব আসনে ধানের শীষের প্রার্থী পরিবর্তন  » «  

‘লজ্জা-শরমের মাথা খেয়ে বলে দিলাম’



বিনোদন ডেস্ক::মডেল ও অভিনেত্রী ফারিয়া শাহরিন। সম্প্রতি মালেশিয়া থেকে দেশে ফিরে একটি বিভ্রান্তিমূলক মন্তব্য করে শোবিজ জগতে বিতর্কের সৃষ্টি করেন। মালেশিয়া প্রবাসী ফারিয়া গত সফরে মাত্র একটি নাটক করেই আবার মালেশিয়ায় উড়াল দেন। পড়ালেখার কাজে বর্তমানে সেখানেই রয়েছেন।

এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের একটি অনুভূতির কথা জানালেন ফারিয়া শাহরিন। অনেক বেশি প্রত্যাশা থাকা সত্বেও পুরস্কার না পাওয়ার কষ্টময় অনুভূতি কেমন, সেটাই যেন বললেন তিনি।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে ফারিয়া লিখেছেন, একটা দুঃখের কথা শেয়ার করি। অনেক আগে থেকে করবো করবো করেও করিনাই। আজ লজ্জা-শরমের মাথা খেয়ে বলে দিলাম। আমি যখন বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ার (কথা দিলাম) বিজ্ঞাপনটা করলাম, যেটার জন্য আমাকে মানুষ চিনে। সেই বছর আমি মানুষের প্রতিক্রিয়া আর উৎসাহ দেখে ধরেই নিয়েছিলাম ‘মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার’-এ বেস্ট মডেল এইবার তো আমি হবোই।

তিনি লিখেছেন, আমি খুব এক্সাইটেড ছিলাম, কারণ মেরিল প্রথম আলো পুরস্কার আমার মনে হয় সঠিক বিচার-বিশ্লেষণ করে। যা একদমই পক্ষপাতমূলক না। কিন্তু হলো না। ‘বেস্ট মডেল’-এর পুরস্কার দেয়াই বন্ধ হয়ে গেলো তখন থেকে। আর আমার স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেলো।

স্ট্যাটাসে ফারিয়া আরো বলেন, আর তো পূরণ হওয়ার কোনো সম্ভাবনাই মনে হয় নেই। কিন্তু যারা এই পুরস্কার জেতেন, তাদের ভাগ্য দেখে খুব হিংসা হয়। কিন্তু ভালোও লাগে যে, তারা তাদের কষ্টের পুরস্কারটা পেলো। দেখি বাচ্চা-কাচ্চা হলে ওরা যদি পায় আর কি তাও শান্তি লাগবে। হে হে …তবে আমি খুব খুশি মেহজাবিন ও অপূর্ব ভাই অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে তাই। কারণ তারাই শতভাগ যোগ্য ছিলো। এজন্যই এই অ্যাওয়ার্ডটা এতো ভালো লাগে।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে ‘লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হন ফারিয়া শাহরিন। এরপর নাটক আর বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেন। অভিনয় করেছেন চলচ্চিত্রেও। তবে তাঁর সমসাময়িকদের তুলনায় ফারিয়ার কাজের সংখ্যা একেবারেই কম।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: