রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মহান বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা  » «   চমক থাকছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে  » «   দুই-তিন দিনের মধ্যে ইসিতে যাবে বিএনপি  » «   কাদের সিদ্দিকী রাজাকার, বদমাইশ : মির্জা আজম  » «   নির্বাচনের ৭ দিন আগে ব্যালট পৌঁছে যাবে: ইসি সচিব  » «   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চান ড. কামাল  » «   যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড কানাডায় বোমা হামলার হুমকি  » «   ক্ষমা চাইলেন ড. কামাল  » «   মন্দিরের প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৮১  » «   ২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «  

রেস্টুরেন্টে গিয়ে যে ভুলগুলো করবেন না



লাইফ স্টাইল ডেস্ক:: বাঙালিরা অনেক ভোজনবিলাসী হয়ে থাকে। তবে রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়ে অনেক সময়েই আমরা ভদ্র আচরণ করতে গিয়ে ভুল কাজ করে ফেলি। কিছু সাধারণ জিনিস না জানার কারণে রেস্টুরেন্টে গিয়ে অনেক সময়ে লজ্জায় পড়তে হয়। তাই আজ থেকে কিছু অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে এবং রেস্টুরেন্ট ম্যানার্স জানতে হবে।

বসার সাথে সাথে অর্ডারের জন্য অস্থির হওয়াঃ অধিকাংশ মানুষ রেস্টুরেন্টে ঢুকেই বসার সাথে সাথে খাবার অর্ডার দেয়ার জন্য অস্থির হয়ে যায়। আপনি ঢুকেই ওয়েটারকে ডাকাডাকি না করে দুই মিনিট বসুন। অপেক্ষা করুন। আপনি যেহেতু রেস্টুরেন্টে গিয়েছেন ওয়েটার নিশ্চয়ই আপনাকে তাদের নিজস্ব গতিতে আপ্যায়ন করবে।

অন্য একজন সার্ভারের কাছে নতুন অর্ডার করাঃ খাবার খাওয়ার মধ্যে ড্রিঙ্কস, পানি কিংবা ডেজার্ট লাগতে পারে। এমন সময় হঠাৎ করে অন্য একজন ওয়েটারকে ডেকে অর্ডার দেয়া ভাল দেখায় না। কারণ রেস্টুরেন্টে একেক টেবিলের দায়িত্বে একেকজন থাকে। তাছাড়া বিল নেয়ার সময় যদি দুইজনে বিলের কাগজসহ আসে তখন ব্যাপারটা বিব্রতকর হয়ে যায়।

দুর্ঘটনার পর নিজে টেবিল পরিষ্কার করাঃ রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়ে অনেক সময় পানির গ্লাস কিংবা ড্রিংসের গ্লাস পড়ে যেতে পারে। এতে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই। বিষয়টিকে ঢাকার জন্য টিস্যু দিয়ে নিজে পরিষ্কার করবেন না। রেস্টুরেন্টে কর্মরত কর্মী পরিষ্কার করবে।

খাবার পরিবেশনকারীদের সাথে অতিরিক্ত গল্প না করাঃ রেস্টুরেন্টে গিয়ে খাবার পরিবেশনকারীর সাথে গল্প জুড়ে দিবেন, তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে নানা প্রশ্ন করবেন না। এই ধরনের প্রশ্নের উত্তর দিতে সে বিব্রত হয়।

ধারণা না থাকলে সে খাবার অর্ডার করবেন নাঃ মেন্যুতে উল্লেখ থাকা এমন কোনো বিদেশি খাবারের অর্ডার দেবেন না, যার নাম আপনি জানেন না। রেস্টুরেন্টের মেন্যুতে যেসব খাবারের উল্লেখ আছে সেগুলোর মধ্যে থেকে একটি খাবার অর্ডার দিন। অযথা এটা আছে কিনা, ওটা আছে কিনা এমন প্রশ্ন করে সময় দীর্ঘায়িত করবেন না।

খাবার পরিবেশনকারীকে বিরক্ত করবেন নাঃ রেস্টুরেন্টে খেতে গিয়ে ওয়েটারকে ডাকা ও খাবার পরিবেশনের জন্য বলা স্বাভাবিক। তবে খাবার খেতে বসে অতিরিক্ত ডাকবেন না। আপনার কথাগুলো উচ্চস্বরে না বলে ভাল করে বলুন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: