মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পানি বণ্টনের নতুন ফর্মুলা খুঁজছে বাংলাদেশ-ভারত: জয়শঙ্কর  » «   শেখ হাসিনার ছাত্রলীগে জামায়াতি আঁচড়!  » «   অবশেষে ক্ষমা চাইলেন জাকির নায়েক  » «   অপরাধীদের শাস্তি দ্রুত নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে: হাইকোর্ট  » «   সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে ‘স্পিড গান’  » «   কমলাপুর রেলওভার ব্রিজের ত্রুটির চিত্র তুলে ধরলেন ব্যারিস্টার সুমন  » «   জিন্দাবাজারে মিললো ২টি গোখরাসহ ৬ বিষধর সাপ  » «   কাশ্মীর ইস্যুতে আলোচনায় বসছেন ট্রাম্প- মোদী!  » «   মাত্র ১০০ মিটার দূরেই শত্রু  » «   অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থাকবে সরকার: কাদের  » «   থানায় ‘গণধর্ষণের’ শিকার সেই নারীর জামিন নামঞ্জুর  » «   মিন্নির স্বীকারোক্তির আগে নাকি পরে এসপির ব্রিফিং : হাইকোর্ট  » «   প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবারে মন্ত্রিসভার সায়  » «   নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশ নিয়ে আপিল বিভাগের সিদ্ধান্ত মঙ্গলবার  » «   পাঁচভাই রেস্টুরেন্টে প্রবাসীর ওপর হামলা: দুই ছাত্রলীগ কর্মী গ্রেপ্তার  » «  

রুবেল খুব বেশি খারাপ করেনি



খেলাধুলা ডেস্ক::নিদাহাস ট্রফির বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ফাইনাল ম্যাচ শেষ হলেও থেকে গেছে কিছু প্রশ্ন। এসব প্রশ্ন হয়তো ম্যচে জিতলে কেউ করতো না তবে পরাজয়ের কারণেই হয়তো এই প্রশ্ন গুলোই আমাদের মনে ঘুরপাক খাচ্ছে। রুবেল হোসেন কেন আরও একটু ভালো বোলিং করলেন না, সৌম্য সরকার শেষের বলটা কেনো ওভাবে অফসাইডে করলেন?

তবে দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের মনে নেই কোনো প্রশ্ন। সাকিব এক কথায় জানিয়ে দিয়েছেন, রুবেল বা সৌম্যর প্রতি তার আস্থা অবিচল।

বাংলাদেশের দিকে জয়টা যখন এগিয়ে আসছে একটু একটু করে তখনই ১৯তম ওভারে রুবেলের ২২ রান, সব স্বপ্নের শেষ করে দেয়। দুর্দান্ত এক স্পেলে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডকে হারানো বা নিউজিল্যান্ডকে দেশের মাটিতে হোয়াইটওয়াশে তার অবদান যেন এক নিমিষেই ঢাকা পড়ে যায়। যদিও সাকিব ভোলেননি রুবেলের সেসব অবদান। আর তাই তো ম্যাচ শেষে পক্ষ নিয়েছেন ডানহাতি ফাস্ট বোলারের।

রবিবারের ম্যাচ শেষে সাকিব বলেন, ‘সত্যি বলতে সে (রুবেল) খুব বেশি খারাপ করেনি। যেখানে বল করার পরিকল্পনা ছিল, তার থেকে একটু সরে গেছে। এটা হতেই পারে। আমি জানি না, ইতিহাসে কতজন ব্যাটসম্যান আছেন যারা এসেই প্রথম বলে ছক্কা পরের বলে চার এরপর আবার ছক্কা হাঁকান! কিন্তু কার্তিক (দীনেশ) সেটাই করেছে। স্বাভাবিকভাবেই রুবেল প্রথম দুই বলে ১০ রান নেওয়ার পর নার্ভাস হয়ে পড়েছিল। কিন্তু এখনও আমি ভাবি, আমি ভবিষ্যতেও এমন পরিস্থিতিতে রুবেলের হাতে বল তুলে দেব।’

তিন ওভারে যখন ৩৫ রান প্রয়োজন মুস্তাফিজুর রহমানের অসাধারণ একটি ওভারে অনেকটাই ম্যাচ ঘুরে যায় বাংলাদেশের দিকে। মুস্তাফিজের ওভারে লেগবাই থেকে মাত্র একটি রান হয়, আর একটি উইকেটও হারায় ভারত। কিন্তু পরের ওভারেই রুবেলকে তুলোধুনো করেন কার্তিক। আগের তিন ওভারে দুর্দান্ত বোলিং করে মাত্র ১৩ রান দেওয়া রুবেলের এক ওভারেই আসে ২২ রান। ম্যাচ চলে যায় ভারতের দিকে। শেষ ওভারে পার্টটাইমার সৌম্যর ওপর চাপ আরও বেড়ে যায়। সে চাপ শেষ পর্যন্ত আর সামলাতে পারেননি সৌম্য।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: