রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ, শিগগিরই কংগ্রেসের নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: অনেক চেষ্টার পরও রাহুল গান্ধীর সিদ্ধান্ত বদলাতে ব্যর্থ হয়েছে কংগ্রেস। তিনি দলের সর্বভারতীয় সভাপতির পদে থাকবেন না ফের জানিয়ে যত দ্রুত সম্ভব কংগ্রেসকে নতুন সভাপতি নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছেন রাহুল। কংগ্রেসের নতুন সভাপতি নির্বাচন প্রক্রিয়ার মধ্যেও থাকবেন না রাহুল গান্ধী।

পদত্যাগ নিয়ে রাহুল গান্ধী বলেন, আর দেরি না করে যত দ্রুত সম্ভব দলের নতুন সভাপতি নির্বাচন করা হোক, আমি এই প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকছি না। আমি ইতিমধ্যেই আমার পদত্যাগপত্র দিয়ে দিয়েছি এবং দলের সর্বভারতীয় সভাপতি পদের দায়িত্বে থাকছি না।

কংগ্রেসের নেতারা তাকে বারবার নিজের পদত্যাগপত্র ফিরিয়ে নিতে অনুরোধ করেছেন। তবে এতে তিনি কোনো রকমের সাড়া দেননি। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, নিজের সিদ্ধান্ত বদলানো সম্ভব নয়। রাহুল গান্ধী কংগ্রেসের কার্যকরী কমিটিকে বলেন, খুব তাড়াতাড়ি একটি বৈঠক ডাকা হোক,যাতে দলের নতুন সভাপতি কে হবেন, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। নতুন নাম নির্বাচন করে তা জানিয়ে দেওয়ার জন্যেও দলকে পরামর্শ দেন রাহুল।

গত লোকসভা নির্বাচনে গোটা দেশেই অত্যন্ত খারাপ ফল করে কংগ্রেস। রাহুল গান্ধী নিজে আমেথিতে প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি প্রার্থী স্মৃতি ইরানির কাছে হেরে যান। যদিও কেরালার ওয়ানাড় কেন্দ্র থেকে জিতে কিছুটা হলেও মুখ রক্ষা করেন তিনি।

এরপরেই রাহুল অসন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, কংগ্রেসের এই হারের দায় কোনো নেতাই নিতে আগ্রহী নন। তাই তিনিই কংগ্রেসের খারাপ ফলের দায় নিয়ে গত ২৫ মে কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দেন।

তার আগে ২০ জুন এনডিটিভিকেও এক সাক্ষাতকারে রাহুল বলেন, যেকোনো বিষয়েই একটি দায়বদ্ধতা থাকে। তবে রাহুল গান্ধীর পদত্যাগের সিদ্ধান্তের পরেই দেশজুড়ে বিভিন্ন কংগ্রেস নেতাদের মধ্যে পদত্যাগ করার হিড়িক পড়ে যায়। যদিও কোনো কিছুই টলাতে পারেনি রাহুল গান্ধীকে। কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি পদে আর না থাকার সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: