বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «   সহিংসতার ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিইসির নির্দেশ  » «   ‘ইডিয়ট’ লিখে গুগলে সার্চ দিলে কেনো আসে ট্রাম্পের ছবি?  » «   বিশ্ব ভ্রমণ করবে বাংলাদেশের প্রথম বিদ্যুৎচালিত গাড়ি  » «   খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি আরব ছাড়পত্র পাবে না: নিক্কি হ্যালি  » «   গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজ খালেদা ও হিরো আলম  » «   আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে  » «   ফোনালাপ ফাঁস: খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ  » «   নির্বাচনে এজেন্ট পাওয়া নিয়ে চিন্তায় বিএনপি  » «  

রাবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি



ইন্টার্নশীপ পেপারের স্বাক্ষরকে কেন্দ্র করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) এ ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে। ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যাক্তির সাক্ষাৎকার ও তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করছেন বলেও জানা গেছে। জানা যায়, ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে (আইবিএ) শিক্ষক প্রফেসর ড. মোহা. হাছানাত আলীকে মারধর করে ওই ইনস্টিটিউটের এমবিএ ডে ৯ম ব্যাচের (স্যান্ধ্যকালীন) শিক্ষার্থী নাহিদ মো. হায়দার।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গত ৪ অক্টোবর রসায়ন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর চৌধুরী মো: জাকারিয়াকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, আইন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর হাসিবুল আলম প্রধান ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু শামস্ মো. রেজাউল হাসান করিম বাকশী।

এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ভিসি প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানের সাথে দেখা করে অপরাধী ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান। তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর চৌধুরী মো: জাকারিয়া বলেন, ‘তদন্ত কমটির কাজ চলছে। প্রশাসন যে সময় বেঁধে দিয়েছে, আশাকরি নিদিষ্টি সময়ের মধ্যেই তদন্ত কাজ শেষ করতে পারবো।’

হামলার শিকার শিক্ষক প্রফেসর হাছানাত আলী বলেন, ‘আমাকে আগামী ১০ তারিখে সাক্ষাতের জন্য ডেকেছে। আশাকরি সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যেমে ঐ ছাত্রের বিরুদ্ধে যথাপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করবে তদন্ত কমিটি।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: