বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বরখাস্তকৃত ন্যানগ্যাগওয়াই হচ্ছেন জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট  » «   খালেদার গাড়িবহরে হামলা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের পরিকল্পনার অংশ  » «   এক মোটরসাইকেলেই বিশ্ব রেকর্ড  » «   কাঁদলেন ঐশ্বরিয়া, ১শ শিশুর ঠোঁটের অস্ত্রোপচারে খরচ দিবেন  » «   কাল থেকে পুনরায় চালু হচ্ছে চুয়েট বাস  » «   বলি একটা লেখেন আরেকটা: সাংবাদিকদের রোনালদো  » «   এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১ ফেব্রুয়ারি  » «   মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ছাত্রলীগের স্কুল কমিটি  » «   এগিয়ে থাকুন সৃজনশীলতায়  » «   সংসদে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ১ বছরে সাড়ে ৩ কোটি ইয়াবা জব্দ  » «   শ্রীমঙ্গলে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন  » «   দখলমুক্ত হচ্ছে খাল ও নদী  » «   কুমিল্লায় হানিফ‘আ’লীগকে হুংকার দিয়ে লাভ নেই’  » «   কমলগঞ্জে প্রতিহিংসায় বিনষ্ট কৃষকের শিম বাগান  » «   অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ নানা অভিযোগ  » «  

রাবি শিক্ষককে মারধরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি



ইন্টার্নশীপ পেপারের স্বাক্ষরকে কেন্দ্র করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) এ ছাত্রের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে। ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যাক্তির সাক্ষাৎকার ও তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করছেন বলেও জানা গেছে। জানা যায়, ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে (আইবিএ) শিক্ষক প্রফেসর ড. মোহা. হাছানাত আলীকে মারধর করে ওই ইনস্টিটিউটের এমবিএ ডে ৯ম ব্যাচের (স্যান্ধ্যকালীন) শিক্ষার্থী নাহিদ মো. হায়দার।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গত ৪ অক্টোবর রসায়ন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর চৌধুরী মো: জাকারিয়াকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, আইন বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর হাসিবুল আলম প্রধান ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক সহযোগী অধ্যাপক ড. আবু শামস্ মো. রেজাউল হাসান করিম বাকশী।

এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ ভিসি প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানের সাথে দেখা করে অপরাধী ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান। তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর চৌধুরী মো: জাকারিয়া বলেন, ‘তদন্ত কমটির কাজ চলছে। প্রশাসন যে সময় বেঁধে দিয়েছে, আশাকরি নিদিষ্টি সময়ের মধ্যেই তদন্ত কাজ শেষ করতে পারবো।’

হামলার শিকার শিক্ষক প্রফেসর হাছানাত আলী বলেন, ‘আমাকে আগামী ১০ তারিখে সাক্ষাতের জন্য ডেকেছে। আশাকরি সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যেমে ঐ ছাত্রের বিরুদ্ধে যথাপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করবে তদন্ত কমিটি।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: