বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে মুসলিমদের ওপর গাড়ি হামলা, আহত ৩  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের ৫% সুদে গৃহঋণের আবেদন অক্টোবরে  » «   ভারতে তিন তালাককে শাস্তিযোগ্য অপরাধ ঘোষণা  » «   স্কুলছাত্রীকে পিটিয়ে অজ্ঞান করলেন শিক্ষক  » «   বোমা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, আর ইয়েমেনে সেই বোমা ফেলছে সৌদি  » «   রাখঢাক রাখছেন না পর্নো তারকা ডানিয়েল স্টর্মি  » «   কাবা শরীফের ভেতরে প্রবেশের সুযোগ পেলেন ইমরান  » «   মিয়ানমারে নিলামে উঠছে সুচির ভাস্কর্য  » «   এক দিনেই মিলবে পাসপোর্ট  » «   ওসমানী বিমানবন্দরে বিমানে তল্লাশি : ৪০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার, চোরাচালানী আটক  » «   কেউ বলতে পারবে না, কারো গলা টিপে ধরেছি: প্রধানমন্ত্রী  » «   সৌদি থেকে ফিরলেন ৪২ নারী গৃহকর্মী  » «   সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টে আরও ২০ কোটি টাকা অনুদান দেবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ইয়েমেনে দুর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে ৫২ লাখ শিশু  » «   ‘২৩ হাজার পোস্টমর্টেম বনাম মানসিক সঙ্কট’  » «  

রমজানের কাজা রোজা যেভাবে আদায় করবেন



islambg_595152296ইসলাম ডেস্ক::অনেকেই শারিরীক অসুস্থতাসহ নানাবিধ শরয়ী কারণে রমজানের রোজা রাখতে পারেননি। এখন সময় সুযোগ ও সামর্থ্য হয়েছে ওই রোজাগুলোর কাজা আদায় করার। ফলে অনেকই জানতে চাচ্ছেন, তারা রমজানের কাজা রোজাগুলো কীভাবে আদায় করবেন।

রমজানের কাজা রোজা আদায়ের বিষয়ে সব ইমাম একমত যে, কোনো ব্যক্তি যে কয়দিনের রোজা রাখতে পারেনি সে কয়দিনের রোজা কাজা আদায় করবে। এভাবে রোজা কাজা আদায়ের বিষয়ে পবিত্র কোরআনে কারিমে ইরশাদ হয়েছে, ‘আর তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি অসুস্থ থাকবে অথবা সফরে থাকবে সে অন্য দিনগুলোতে এ সংখ্যা পূর্ণ করবে।’ -সূরা আল বাকারা: ১৮৫

ইসলামি শরিয়তের বিধান হলো, কাজা রোজা আদায়ের ক্ষেত্রে লাগাতারভাবে রোজা রাখা ফরজ নয়। ইচ্ছা করলে লাগাতারভাবে রোজা রাখা যায়; আবার ইচ্ছা করলে আলাদা আলাদাভাবেও রোজা রাখা যা।

আসলে রোজা পালনকারীর সামর্থ্য ও সাধ্যানুযায়ী বিষয়টি নির্ধারিত হবে। ইচ্ছে হলে প্রতি সপ্তাহে একদিন অথবা প্রতি মাসে একদিন রোজা রাখতে পারেন। উল্লেখিত পবিত্র কোরআনের আয়াতে কাজা রোজা পালনের ক্ষেত্রে লাগাতারভাবে রোজা রাখার কোনো শর্ত করা হয়নি। বরং শুধু যে কয়দিন রোজা ভঙ্গ করা হয়েছে সে সম সংখ্যক দিন রোজা রাখা ফরজ করা হয়েছে। -আল মাজমু: ৬/১৬৭ ও আল মুগনি: ৪/৪০৮

যদি লাগাতারভাবে কেউ রোজা রাখে সেটা উত্তম। তবে রোজার কাফফারার ক্ষেত্রে ধারাবাহিকভাবে ৬০ দিন রোজা রাখতে হবে। এখানে মাঝে রোজার বিরতি দিলে পুনরায় নতুন করে দিন গণনা শুরু করতে হবে এবং ৬০টি রোজা পূর্ণ করতে হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: