শুক্রবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সালমানের প্রথম ভালো লাগা কে?  » «   দুই যুবকের সঙ্গে ২০ বছর বয়সী তরুণী, এরপর…  » «   হাওয়া ভবন থেকে মানুষকে স্বস্তি দিতে ১৪ দলীয় জোট : খালিদ মাহমুদ  » «   ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে যা বললেন ওবায়দুল কাদের  » «   ভালবেসে বিয়ে, কিভাবে এতটা নির্মম হয় রনিরা?  » «   প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান ড. কামাল  » «   ভেরিফায়েড হলো মোস্তাফা জব্বারের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগ : রিমান্ডে সেই গৃহবধূ ফারিয়া  » «   সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা  » «   সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি!  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গৃহবধূ আটক  » «   ‘গর্বিত বাঙালির বিজয়ের দুই প্রতিচ্ছবি’  » «   ২৬ বছর পরে শাহরুখ!  » «   পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে পারে টুইটার  » «   সানি লিওন এবার ক্রিকেটার!  » «  

‘যৌন সম্পর্কের বিনিময়ে ত্রাণ’



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::হাইতি পশ্চিম ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জের স্বাধীন দ্বীপরাষ্ট্র। ক্যারিবীয় সাগরের হিস্পানিওলা দ্বীপের পশ্চিম এক-তৃতীয়াংশ এলাকা নিয়ে রাষ্ট্রটি গঠিত।

২০১০ সালে ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের এ দেশটি ভয়ংকর ভূমিকম্পের কবলে পড়ে। সেখানে বিভিন্ন দাতা সংস্থা সাহায্য ও ত্রাণ কর্মসূচি ঘোষণা করে।

যেখানে ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশনও ছিল। এবার এই সংস্থাটির সদস্যদের বিরুদ্ধে ত্রাণ দেওয়ার বিনিময়ে হাইতিতে ভয়ংকর ভূমিকম্পে সর্বস্ব হারানো নারীদের শয্যাসঙ্গী করার অভিযোগ উঠেছে। আর এই সংস্থাটিরই একজন সাবেক কর্মকর্তা এমন চাঞ্চল্যকর কেলেঙ্কারি ফাঁস করেছেন।

২০১০ সালের ভূমিকম্পের পর থেকেই হাইতিতে ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন ত্রাণসহ বিভিন্ন সহায়তা দিয়ে দুর্যোগগ্রস্তদের পূনর্বাসনে কাজ করে আসছে।

সম্প্রতি ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশনের সাবেক এক কর্মকর্তা জানান, হাইতিতে প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা ত্রাণ এবং অন্যান্য সহায়তার বদলে দুর্যোগ আক্রান্তদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করতেন। অনেক অসহায় নারীদের তাদের শয্যাসঙ্গী হতে বাধ্য করতেন ওই কর্মীরা। এমনটি টাকার বিনিময়েও তারা এটা কেরতে বাধ্য করতেন।

বৃটিশ রাজপুত্র হ্যারির বাগদত্তা হলিউড তারকা মেগান মার্কেল ২০১৭ পর্যন্ত এই দাতব্য প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডর ছিলেন। এই প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে এমন যৌনতার অভিযোগ ওঠায় অন্যদের মতো মেগান মার্কেলও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তবে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন ব্র্যান্ড এম্বাসেডর হয়েও মেগান কি জানতেন না এসব অপকর্মের কথা?

এদিকে, ওয়ার্ল্ড ভিশন গত বছর ব্রিটিশ সরকারের থেকে ১৭ মিলিয়ন পাউন্ড সাহায্য পেয়েছে। এই কেলেঙ্কারির অভিযোগ আসায় ব্রিটিশি সরকারের পক্ষ থেকেও তীব্র প্রতিক্রিয়া জানানো হচ্ছে।

ব্রিটিশ এমপিরা গত শনিবার এই ঘটনার সমালোচনা করে তদন্তের আহবান জানিয়েছেন। এদের মধ্যে বৃটিশ সাংসদ নাইজেল এভানস বলেছেন, ‘এটা অবাক করা বিষয়। অসহায় মানুষদের সঙ্গে কী করে একজন এমন আচরণ করতে পারে।’

অবশেষে ‘ওয়ার্ল্ড ভিশন’ শনিবার (১৭ মার্চ) আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে তারা বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে গ্রহণ করেছে।

ওয়ার্ল্ড ভিশনের পক্ষ থেকে আরো জানানো হয়, তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: