মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পর্নোগ্রাফির মামলা নিয়ে ভাবছেন না কুসুম শিকদার  » «   ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত আশরাফুল  » «   ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান পরিচয় দিয়ে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরী  » «   মানববন্ধনে রিজভীচাল নেই: সরকারি গোডাউনে ইঁদুর খেলা করছে  » «   নতুন বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন ময়ূরী  » «   ‘যৌন নিপীড়ন বন্ধে বাংলাদেশ জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে’  » «   মৌলভীবাজারে অং সান সুচির কুশপুত্তলিকা দাহ  » «   ইংলিশ মিডিয়ামে পড়ুয়াদের অভিভাবকের নাম অন্তর্ভুক্তি চেয়ে রিট  » «   পদ্মায় নিখোঁজ কনস্টেবলের মরদেহ ২৪ ঘন্টায় উদ্ধার হয়নি  » «   রাজধানীর পানিতে ঝুঁকিপূর্ণ জীবন  » «   উপজেলা পর্যায়ে চালু হচ্ছে ওএমএস  » «   ‘মধ্যরাতে আমাকে ঘিরে ধরে মাতালেরা, এরপর শুরু করে…’  » «   ভদ্র চালকদের জন্য পুরস্কার  » «   শাহজালালে সিগারেটসহ ৬ ভারতীয় নাগরিক আটক  » «   ৮ সন্তানকে আনতে পেরেছি আরেকজন জেলে  » «  

যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যা বগুড়ায় স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসি



বগুড়ায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার দায়ে আবদুস সালাম নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। আজ ১৫ জুন জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক বেগম মমতাজ পারভীন এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত আবদুস সালাম পলাতক রয়েছে। সে কাহালুরের দিপুইল পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত আবদুর রহিম ফকিরের ছেলে।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০১ সালে দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়ার দুগড়া গ্রামের ইব্রাহিম আলীর মেয়ে রিপা খাতুনকে (১৯) বিয়ে করে আবদুস সালাম। বিয়ের পর যৌতুক নিয়ে তাদের মধ্যে কলহ শুরু হয়। ২০০২ সালের ২৬ মার্চ রাত ২টার দিকে সালাম ছুরিকাঘাতে স্ত্রী রিপাকে হত্যা করে। পরদিন কাহালু থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার ও সালামকে গ্রেফতার করে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা ইব্রাহিম আলী সালামের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন। সালাম আদালত থেকে জামিন নিয়ে আত্মগোপন করে। ২০০২ সালের ২৭ মে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মহসিন আলী আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: