শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   ডিজিটাল পাঠ্যবই শিক্ষার্থী ও শিক্ষক উভয়ের জন্য সহায়ক হবে: শিক্ষামন্ত্রী  » «   কাল পবিত্র আশুরা, তাজিয়া মিছিলে ছুরি-তলোয়ার নিষিদ্ধ  » «   জেল থেকে বাসায় ফিরলেন নওয়াজ-মরিয়ম  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৫ কোটি ডলার সহায়তা  » «   রান্নাঘরের গ্রিল কেটে শাবির ছাত্রী হলে চুরি,নিরাপত্তাহীনতায় ছাত্রীরা  » «   এখনও জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ : যুক্তরাষ্ট্র  » «   মোদিকে ইমরানের চিঠি: পুনরায় শান্তি আলোচনা শুরুর তাগিদ  » «   খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতেই বিচার চলবে: আদালত  » «   ফুটপাতের খাবার বিক্রেতা থেকে সিঙ্গাপুরের রাষ্ট্রপতি!  » «   বিএনপি নেতাদের ওপর ক্ষুব্ধ তারেক রহমান!  » «   পায়রা বন্দরের নিরাপত্তায় পুলিশের বিশেষ আয়োজন  » «   সরকারের চাপের মুখে দেশত্যাগ করতে হয়েছে: এসকে সিনহা  » «   পুতিন আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে : রাশিয়ান মডেল  » «   বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ: ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত  » «  

যে কারণে ফোন রিস্টার্ট দিবেন!



নিউজ ডেস্ক::স্মার্টফোন এখন আমাদের সব সময়ের সঙ্গী। আমরা চেষ্টা করি প্রতি মুহূর্তে এটাকে যত্ন করে রাখার। কিন্তু অনেক সময় আমরা নিজের অজান্তেই ফোন নিয়ে অনেক তথ্যই জানিনা। যেমন এই ডিভাইসটিকে আমরা রিবুট (রিস্টার্ট) কিংবা রিফ্রেশ করি না। অথবা এগুলো করলে কি হয় তাও জানি না। এর ফলে নিজেই অজান্তেই আমরা ডিভাইসটির ক্ষতি করে চলেছি! চলুন জেনে নিই এই ব্যাপারেই।

আপনার ফোনকে সপ্তাহে অন্তত একবার হলেও কেন রিস্টার্ট করবেন, তার একাধিক কারণ রয়েছে। এবং সবগুলো কারণ ভালো। যেমন: ফোনের মেমোরি ধরে রাখা, ক্রাশ প্রতিরোধ, ফোন আরো ভালোভাবে চলমান রাখা এবং ব্যাটারির আয়ু বাড়ানো।

প্রতিদিন আপনার অ্যাপস ব্যবহারের কথায় আসা যাক। লস অ্যাঞ্জেলেসের একজন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ বব মোটামেডি বলেন, ‘বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় যে, অ্যাপস বন্ধ করা হলেও তা আসলে সত্যিকার অর্থে বন্ধ হয় না। কেননা তা দ্রুত আবার লোড হওয়ার জন্য বন্ধ করার পরও সক্রিয় থাকে।’

‘তাহলে এবার ভাবুন তো, প্রতিদিন আপনার কতগুলো অ্যাপস খোলা হয় এবং তা সক্রিয় থেকে ধীরে ধীরে ফোনের মেমোরি এবং ব্যাটারি শেষ করতে থাকে। এবং ভাবুন তো আপনাকে প্রতিদিনই এ কারণে ভাবতে হয় যে, ফোনের চার্জ দ্রুত শেষ হয়ে যাচ্ছে।’

ফোন রিস্টার্ট করলে খোলা অ্যাপসগুলো পুরোপুরি বন্ধ হয় এবং র‌্যাম বাঁচে অর্থাৎ ব্যাটারির শক্তিক্ষয় করছে এমন সবকিছু থেকে ফোন পরিত্রান পায়।

ফোন নানা কারণে ক্র্যাশ করতে পারে কিন্তু আপনি যদি ফোন রিস্টার্ট না করেন তাহলে তার প্রভাব এক্ষেত্রে স্পষ্টভাবেই পড়তে পারে। প্রতিটি আপডেট, পেজ লোড এবং অ্যাপ ইনস্টল অথবা ডিলেটের সময় ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের কোড যুক্ত হয় অথবা মুছে।

‘কখনো কখনো ইনস্টল অথবা আনইনস্টল করার পরে এসবের বেমানান বা অসঙ্গত অংশ থাকে। ফোন রিস্টার্ট করা হলে এগুলোর অধিকাংশই নিষ্কাশন হয় এবং ফোন ভালো কাজ করে।’- বলেন মোটামেডি।

ব্যাটারি সর্বদা চার্জ করার জন্য দ্রুত শেষ হওয়ার ক্ষেত্রে দায়ী কি। ‘আপনি যদি ফোনের ব্যাটারি চার্জ সম্পূর্ণভাবে শেষ না করেন, তাহলে তা সম্পূর্ণভাবে রিচার্জও হবে না এবং ব্যাটারি লাইফ কম হবে।’ – মোটামেডি বলেন।

এজন্য বলা হয়, আপনি আপনার ফোনের ব্যাটারি চার্জ শূন্য শতাংশে নামিয়ে নিয়ে আনুন এবং তারপর ১০০ শতাংশ চার্জ করুন।’ ফোনের মেমোরি বাঁচাতে এবং ক্র্যাশ থেকে মুক্ত থাকতে, সপ্তাহে অন্তত একবার ফোন রিস্টার্ট করে নিন।

তথ্যসূত্র: রিডার্স ডাইজেস্ট

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: