বুধবার, ১৫ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘সৎ বাবার ধর্ষণে’ ১২ বছরের মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা!  » «   ‘যুক্তরাষ্ট্রের সব ইলেকট্রনিক পণ্য বর্জন করবে তুরস্ক’  » «   রাইফার পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের রুল  » «   ভারতে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে আল-কায়েদাঃ জাতিসংঘ  » «   সোশ্যাল মিডিয়ার আপত্তিকর কন্টেন্ট বিশ্লেষণে পৃথক ইউনিট  » «   যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরো বেশি তুলা আমদানি করতে চায় বাংলাদেশ  » «   গজনিতে তালেবান সংঘর্ষ, নিহত বেড়ে ৩০০  » «   আবারও উত্তপ্ত ভারত-চীন, লাদাখ সীমান্তে মুখোমুখি সেনারা  » «   ঈদুল আজহার প্রধান জামাত জাতীয় ঈদগাহে সকাল ৮টায়  » «   ৩ হাজার ৮৮ কোটি ব্যয়ে ৯ প্রকল্পের অনুমোদন  » «   আরও এক মামলায় খালেদার জামিন  » «   ১৫ আগস্টে নিরাপত্তা নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই  » «   মোদির জন্য কনে দেখতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প!  » «   রাজু হত্যাকান্ড: রকিব,দেলোয়ারসহ ২৩ জনকে আসামী করে মামলা  » «   ডিভোর্সের নোটিস পেয়ে শ্বশুরবাড়িতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ স্বামীর  » «  

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে চীনের কড়া প্রতিক্রিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিতে সহায়তার অভিযোগে- রাশিয়া আর চীনের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বেইজিং। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বেইজিং মার্কিন অর্থ বিভাগের আরোপিত নিষেধাজ্ঞাকে ‘ভুল পদক্ষেপ’ আখ্যা দিয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিতে সহায়তা দেয়ার অভিযোগ তুলে রাশিয়া ও চীনে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। ওই দুই দেশের ১০ কোম্পানি এবং ৬ ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন অর্থ বিভাগ।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, অবিলম্বে যুক্তরাষ্ট্রকে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

সিএনএন-এর খবরে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিতে বহিঃবিশ্বের সহায়তা রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে মার্কিন অর্থ বিভাগ।

বেইজিং বলছে, ওয়াশিংটন চীনা কোম্পানিগুলোকে শাস্তি দেয়ার যে ‘ভুল পদক্ষেপ নিয়েছে’ তা যেন অবিলম্বে সংশোধন করে। তবে এ ব্যাপারে রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া এখনো পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার মার্কিন অর্থ বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন করে আরোপিত ওই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়া ব্যক্তি ও কোম্পানিগুলোর সঙ্গে কোনও মার্কিন ব্যক্তি বা কোম্পানি আর কোনও সম্পর্ক রাখবে না। এর ফলে উত্তর কোরিয়ার ওপর চাপ আরো বাড়বে। চীন ও রাশিয়ার বিরুদ্ধে এমন সময় এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো যখন চলতি মাসের গোড়ার দিকে পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের একটি প্রস্তাবের পক্ষে চীন ও রাশিয়া ভোট দিয়েছিল।

উ. কোরিয়ার ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার বিপরীতে মার্কিন প্রস্তাবে সমর্থন দিয়ে জাতিসংঘের নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর থেকে পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটন উত্তেজনা নতুন মাত্রা পায়। শুরু হয় দু্‌ই দেশের শীর্ষ নেতার পারস্পরিক হুমকিধামকি। এক পর্যায়ে উ. কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের গুয়ামের মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরিকল্পনা ঘোষণা করে। জবাবে দেশটিকে ‘ধূলায় মিশিয়ে দেওয়া’র হুমকি দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তবে এক পর্যায়ে দুই পক্ষই আপাতত কেউ কাউকে হামলা না করার ইঙ্গিত দেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: