রবিবার, ২০ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাজকীয় বিয়েতে রাজকীয় সাজে ছিলেন প্রিয়াঙ্কাও  » «   যে কারণে বাদ ইমরুল-তাসকিন-সোহান  » «   সাইবার অপরাধ : তাৎক্ষণিক বিচার চান অধিকাংশ ভুক্তভোগী  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘কাদেরের বক্তব্য একতরফা নির্বাচনেরই ইঙ্গিতবহ’  » «   রাজীবের হাত বিচ্ছিন্ন : দুই বাসচালকের জামিন নামঞ্জুর  » «   এভারেস্টের চূড়ায় ১৬ বছরের কিশোরী!  » «   ৫ মাদকসেবীর কারাদণ্ড  » «   মির্জাপুরে ‌‌‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছিনতাইকারী নিহত  » «   রেলের টিকিট কালো বাজারে, জেল জরিমানা  » «   চাঞ্চল্যকর সীমা হত্যার আসামি গ্রেফতার  » «   বড়লেখায় সোনাই নদীতে ধরা পড়ল ৪ ফুট লম্বা রাঘব চিতল  » «   ‘বন্দুকযুদ্ধে’ গালকাটা বাবু নিহত  » «   মৌলভীবাজারে শাশুড়িকে কুপিয়ে খুন করেছে জামাতা  » «   আজান সম্প্রচার না করলে লাইসেন্স বাতিলের হুঁশিয়ারি  » «   বিরল রোগে আক্রান্তমুক্তামণির গল্পটা হয়তো শেষের দিকে!  » «  

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে চীনের কড়া প্রতিক্রিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক::উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিতে সহায়তার অভিযোগে- রাশিয়া আর চীনের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বেইজিং। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বেইজিং মার্কিন অর্থ বিভাগের আরোপিত নিষেধাজ্ঞাকে ‘ভুল পদক্ষেপ’ আখ্যা দিয়েছে।

মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিতে সহায়তা দেয়ার অভিযোগ তুলে রাশিয়া ও চীনে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। ওই দুই দেশের ১০ কোম্পানি এবং ৬ ব্যক্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন অর্থ বিভাগ।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, অবিলম্বে যুক্তরাষ্ট্রকে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছে তারা।

সিএনএন-এর খবরে বলা হয়েছে, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিতে বহিঃবিশ্বের সহায়তা রুখতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে মার্কিন অর্থ বিভাগ।

বেইজিং বলছে, ওয়াশিংটন চীনা কোম্পানিগুলোকে শাস্তি দেয়ার যে ‘ভুল পদক্ষেপ নিয়েছে’ তা যেন অবিলম্বে সংশোধন করে। তবে এ ব্যাপারে রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া এখনো পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার মার্কিন অর্থ বিভাগের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন করে আরোপিত ওই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়া ব্যক্তি ও কোম্পানিগুলোর সঙ্গে কোনও মার্কিন ব্যক্তি বা কোম্পানি আর কোনও সম্পর্ক রাখবে না। এর ফলে উত্তর কোরিয়ার ওপর চাপ আরো বাড়বে। চীন ও রাশিয়ার বিরুদ্ধে এমন সময় এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো যখন চলতি মাসের গোড়ার দিকে পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের একটি প্রস্তাবের পক্ষে চীন ও রাশিয়া ভোট দিয়েছিল।

উ. কোরিয়ার ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষার বিপরীতে মার্কিন প্রস্তাবে সমর্থন দিয়ে জাতিসংঘের নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর থেকে পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটন উত্তেজনা নতুন মাত্রা পায়। শুরু হয় দু্‌ই দেশের শীর্ষ নেতার পারস্পরিক হুমকিধামকি। এক পর্যায়ে উ. কোরিয়া যুক্তরাষ্ট্রের গুয়ামের মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরিকল্পনা ঘোষণা করে। জবাবে দেশটিকে ‘ধূলায় মিশিয়ে দেওয়া’র হুমকি দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তবে এক পর্যায়ে দুই পক্ষই আপাতত কেউ কাউকে হামলা না করার ইঙ্গিত দেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: