শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «   সহিংসতার ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিইসির নির্দেশ  » «   ‘ইডিয়ট’ লিখে গুগলে সার্চ দিলে কেনো আসে ট্রাম্পের ছবি?  » «   বিশ্ব ভ্রমণ করবে বাংলাদেশের প্রথম বিদ্যুৎচালিত গাড়ি  » «   খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি আরব ছাড়পত্র পাবে না: নিক্কি হ্যালি  » «   গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজ খালেদা ও হিরো আলম  » «   আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে  » «   ফোনালাপ ফাঁস: খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ  » «   নির্বাচনে এজেন্ট পাওয়া নিয়ে চিন্তায় বিএনপি  » «  

যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে হুয়াওয়ের নির্বাহী কানাডায় গ্রেফতার



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অনুরোধে চীনের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রতিষ্ঠাতা রেন ঝেংফেইয়ের মেয়ে মেং ওয়ানঝুকে গ্রেফতার করেছে কানাডার কর্তৃপক্ষ।কানাডার বিচার বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, ১ ডিসেম্বর বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আগামীকাল শুক্রবার তার জামিনের শুনানি হতে পারে। মেং হুয়াওয়ের প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা ও ডেপুটি চেয়ারম্যান।

কানাডার বিচার বিভাগ জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র মেং ওয়ানঝুকে হস্তান্তরের জন্য অনুরোধ করেছে।কানাডার বিচার বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেছেন, মিস মেং একটি প্রকাশনা বাতিলের অনুরোধ করেছেন এবং আদালতের নির্দেশ অমান্য করেছেন।

মেং গ্রেফতার হওয়ার পর হুয়াওয়ে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘নির্বাহী এ কর্মকর্তা কোনো ধরনের ভুল কাজ করেছেন কিনা সে ব্যাপারে তারা অবগত নন এবং সব ধরনের আইন মেনে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে একেবারে নগণ্য তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে। মেংয়ের কোনো ভুল কাজের ব্যাপারে কোম্পানির ধারণা নেই।’

হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ বিবৃতিতে আরও বলা হয়, তারা জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সব আইনকানুন মেনে চলে। তারা মনে করে, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার বিচার বিভাগ সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারবে।এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যমে বলা হয়, ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রণেতারা হুয়াওয়েকে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে অভিযোগ করেছেন এবং হুয়াওয়ে চীন সরকারের নজরদারির যন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে বলে যুক্তি দিয়েছেন।চীন কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডাকে দ্রুত ভুল শোধরাতে এবং মিস মেং ওয়ানঝুর ব্যক্তিগত স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে আহ্বান জানিয়েছে।যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: