রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

যানজট নিরসনে ঢাকায় বৃত্তাকার রেলপথ : রেলমন্ত্রী



নিউজ ডেস্ক:: রাজধানীর যানজট নিরসনে ঢাকা শহরের চারদিকে বৃত্তাকার রেলপথ নির্মাণের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক।

বৃহস্পতিবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য এম আবদুল লতিফের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, এ প্রকল্পের সম্ভাব্যতা সমীক্ষা প্রস্তাব গত ২৭ ডিসেম্বরে পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদিত হয়েছে। সমীক্ষা প্রকল্পের আওতায় পরামর্শক নিয়োগের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সমীক্ষা কার্যক্রম সম্পন্ন করে বৃত্তাকার রেলপথ নির্মাণের লক্ষ্যে বিনিয়োগ প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে রাজধানী ঢাকার যানজট নিরসনে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

এদিকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের বেগম শিরিন নাঈমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ঢাকা থেকে সরাসরি কক্সবাজার পর্যন্ত রেলপথ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। মিয়ানমার সীমান্তের নিকটবর্তী ঘুনধুম পর্যন্ত লাইন যাবে। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দোহাজারী পর্যন্ত রেলপথ বিদ্যমান আছে। দোহাজারী থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেলপথ সম্প্রসারণের লক্ষ্যে রামু হয়ে কক্সবাজার এবং রামু থেকে ঘুনধুম পর্যন্ত সিঙ্গেল লাইন ডুয়েল গেজ ট্রাক নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। বর্তমানে এ প্রকল্পের আওতায় জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে। অনুমোদিত রিসেটেলমেন্ট প্ল্যান অনুযায়ী পুনর্বাসন কাজের জন্য বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) নিয়োগ হয়েছে। গত সেপ্টেম্বরে প্রকল্প পরামর্শক ও ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। প্রকল্পটি প্রধানমন্ত্রীর ‘ফাস্ট ট্রাক’ প্রকল্পের তালিকাভুক্ত রয়েছে।

রেলমন্ত্রী বলেন, দোহাজারী থেকে রামু হয়ে কক্সবাজার পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ের কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে বাস্তবায়নের সময়সীমা নির্ধারিত আছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: