বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শুভ জন্মদিন আইয়ুব বাচ্চু  » «   স্পেন আওয়ামীলীগের জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর শাহাদতবার্ষিকী পালন  » «   রোনালদো ছাড়া রিয়ালকে পাত্তাই দিলো না অ্যাটলেটিকো  » «   আজ ভুটানকে হারালেই ফাইনালে বাংলাদেশ  » «   নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য অজুহাত খোঁজে আমেরিকা: রাশিয়া  » «   প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ  » «   সাইফ-কন্যা সারার রূপে ঘায়েল অনেকেই  » «   একনেকে ৩ হাজার ৮৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ৯ প্রকল্প অনুমোদন  » «   শিক্ষার্থীদের আইডিকার্ডে থাকবে ইউনিক নম্বর  » «   ঈদ উপলক্ষে জালনোট ধরতে ব্যাংকগুলোকে ১১ নির্দেশনা  » «   গণঅভ্যুত্থানঃ লিবিয়ায় ৪৫ জনের মৃত্যুদণ্ড  » «   চার রিকশাকে চাপা দিয়ে পালালো কার চালক  » «   ১৫ আগস্ট কেন ভারতের স্বাধীনতা দিবস?  » «   খালেদার জন্মদিনে ফখরুল‘প্রাণ বাজি রেখে লড়াই করতে হবে’  » «   রাজধানীতে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ২ শ্রমিকের মৃত্যু  » «  

যাদেরকে কখনোই টাকা ধার দেবেন না



লাইফস্টাইল ডেস্ক::টাকা ধার নেয়া-দেয়া খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। আমরা প্রয়োজনের সময় একে-অপরের থেকে টাকা ধার করে থাকি। কিন্তু কিছু মানুষ আছেন, যাদেরকে কখনোই টাকা ধার দিতে নেই। কারণ তাদের টাকা ধার দিলে পোহাতে হয় নানান ভোগান্তি।

আসুন জেনে নেই এমন ব্যক্তিদের সম্পর্কে যাদেরকে টাকা ধার দেয়া উচিত না:

মিথ্যাবাদী লোক: যারা ক্রমাগত মিথ্যা বলেন, তাদেরকে ভুলেও টাকা দেবেন না। কেননা যে প্রয়োজনটির কথা তিনি বা বলছেন বা যে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন, সেটাও মিথ্যা হবার সম্ভাবনা শতভাগ।

অন্যের আশায় থাকা ব্যক্তি: কিছু মানুষ এমন আছে যারা কখনোই নিজের পকেট থেকে খরচ করেন না। বেড়াতে যান অন্যের টাকায়, রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে অন্য কেউ বিল দেবে বলে অপেক্ষা করেন ইত্যাদি আচরণ যাদের মাঝে আছে তাদেরকে টাকা ধার না দেয়াই উত্তম।

কথা দিয়ে কথা না রাখা: যারা কথা দিয়ে কথা রাখে না তাদের ধার দেবার অর্থ টাকা দিয়ে ভোগান্তি ডেকে আনা।

একাধিক পাওনাদার: যার পেছনে একাধিক পাওনাদারের লম্বা লাইন, তাকে ধার না দেয়াই উত্তম।

ভরসা করা যায় না: আত্মীয়-স্বজনকে টাকা ধার দিলে প্রায়ই অবস্থাটা বিব্রতকর হয়ে ওঠে। কেউ আত্মীয় বলেই চাওয়া মাত্র টাকা ধার দিতে হবে, বিষয়টি সেটা নয়। নিরপেক্ষ ভাবেই খতিয়ে দেখুন যে আসলে ফিরে পাবার সম্ভাবনা আছে কিনা।

মাদকাসক্ত: মাদকাসক্ত ব্যক্তি ধার করেনই নেশার জন্য। যতই ঘনিষ্ঠ মানুষ হোক, এদেরকে ধার দেয়ার অর্থ আসক্তিতে সহায়তা করা। এদের কখনো ধার দেবেন না।

সাধ ও সাধ্যের অমিল: নিজের সাধ্যের অনেক উপরে জীবন যাপন করেন। এইসব মানুষেরা মূলত টাকা ধার করে করে নিজেদের সেই লাইফস্টাইল রক্ষা করেন, যার আসলে কোন প্রয়োজন নেই। একজন থেকে ধার করে দেখায় আরেকজনের ধার শোধ করছেন, তারপর আবার ধার করেন, এভাবেই চলতে থাকে বেসামাল জীবন যাত্রা।

টাকা ধার চাইলে হঠাৎ কাউকে না বলাটা খুবই কঠিন। তবে টাকা ধার দেয়ার আগে অবশ্যই ভাবা উচিত যাকে টাকা ধার দিচ্ছেন তিনি টাকা ফেরত দেবেন কিনা। না দিলে আপনার কি পরিমাণ ভোগান্তি হতে পারে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: