বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ধাপে ধাপে জরিমানা নেবে ট্রাফিক পুলিশ  » «   আগামীকাল থেকে আলীয়া মাদ্রাসা মাঠে ওয়াজ মাহফিল শুরু  » «   ঘরের ছেলে ঘরে ফিরেছে: ইনাম চৌধুরী প্রসঙ্গে মিসবাহ সিরাজ  » «   উল্টো আ’লীগ থেকে বিএনপিতে আসার অবস্থা: মির্জা ফখরুল  » «   এবার তাজমন্দিরে রূপান্তরিত হচ্ছে আগ্রার তাজমহল  » «   বান্দরকে লাই দিলে গাছের মাথায় ওঠে : রাঙ্গাকে ফিরোজ রশীদ  » «   আবরার হত্যায় ২৫ জনকে আসামি করে চার্জশিট জমা  » «   ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সব ঘরে বিদ্যুৎ: প্রধানমন্ত্রী  » «   সরকারবিরোধী হলে ৩০ ডিসেম্বরের পরই রাস্তায় নামতাম : ভিপি নুর  » «   আজ ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সিধুকে নিয়ে করা ইমরান খানের মন্তব্য ভাইরাল  » «   পায়ের ওপর দিয়ে বাস, মৃত্যুর কাছে হার মানলেন সেই নারী  » «   পুরোনো বগিতে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলছিল উদয়ন  » «   ট্রেন দুর্ঘটনা: লাশ হয়ে বাড়ি ফিরছেন চাঁদপুরের দম্পতি  » «   ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের পরিচয় মিলেছে  » «  

যাত্রাবাড়িতে ৩ ভুয়া ডাক্তার গ্রেফতার, হাসপাতাল সিলগালা



নিউজ ডেস্ক:: দুই রোগীর জরায়ুর অপারেশন করে ফেলে দেয়ার ঘটনায় অভিযান চালানোর পর দেখা গেল অভিযুক্ত হাসপাতালের ২ চিকিৎসকই ভুয়া। ডাক্তারী কোনো ডিগ্রী না থাকার পরও ডাক্তার পরিচয় দিয়ে অনেক দিন ধরে অপারেশন করে আসছিলেন তারা।

বুধবার রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ি দোলাইরপাড় কিউর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টার নামক এক হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে এর ২ ভুয়া ডাক্তারসহ ৩জনকে আটক করেছে র‌্যাব ১০ এর ভ্রাম্যমান আদালত।

ডাক্তার না হয়েও অপারেশন করা অপরাধে তাদেরকে ৮ লাখ টাকা জরিমানাসহ ২ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়। এছাড়াও সিলগালা করে দেয়া হয় হাসপাতালটি। এছাড়াও হাসপাতালটির মালিক রাহিমা আক্তারকে ৪ লাখ টাকা জরিমানাসহ ২ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

গতকাল রাত ১টার দিকে র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম এ নির্দেশ দেন। এসময় ডিজি হেলথ এর পরিচালক ডাঃ. মো. শফিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম জানান, কিউর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের মালিক রাহিমা আক্তার এসএসসি পাশ করে ২০০৮ সাল থেকে ১৩ বছর নিজেকে গাইনী ডাক্তার পরিচয় দিয়ে এ হাসপাতাল পরিচালনা করে আসছিলেন।

ভুয়া ডাক্তার এস এম আল মাহমুদ নিজেকে এমবিবিস ও এফসিপিএস ডিএমসিএইচ পরিচয় দিয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। এছাড়া সার্জারী ডাক্তার না হয়েও ডাক্তার নাজমুল হুদা কোনো সার্জারী ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই একজন রোগীর জরায়ুর অপারেশন করার অপরাধে তাকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সারোয়ার আলম।

হাসপাতালটি সিলগালা করে দেয়া প্রসঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সারোয়ার আলম বলেন, ২ বছর আগেও এ হাসপাতালের জরিমানা করা হয়েছিল।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: