বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
৪০ ঘণ্টা পর মানারত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দুই নারী জঙ্গির আত্মসমর্পণ  » «   পূজায় বিজিবিকে মিষ্টি পাঠিয়েছে বিএসএফ  » «   উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে ‘ট্রেনে কাটা’ পড়ে মৃত্যু  » «   আত্মসমর্পণের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছে না জঙ্গিরা  » «   শিশু জয়নাব ধর্ষণ-হত্যা : ইমরানের ফাঁসি কার্যকর  » «   ‘বেত ও বেলুন দিয়ে মারে,পরে নখে সুই ঢুকিয়ে মাথার চুল কেটে দেয়’  » «   বউকে বৃষ্টিতে ফেলে ছাতা মাথায় ট্রাম্প!  » «   ঋণের পরিবর্তে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব ব্যাংক ম্যানেজারের,অতঃপর..  » «   খাশোগি নিখোঁজ, বেনিফিট অব ডাউটের সুবিধা পাচ্ছে সৌদি  » «   নিরাপদ খাদ্যে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি: ক্যাব সভাপতি  » «   শাবিপ্রবি’র ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ  » «   আত্মসমর্পণ না করলে ‘নিলুফা ভিলায়’ অভিযান আজ  » «   রিয়াদ পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   খাশোগি হত্যা বনাম সৌদি যুবরাজের কালো অধ্যায়  » «   অপারেশন ‘গর্ডিয়ান নট’ সমাপ্ত, দুই জঙ্গির মরদেহ উদ্ধার  » «  

মৌসুমী হামিদের প্রথম প্রেম



4বিনোদন ডেস্ক: আমি তখন খুলনা আজম খান কমার্স কলেজে পড়ি। ছেলেটির সঙ্গে একই ব্যাচে কোচিংয়ে পড়তাম। ছেলেটির নাম না বলি। টানা চার বছর আমাদের প্রেম ছিল।
কোচিংয়ে পড়ার সময় প্রথম প্রথম আমাদের দুজনের মধ্যে চরম শত্রুতা ছিল। কথা বলা তো দূরের কথা, সামনা সামনি পড়ে গেলে দুজনই উল্টো দিকে হাঁটা দিতাম। এভাবে চলতে চলতে তিন বছরের মাথায় শত্রুতা থেকে দুজনের বন্ধুত্ব হয়ে গেল। আমরা একে অপরকে ‘তুই’ সম্বোধন করতাম। আমরা দুজনই নিজেদের ব্যক্তিগত সব বিষয়ই একে অপরের সঙ্গে শেয়ার করতাম। কীভাবে জানি, একসময় প্রেম হয়ে গেল।
মফস্বল শহর। সব সময় আমরা একসঙ্গে ঘুরতে পারতাম না। দু-তিন মাস পরপর আমরা একসঙ্গে বের হতাম। রিকশায় চুপি চুপি সারা শহর ঘুরে বেড়াতাম। ঠিক চার বছরের মাথায় আমাদের প্রেম ভেঙে যায়। কিন্তু বন্ধুত্ব নষ্ট হয়নি। ছেলেটি এখন এমবিএ পড়ছে। এখনো খুলনায় গেলে দেখা হয়, আড্ডা হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: