বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা আজ  » «   অপহরণের পর বিএনপি নেতার গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার  » «   প্রাথমিক শিক্ষকদের সমাপনী ও বার্ষিক পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা  » «   পুলিশের ‘জামাই’ বলে কথা!  » «   জাস্টিন ট্রুডোকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিনন্দন  » «   ফের বাড়ছে পেঁয়াজের দাম!  » «   সুনামগঞ্জে চিকিৎসকের ওপর হামলায় চেয়ারম্যান গ্রেফতার  » «   পদ হারিয়ে যা বললেন ওমর ফারুক চৌধুরী  » «   ২৯ রোহিঙ্গা মিয়ানমারে ফিরেছে, জানেই না বাংলাদেশ  » «   একনেকে ৫ প্রকল্পের অনুমোদন, ব্যয় হবে ৪৬৩৬ কোটি  » «   ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সিলেটের এসপির সর্তকতা  » «   বায়তুল মোকাররমে হেফাজতের বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু  » «   হবিগঞ্জে স্ত্রীকে গলাকেটে হত্যা, স্বামী আটক  » «   পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেবে তুরস্ক  » «   এমপিও নিয়ে দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর মতবিনিময়  » «  

মৌলভীবাজারে এক গাছে ১০ ধরনের লেবু চাষ!



নিউজ ডেস্ক:: আম গাছে জাম কিংবা কাঠাল গাছে বেল ধরাতে না পারলেও একই গাছে সমজাতীয় বিভিন্ন ধরনের ফল চাষ করে সফল হয়েছেন অনেক কৃষক।তেমনি একটি ঘটনা এবার মৌলভীবাজারে। একই গাছে ১০ ধরনের লেবু চাষ করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন মঞ্জু বাবু। গাছে কলম পদ্ধতির সাহায্যে এটা অসম্ভব করেছেন মঞ্জু।মঞ্জু বাবুর পুরো নাম মনরঞ্জন কুরমি। তার বাড়ি শ্রীমঙ্গল উপজেলার ফুলছড়া চা বাগানে। বর্তমানে আছেন মৌলভীবাজার পৌর শহরের পিটিআই এলাকায়।

সরেজমিন মঞ্জু বাবুর বাগানে গেলে দেখা যায়, তিনি একটি কাটা লেবুর গাছে কলম করে আদা লেবু, কাগজি লেবু, ঝারা লেবু, মাল্টা লেবু ও কমলা লেবুসহ বিভিন্ন ধরনের লেবুর চাষ করেছেন। একই ভাবে মঞ্জু বাবু পেয়ারা গাছেও কলম করে বিভিন্ন ধরনের পেয়ারাও চাষ করেছেন। বর্তমানে সেখানে ভাল ফলন এসেছে। খবর শুনে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা ছুটে আসছেন তার বাগান দেখতে। মৌলভীবাজারের কৃষি অফিসাররাও এসে নিয়মিত মঞ্জু বাবুর বাগান দেখছেন এবং তাকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিচ্ছেন।

একই গাছে ১০ ধরণের লেবুর ফলন আনতে সক্ষম মঞ্জু বাবু বলেন, প্রযুক্তি ব্যবহার করে আধুনিক কৃষি কাজ করা আমার প্রধান উদ্দেশ্য। প্রযুক্তি ও প্রশিক্ষণকে কাজে লাগিয়ে আমি আজ সফল হতে পেরেছি। অনেকে ভাবছেন আমার হাতে জাদু আছে আসলে তা নয়। আমি কলম পদ্ধতি ব্যবহার করে একই গাছে ১০ রকমের লেবু চাষে সফল হয়েছি। মঞ্জু বলেন, এলাকার মাটির উর্বরতা ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকার পাশাপাশি ভালো চারা, জৈব সার, সেচ ও নিয়মিত পরিচর্যা করায় আমার এ সাফল্য এসেছে।

মঞ্জু আরো বলেন, এটা আমার শখে পরিণত হয়েছে। আমি চাই সারা দেশে এই পদ্ধতি ছড়িয়ে পড়ুক। তিনি যাথাযথ প্রশিক্ষণ নিয়ে যে কেউ এ বিষয়ে সফল হতে পারবে বলে মন্তব্য করেন। উন্নত ধরনের সরকারি প্রশিক্ষণ ও সহযোগীতা পেলে আরোও এগিয়ে যেতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন মঞ্জু।চেষ্টা, পরিশ্রম আর একাগ্রতার মাধ্যমে ভাগ্য বদলের এক সফল উদাহরণ মঞ্জু বাবু।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: