বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ছাত্রীর সঙ্গে শিক্ষকের কুকীর্তি ফাঁস!  » «   মায়ের পছন্দ ব্রাজিল, সমর্থক জয়ও  » «   পুলিশ কমিশনার‘ঈদগাহে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়’  » «   ‘আমিও প্রেগনেন্ট হয়েছি, অনেকবার অ্যাবরশনও করিয়েছি’  » «   গুগল পেজ ইরর দেখায় কেন?  » «   রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, সিইসি কে কোথায় ঈদ করছেন  » «   ইসি সচিব : তিন সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা  » «   বিপজ্জনক রূপ নিয়েছে মনু ও ধলাই  » «   বিশ্বকাপের একদিন আগে বরখাস্ত স্পেন কোচ!  » «   ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ৭ কি.মি. যানজট  » «   শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে আলিয়ার সোজা কথা!  » «   যে কারণে ইউনাইটেড হাসপাতালে যেতে চান খালেদা  » «   খালেদা চিকিৎসা চান নাকি রাজনীতি করছেন : সেতুমন্ত্রী  » «   যানজটের কথা শুনিনি, কেউ অভিযোগও করেননি  » «   ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান ‘বকশিসের নামে নীরব চাঁদাবাজি নেই’  » «  

মোবাইলে মেয়েদের হুমকি দিস? এরপর..



নিউজ ডেস্ক::দ্রুতগামী মোটর সাইকেলটি হঠাৎ আমাদের সামনে দাঁড়িয়ে পড়ল। মোটর সাইকেলে থাকা একজন আমাদের বাড়ি কোথায় জিজ্ঞাসা করল। উত্তর না দিতেই আরেক জন উচ্চ কন্ঠে বলে উঠলো, মোবাইলে মেয়েদের হুমকি দিস? আমরা পুলিশের লোক। দুই জনেরই ফোন দে। কললিস্ট চেক করতে হবে। মোটর সাইকেলে আসা দুইজনের কাছেই রিভলবার ও হ্যান্ডক্যাপ থাকায় ভয়ে আমরা ফোন দুটি তাদেরকে দিয়ে দেই। ফোন হাতে নিয়েই বলে আমাদের সাথে চল, মেয়ের বাড়ি যেতে হবে। এরপর মোটরসাইকেল স্ট্রার্ট দিয়ে পুলিশ পরিচয় দেয়া ওই ব্যক্তিরা দ্রুত গতিতে চলে যায়। কথাগুলো বলেন, অভিনব কায়দায় মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের শিকার হওয়া দুই বন্ধু কলেজ শিক্ষার্থী সজীব দাস(১৮) ও শান্ত বিশ্বাস(১৮)। সজিব দাস কলেজ পাড়ার রমেশ দাসের ছেলে এবং শান্ত বিশ্বাস নিশ্চিন্তপুরে মনোরঞ্জন বিশ্বাসের ছেলে। তারা দু’জনেই মাহতাব উদ্দীন ডিগ্রী কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্র। ছিনতাইয়ের এই ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়া গ্রামে।

সজীব ও শান্ত জানায় বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভার আড়পাড়ার একটি রাস্তা দিয়ে প্রাইভেট পড়ে বাইসাইকেলে ফিরে আসার সময় একটি মোটর সাইকেল তাদের গতিরোধ করে। মোটর সাইকেলে থাকা দুইজন পুলিশ পরিচয়ে হুমকি ধামকি দিয়ে আমাদের কাছে থাকা দু’টি এনড্রয়েড ফোন নিয়ে নেয়। পরে তাদের সাথে মেয়ের বাড়িতে যেতে হবে বলে মটর সাইকেল স্ট্রার্ট দিয়ে দ্রুতগতিতে সটকে পড়ে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ মিজানুর রহমান খান জানান, এ ব্যাপারে আমার কাছে এখনো কেউ অভিযোগ করে নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: