সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দ্বিতীয় দিনের সাক্ষাৎকার চলছে: ভিডিও কনফারেন্সে আছেন তারেক রহমান  » «   নির্বাচনে রোহিঙ্গাদের সম্পৃক্ততা প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির নির্দেশনা  » «   চিকিৎসা বিষয়ে খালেদার রিটের আদেশ আজ  » «   তারেক রহমান মনোনয়ন প্রত্যাশীদের কাছে যা জানতে চাচ্ছেন  » «   চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «  

মোদির জন্য কনে দেখতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: নেপালকে বলছেন নিপ্পল।ভুটানকে বলছেন বাটন। ভারতের সীমান্তবর্তী ওই দুই দেশের নাম নাকি কখনও শোনেননি আমেরিকায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।নরেন্দ্র মোদি আমেরিকায় যাওয়ার আগে হোয়াইট হাউসের কর্মীরা যখন ট্রাম্পকে ভারত ও তার প্রতিবেশী দেশগুলো সম্পর্কে কয়েকটি জরুরি তথ্য জানিয়ে দিচ্ছিলেন, তখনই বোঝা যায়, ট্রাম্প কখনও নেপাল বা ভুটানের নাম শোনেননি।

মোদির কথা শুনে তিনি জিজ্ঞাসা করেন, উনি স্ত্রীকে নিয়ে আসছেন না কেন? হোয়াইট হাউসের কর্মীরা বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘদিন স্ত্রীর যোগাযোগ নেই। সেই শুনে ট্রাম্প হেসে বলেন, তাই নাকি? আমরা তো উনার জন্য কনে জোগাড় করে দিতে পারি।

পলিটিকো নামে এক বিদেশী পত্রিকায় সম্প্রতি ছেপেছে, বিদেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনার সময়ে ট্রাম্প কতবার কূটনৈতিক ভুলভ্রান্তি করেছেন, ভুল উচ্চারণ করেছেন, টেলিফোনে কথা বলার সময় শিষ্টতা বজায় রাখেননি ইত্যাদি। তাতেই জানা যাচ্ছে, তিনি মোদি সম্পর্কে কী বলেছিলেন।

ট্রাম্প নিয়ম-কানুনের ধার ধারেন না বলে অনেক সময় আমেরিকার প্রশাসনকে অস্বস্তিতে পড়তে হয় ঠিকই কিন্তু এর একটা ভালো দিকও আছে।হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা হুকাবি সন্ডার্স বলেছেন, খোলামেলা স্বভাবের জন্যই আমেরিকার বন্ধু দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে দিব্যি বন্ধুত্ব জমে উঠেছে ট্রাম্পের।

হোয়াইট হাউসের এক কর্মী জানিয়েছেন, শুধু মোদির জন্য কনে খুঁজে দিতে চাওয়াই নয়, ট্রাম্প মাঝে মাঝে ভারতীয়দের ইংরেজি উচ্চারণ নিয়ে ব্যঙ্গ করেন। মোদিকে নকল করে দেখান।

ভারতের সঙ্গে এখন আমেরিকার সম্পর্ক খুবই ভালো। কিন্তু বাণিজ্যিক স্বার্থ নিয়ে দুই দেশের কিছু মতপার্থক্য দেখা দিয়েছে গত কয়েক মাস ধরে। ভারতের স্বাধীনতা দিবসে উপস্থিত থাকার জন্য মোদি ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ট্রাম্প আসবেন কিনা এখনও জানাননি।

সূত্র: ওয়াশিংটন পোস্ট

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: