বৃহস্পতিবার, ২১ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাবনায় ছাত্রদলের কমিটি বাতিল এবং যোগ্য ও মেধাবীদের নিয়ে নতুন কমিটির দাবিতে বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দের পদত্যাগ  » «   পবিত্র হজকে রাজনীতির হাতিয়ার বানিয়েছে সৌদি  » «   চুয়াডাঙ্গায় সাপের কামড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু  » «   সিটি নির্বাচন ১৭ প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নিয়েছে বিএনপি  » «   বৃদ্ধ মাকে মারধর, যে পরিণাম হল সন্তানের  » «   এমপিপুত্র শাবাবকে ‘শনাক্তে’ পুলিশের হাতে সিসিটিভি ফুটেজ  » «   জেনে নিন শাওয়াল মাসের ছয়টি রোজার ফজিলত  » «   মৃত্যুভয়ে ১১ তলা পাইপ বেয়ে নামে শিশুটি  » «   বিএনপির কর্মীরা এখন ঢাকায় রিকশা চালায় : ফখরুল  » «   দীপিকা-রণবীরের বিয়ের দিনক্ষণ ফাঁস!  » «   জনপ্রিয়তা বেড়েছে বিটিভির  » «   দিনদুপুরে পার্কে গণধর্ষণ, সেনাবাহিনী ঘিরে ফেলে পার্ক এলাকা  » «   ফের দক্ষিণের ১৫ রুটে বাস চলাচল বন্ধ  » «   স্বামী-সন্তানের স্বীকৃতির দাবিতে প্রবাসী স্ত্রীর অনশন  » «   সাবেক প্রেমিকা কোপাল বর্তমান প্রেমিকাকে!  » «  

মৃত ভেবে ফেলে দেওয়ার সময় কেঁদে উঠলো নবজাতক



নিউজ ডেস্ক::খুলনার দাকোপ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুত্র সন্তান প্রসব করেন সোমা গাইন নামে এক নারী। চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা দিয়ে টেবিলের ওপর তুলা মুড়িয়ে ফেলে রাখেন। প্রায় তিন ঘণ্টা এভাবে রাখার পর সকালে হাসপাতালের আয়া ফেলে দিতে গেলে নবজাতকটি কেঁদে উঠে।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারী) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। গাইনের স্বামী উপজেলা সমবায় অধিদপ্তরের অফিস সহকারী পুরঞ্জন গাইন বলেন, স্ত্রী সোমা গাইনের প্রসব ব্যথা উঠলে রাত ২টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক শামীম হোসেনের তত্ত্বাবধানে তাকে ডেলিভারির জন্য কেবিনে নেয়া হয়। সেখানে সোমা গাইন এক পুত্র সন্তান প্রসব করেন। প্রসবের পর চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

খবর জানতে পেরে রোগীর অভিভাবকরা মা ও শিশুটিকে বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করেন। বাচ্চাটিকে বর্তমানে ওয়ার্মে রাখা হয়েছে বলে জানান হাসপাতালের নার্স লিপিকা রানী সাহা।

ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। বিষয়টির তদন্তমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: