রবিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দিনে শিশু ধর্ষণ, রাতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত!  » «   আইফোনে আসছে ডুয়াল সিম সাপোর্ট!  » «   জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট : খালেদাকে আদালতে হাজির করার দিন আজ  » «   এবার বিজ্ঞাপনের জুটি নোবেল ও পূর্ণিমা  » «   লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী‘চিন্তা করে দেখুন কত বড় সন্ত্রাসী সে’  » «   জাতীয় প্রেসক্লাবে ফখরুল‘অসৎ উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে খালেদাকে জেলে রাখা হয়েছে’  » «   ফেসবুকে অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুলএতেই তার এতো তেজ, এতো অনাচার!  » «   কাদেরের বক্তব্য ভয়ঙ্কর অশনি সংকেত : ফখরুল  » «   বি.কে.সি স্পোর্টিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন  » «   বাজে গল্পের সিরিয়াল ভারতে সামাজিক সমস্যা বাড়াচ্ছে : মমতা  » «   প্রবাসীদের সহযোগিতা দিতে আলাদা সেল গঠন করবে সরকার  » «   নাটোর-৪ আসনসাংসদ-মেয়র-চেয়ারম্যানের বিবাদ তুঙ্গে, হতাশা-বিভক্তি তৃণমূলেও!  » «   আলোচনায় অপু বিশ্বাসের নাচের ভিডিও  » «   পাশবিক! আট মাসের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা  » «   খসরুর প্রশ্ন‘নির্বাচনে সেনা থাকলে আ’লীগের সমস্যা কি?’  » «  

মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ এগুচ্ছে



নিউজ ডেস্ক::প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের প্রেরণায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশবাসীকে জাতির পিতার অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধামুক্ত ও সুখী-সমৃদ্ধ স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণের আহ্বান জানিয়েছেন। ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে সোমবার দেয়া বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এ কথা জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকার মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। গত ৯ বছরে দেশের কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, মানবসম্পদ উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান, যোগাযোগ, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, বৈদেশিক সম্পর্ক, ব্যবসা-বাণিজ্যসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে অভাবনীয় অগ্রগতি অর্জন করেছে।

বাংলাদেশ ২০২১ সালের আগেই আমরা মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত, সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে এমন আশা প্রকাশ করে বলেন, আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে ‘রোল মডেল’। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নতদেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জন করেছে। এ স্বীকৃতি বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি করেছে।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাসে ১৭ এপ্রিল অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপ-রাষ্ট্রপতি এবং তাজউদ্দিন আহমেদকে প্রধানমন্ত্রী করে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে স্বাধীন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার গঠিত হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, মেহেরপুর জেলার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার শপথ গ্রহণ করে। পাশাপাশি এদিন স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র অনুমোদন করা হয়। সেদিন থেকে এ স্থানটি ‘মুজিবনগর’ নামে পরিচিতি লাভ করে।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে, জাতির পিতা স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। তার নির্দেশ অনুযায়ী মুক্তিকামী বাঙালি জাতি পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধ যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ১৭ এপ্রিল স্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের শপথ গ্রহণের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ ও সরকার পরিচালনা প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করে।

বাণীতে তিনি ঐতিহাসিক এদিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ জাতীয় চার নেতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন এবং তাদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: