শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নন্দলালের ভূমিকায় অবতীর্ণ হবেন না: ইসি রফিকুল  » «   এমপি হিসেবে শপথ নিলেন সৈয়দ আশরাফের বোন ডা. জাকিয়া  » «   রোহিঙ্গাদের নৃশংসতার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান মিয়ানমার সেনাপ্রধানের!  » «   যেসব শর্তে আত্মসমর্পণ করছেন ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ী  » «   নাসা আ্যপস চ্যালেঞ্জে বিশ্বসেরা শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়  » «   বাংলা একাডেমিতে আল মাহমুদের মরদেহ, শ্রদ্ধা নিবেদন  » «   আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে জোবায়ের অনুসারীদের ইজতেমা শেষ  » «   যেভাবে ভারতীয় সেনাবহরে হামলা চালায় জঙ্গিরা  » «   রোহিঙ্গা নিপীড়ন তদন্তে মার্চে বাংলাদেশ আসছে আইসিসি প্রতিনিধিদল  » «   ব্যাটিং ব্যর্থতায় সিরিজ হার বাংলাদেশের  » «   যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলেন ট্রাম্প  » «   টেকনাফে ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পণ আজ  » «   বিশ্ব ইজতেমা: প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ  » «   ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি  » «   ভালোবাসা দিবসে সিলেটে ‘জুটির মেলা’  » «  

মিয়ানমারে নিলামে উঠছে সুচির ভাস্কর্য



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: মিয়ানমারেরই নিলামে বিক্রি হচ্ছে নেত্রী অং সান সুচির ব্রোঞ্জে তৈরি একটি ভাস্কর্য।দুস্থ বা পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়গুলোর সেবায় অর্থ সংগ্রহের জন্য এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।এই অর্থ ব্যবহার করবে ড খিন চি ফাউন্ডেশন নামে একটি দাতব্য সংস্থা।এর নির্বাহী কমিটির সদস্য ড.থান্ট থ কাউং এমন তথ্য দিয়েছেন।বলা হয়েছে, এই ফাউন্ডেশন ও সেডোনা হোটেল ইয়াঙ্গুন যৌথভাবে এই নিলাম আয়োজন করবে।তহবিল সংগ্রহের এ উদ্যোগ সম্পর্কে সংবাদ সম্মেলন করেছেন থান্ট থ কাউং।সেখানে তিনি বলেছেন,নিলামে ওই ভাস্কর্যটি বিক্রি করা হবে ৫ কোটি কিয়াতে।একটি কাচপাত্র বিক্রি করা হবে ২০ লাখ কিয়াতে।আর জেড পাথরে তৈরি গলার একটি হার বিক্রি করা হবে এক কোটি কিয়াতে। এই মূল্য ডাকা হবে নিলামে।

নিলাম কেন ডাকা হচ্ছে এ সম্পর্কে তিনি বলেন,বিদেশী পন্ডিতজনরা ভীষণ শ্রদ্ধা করেন অং সান সুচিকে।তার প্রতি এক রকম শ্রদ্ধা প্রকাশ করা হবে এই নিলামের মাধ্যমে।আর নিলামটি করা হচ্ছে দাতব্য সেবার জন্য।বিক্রি থেকে যে অর্থ আসবে তা যাবে ড খিন চি ফাউন্ডেশনে।আর তা ব্যবহার করা হবে জনকল্যাণে।এই সংস্থা আগামী ৫ই অক্টোবর চ্যারিটি গালা নৈশভোজের আয়োজন করবে।সেখানেই নিলাম ডাকা হবে।এরই মধ্যে সেই নৈশভোজের টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে।প্রতিটি টিকিট আগে আসলে আগে পাবেন ভিত্তিতে ১০০ মার্কিন ডলার করে দাম ধরা হয়েছে। এতে কমপক্ষে ৩০০ অতিথি যোগ দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য,সুচির ওই ভাস্কর্যটি তৈরি করেছেন নরওয়ের পেশাদার আর্টিস্ট মেরেট সেজেরস্টেড বডথেকার।কাচের তৈরি পাত্রটি তৈরি করেছেন আন্দ্রে হিনিওভা।তিনি ট্রাডিশনাল চেক ক্রিস্টাল কোম্পানি লিমিটেডের ডিজাইন ডাইরেক্টর।জেড বা দামী পাথরে তৈরি গলার হারটি দান করেছিল মিন্ট তুন ও জেমস অ্যান্ড জুয়েলারি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: