বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «   মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত রবার্টকে ক্ষমা করে দিন: চীনকে কানাডা  » «   রাতের অন্ধকারে জিনে আগুন দিচ্ছে বাড়ি ও দোকানে!  » «   কেনিয়ায় জঙ্গি হামলা; মার্কিন নাগরিকসহ নিহত ১৫  » «   সিলেট সিটিতে থাকবে ফ্রি ওয়াইফাই সেবা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ঐক্যফ্রন্টের সংলাপে আমন্ত্রণ পাবে আ.লীগ-জাপা  » «   অসুস্থতার কারণে আদালতে যাননি খালেদা জিয়া  » «   টিআইবির প্রতিবেদন মনগড়া কল্পকাহিনি : তথ্যমন্ত্রী  » «   উদ্ধার হলো শাহনাজের বাইক, ধরা পড়ল চোর  » «   বিদ্যুতের ঋতুভিত্তিক চাহিদার অবসান ঘটাতে হবে: জ্বালানি উপদেষ্টা  » «   পদ্মা নদীর ওপারেই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে  » «   স্যাটেলাইটে ধরা পড়ল সুন্দরবনের ৪০ একর বন উধাও!  » «   রহস্য খোলাসা করলেন সৌদি থেকে পালিয়ে আসা সেই তরুণী  » «   সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন ফরম কিনলেন তৃতীয় লিঙ্গের ৮ জন  » «   শাস্তির বদলে পদোন্নতি! লেক দূষণ রোধের ৫০ কোটি টাকা নয়ছয়  » «  

মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের সুপারিশ কানাডিয়ান দূতের



নিউজ ডেস্ক:: রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপে সমমনা দেশগুলোকে নিয়ে কার্যক্রম চালিয়ে যেতে কানাডা সরকারের প্রতি সুপারিশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বব রে।
রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে কানাডার প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের চূড়ান্ত প্রতিবেদনে এ সুপারিশ করা হয়। বৃহস্পতিবার (২৪ মে) ঢাকার কানাডা হাইকমিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত বব রে দেশটির সরকারের কাছে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন পেশ করেছেন। এই সংকট সমাধানে প্রতিবেদনে চার ভাগে ১৭টি সুপারিশ করেছেন বিশেষ দূত।

প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা সংকটকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার উভয় দেশের জন্য মানবিক সংকট বলে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া তুলে ধরা হয়েছে মিয়ানমারের রাজনৈতিক পরিস্থিতি।

কানাডার বিশেষ দূতের এ প্রতিবেদনে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে মিয়ানমারের ওপর অবরোধ আরোপের লক্ষ্যে কানাডার সমমনা দেশগুলোর সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা ও কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়। একই সঙ্গে মিয়ানমারের প্রতি কানাডা সরকারের অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ অব্যাহত রাখার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতায় যথাযথ তদন্তের সুপারিশ করা হয়েছে। সে লক্ষ্যে তথ্য-প্রমাণাদি যথাযথভাবে সংগ্রহে জোর দেওয়া হয়েছে। এসব তথ্যাদির ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক আইনের আওতায় বিচারের সুপারিশ করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কানাডা সরকার শুরু থেকেই কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। সে লক্ষ্যে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো গতবছর ২৩ অক্টোবর মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত হিসেবে বব রে’কে নিযুক্ত করেন। বব রে ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফর করেছেন। সে অনুযায়ী কানাডার বিশেষ দূত কানাডা সরকারের কাছে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদন পেশ করলেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: