রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
স্বামীর পরকীয়া দেখে ফেলায় স্ত্রীর সঙ্গে অদ্ভুত কান্ড!  » «   চীনের পাতা ফাঁদে মিয়ানমার  » «   আইটেম গানে নাচবেন শাকিব-মিম  » «   মডেল থেকে জঙ্গি : ল্যাপটপে চাঞ্চল্যকর তথ্য!  » «   ‘উত্তর কোরিয়ার পাগলকে শিক্ষা দিতে যাচ্ছি’  » «   বাড্ডায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১, দগ্ধ ২  » «   সাপাহারে দূর্গা পূজার প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ: বাঁকী প্রতিমার সাজ সজ্জা  » «   দিনাজপুরে বজ্রপাতে ৮ জনের মৃত্যু  » «   এবার ধর্ষণের অভিযোগে ফলপ্রিয় ‘ফলাহারি বাবা’ গ্রেফতার  » «   ‘হালে পানি না পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর নিখুঁত প্রচেষ্টায় খুঁত ধরার অপচেষ্টা বিএনপির’  » «   মেক্সিকোয় ভূমিকম্পে ৮ বিদেশি নাগরিক নিহত  » «   আবেগ লুকিয়ে রাখা মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়  » «   খুলনায় ‘চিংড়িতে জেলি’ পুশের অভিযোগ  » «   আমেরিকায় একই ফ্রেমে বাংলাদেশের ৮ তারকা  » «   পাকিস্তানি ব্যাংকে দুর্নীতি: কয়েকজন বাংলাদেশি জড়িত  » «  

মিয়ানমারকেই সমর্থন জানাল চীন



চীন বলেছে, ‘নিরাপত্তা স্থিতি’ রক্ষায় মিয়ানমারের প্রচেষ্টায় তাদের সমর্থন রয়েছে। সেনা অভিযানের কারণে তিন লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসায় এই সহিংসতার অবসানে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ ক্রমশ বাড়ছে। যুক্তরাজ্যের পত্রিকা দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত খবরে এ কথা জানানো হয়।

গত ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইনে সহিংসতা চলছে। রাখাইনে সেনাবাহিনীর হত্যা, নির্যাতন, নিপীড়ন থেকে বাঁচতে নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে হাজার হাজার রোহিঙ্গা। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেং শুয়াং বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে চীন। তিনি বলেন, ‘রাখাইনে মিয়ানমার সরকার শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য যে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, তাতে আমাদের সমর্থন আছে। আমরা আশা করি, যত দ্রুত সম্ভব সেখানে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসবে।’

জেং শুয়াং আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি, জাতীয় উন্নয়নে স্থিতিশীলতার সুরক্ষায় মিয়ানমার যেভাবে কাজ করছে, এ প্রচেষ্টায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন থাকা উচিত।’

মিয়ানমার সরকার বলছে, রাখাইনে সহিংসতায় ৪০০ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তবে জাতিসংঘ কয়েক দিন আগে বলেছে, রাখাইনে সহিংসতায় ১০০০ বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রধান রাখাইন প্রদেশের সহিংসতার ঘটনাকে ‘জাতিগত নিধন’ বলে মিয়ানমারকে সতর্ক করে দিয়েছে। এর আগে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে জাতিসংঘ।
এ ঘটনায় মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ছেই। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেনসহ বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা অং সান সুচির নেতৃত্বাধীন সরকারের নিন্দা জানিয়ে আসছে। সহিংসতার প্রতি নিন্দা জানাতে সুচির প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন নোবেলজয়ীরা। সুচি বলছেন, তাঁরা ‘সন্ত্রাসীদের’ বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: