রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নেতাদের শাসালেন শেখ হাসিনা  » «   যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «  

মিয়ানমারকেই সমর্থন জানাল চীন



চীন বলেছে, ‘নিরাপত্তা স্থিতি’ রক্ষায় মিয়ানমারের প্রচেষ্টায় তাদের সমর্থন রয়েছে। সেনা অভিযানের কারণে তিন লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসায় এই সহিংসতার অবসানে মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ ক্রমশ বাড়ছে। যুক্তরাজ্যের পত্রিকা দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত খবরে এ কথা জানানো হয়।

গত ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইনে সহিংসতা চলছে। রাখাইনে সেনাবাহিনীর হত্যা, নির্যাতন, নিপীড়ন থেকে বাঁচতে নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে হাজার হাজার রোহিঙ্গা। মিয়ানমার থেকে পালিয়ে প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেং শুয়াং বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছে চীন। তিনি বলেন, ‘রাখাইনে মিয়ানমার সরকার শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার জন্য যে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, তাতে আমাদের সমর্থন আছে। আমরা আশা করি, যত দ্রুত সম্ভব সেখানে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে আসবে।’

জেং শুয়াং আরও বলেন, ‘আমরা মনে করি, জাতীয় উন্নয়নে স্থিতিশীলতার সুরক্ষায় মিয়ানমার যেভাবে কাজ করছে, এ প্রচেষ্টায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন থাকা উচিত।’

মিয়ানমার সরকার বলছে, রাখাইনে সহিংসতায় ৪০০ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তবে জাতিসংঘ কয়েক দিন আগে বলেছে, রাখাইনে সহিংসতায় ১০০০ বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রধান রাখাইন প্রদেশের সহিংসতার ঘটনাকে ‘জাতিগত নিধন’ বলে মিয়ানমারকে সতর্ক করে দিয়েছে। এর আগে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে জাতিসংঘ।
এ ঘটনায় মিয়ানমারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ বাড়ছেই। জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেনসহ বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা অং সান সুচির নেতৃত্বাধীন সরকারের নিন্দা জানিয়ে আসছে। সহিংসতার প্রতি নিন্দা জানাতে সুচির প্রতি আহ্বান জানাচ্ছেন নোবেলজয়ীরা। সুচি বলছেন, তাঁরা ‘সন্ত্রাসীদের’ বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: