মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মক্কা-মদিনায় হাজিদের ‘হজ অ্যাপ’ সুবিধা দিচ্ছে ভারত!  » «   হজরত শাহজালালের (রহ.) মাজারে ভক্ত-আশেকানদের ঢল  » «   পশ্চিমবঙ্গেও ছেলেধরা গুজব, একজনকে পিটিয়ে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি  » «   গণপিটুনিতে রেনু নিহতের ঘটনায় আটক ৩ জন রিমান্ডে  » «   ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা  » «   ফের জাতীয় সংলাপের আহ্বান ড. কামালের  » «   জবানবন্দি প্রত্যাহার ও চিকিৎসা- মিন্নির পক্ষে দুই আবেদনই নামঞ্জুর  » «   উ. কোরিয়ায় নির্বাচন: ভোট পড়েছে ৯৯.৯৮ শতাংশ  » «   এইডস ঝুঁকিতে সিলেট ও মৌলভীবাজার  » «   ঈদের আগেই সরকারি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার ফল  » «   বিমানের ৪৫ হাজার টিকিট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে হরিলুট  » «   মিন্নি নয়, রিফাত হত্যার নেপথ্যে চেয়ারম্যানের স্ত্রী?  » «   পাকিস্তানে নারী আত্মঘাতীর বিস্ফোরণে ছয় পুলিশসহ নিহত ৯  » «   সাইকেল চালিয়ে হজ করতে যাচ্ছেন ৮ ব্রিটিশ মুসলিম  » «  

মালয়েশিয়ায় তারাবি পড়াচ্ছেন বাংলাদেশের হাফেজ ইয়াছিন



প্রবাস ডেস্ক:: বাংলাদেশের হাফেজরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে তারাবির নামাজের জন্য গমন করেন। এ রেওয়াজ বেশ পুরনো। মালয়েশিয়ায় হাফেজে কোরআনদের আসা-যাওয়ার ইতিহাস খুবই কম। বিগত তিন বছর ধরে বাংলাদেশ থেকে বেশ কয়েকজন হাফেজ তারাবির জন্য মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে গিয়েছেন। তাদেরই একজন হাফেজ মোহাম্মদ ইয়াছিন।

হাফেজ মোহাম্মদ ইয়াসিনের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের আড়াই হাজারের ধন্ধি গ্রামে। তিনি মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গর রাজ্যের জেরাম কাম্পুং বুকিত চিরাকা তাহফিজ আর রোকাইয়া মাদ্রাসার সূরাওয়ে তারাবি পড়াচ্ছেন।

শুধু তাই নয় হাফেজ মোহাম্মদ ইয়াছিন ২০১৭ সালের এপ্রিলে সেদেশের ধর্ম মন্ত্রণালয় (আগামা ইসলাম) এর অধীনে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ওই মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। আর এ পরীক্ষায় অংশ নিতে সার্বিক সহযোগিতা করেছেন প্রবাসী কমিউনিটি নেতা রাশেদ বাদল।

১৯৮২ সালে হাফেজ মোহাম্মদ ইয়াসিন ঢাকাস্থ গেন্ডারিয়া এম শফি উল্লাহ হাফিজিয়া মাদ্রাসা থেকে হিফজুল কোরআন বিভাগে পরীক্ষা দিয়ে প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন।

হাফেজ মোহাম্মদ ইয়াসিনের মধুর কণ্ঠে কোরআন তেলাওয়াতে মুগ্ধ মুসল্লিরা। ইয়াছিন সুদূর মালয়েশিয়ায় তারাবি পড়ানোর সুযোগ পেয়ে আপ্লুত। জেরাম কাম্পুং বুকিত চিরাকা তাহফিজ আর রোকাইয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সূরাওয়ের মুসল্লি। সেখানে বাংলাদেশি নেই বললেই চলে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: