মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সিলেটে ডাক্তারদের প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ, ফার্মেসিতেই চিকিৎসা  » «   ৯ এপ্রিল পবিত্র শবে বরাত  » «   এবার স্পেনও ছাড়ালো চীনকে, ২৪ ঘণ্টায় ৭৩৮ মৃত্যু  » «   সিলেট বিভাগে বৃহস্পতিবার থেকে গণপরিবহন বন্ধ  » «   করোনা মোকাবিলায় দেশে দেশে লকডাউন  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তি, করোনা বদলে দিচ্ছে রাজনীতি  » «   খালেদার মুক্তির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল যুক্তরাষ্ট্র  » «   খালেদা জিয়ার মুক্তিতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক দেখছেন ড. কামাল  » «   করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গ্রিসে লকডাউন  » «   বান্দরবানের ৩ উপজেলা লকডাউন  » «   ইতালিতে একদিনে ৭৪৩ জনের মৃত্যু  » «   ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৬ মৃত্যু  » «   নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত ২০ হাজার ছাড়াল  » «   সাধারণ ছুটিতে চালু থাকবে ব্যাংক  » «   করোনাভাইরাস: উৎকণ্ঠিত সিলেট, উদ্বিগ্ন মানুষ  » «  

মাদরাসার শিক্ষকদের বেতন-বোনাসে দেরি হওয়ায় শিক্ষামন্ত্রীর দুঃখ প্রকাশ!



নিউজ ডেস্ক:: শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বেসরকারি স্কুল কলেজ মাদরাসার শিক্ষকদের চলতি মাসের এমপিও যথাসময়ে ছাড় হলেও ব্যাংকের পদ্ধতিগত কারণে এখনও কেউ কেউ এমপিও (বেতন ভাতার সরকারি অংশ) ও ঈদ বোনাস তুলতে পারেননি বলে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

বিশেষ করে মাদরাসা শিক্ষকদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা হচ্ছে। এই জন্য ব্যক্তিগতভাবে আমি দুঃখ প্রকাশ করছি। এবারের অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে কাজে লাগবে। তবে সৃষ্ট সমস্যা সমাধানে আজকেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আশা করছি শিক্ষকরা আগামী রোববারের মধ্যে বেতন ও বোনাস দুটি উত্তোলন করতে পারবেন।কেউ বেতন-বোনাস তুলতে না পারলে বা সমস্যায় পড়লে তারা যেন শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের জানান।

বুধবার বিভিন্ন পর্যায়ের সাংবাদিকদের সম্মানে আয়োজিত ইফতার মাহফিল শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ কথা বলেন। ঢাকা ক্লাবে এ ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালালউদ্দিন, মহাসচিব শাবান মাহমুদ, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক এবং রাজনীতিবিদের লক্ষ্য একই। সেটি হচ্ছে দেশের ও মানুষের সেবা করা। তাই জাতীয় স্বার্থে তথ্য দিয়ে আমাকে সহায়তা করুন। জেনে শুনে কোন ভুল করবো না, তথ্য জানা গেলে এবং জানা মতে কোনো অন্যায় করবো না।

তিনি বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দুটি বিভাগ আছে। এ দুই বিভাগের দপ্তর ভিন্ন দুটি ভবনে অবস্থিত অবস্থিত। শিক্ষার আরও কিছু অফিস ও দপ্তর বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত। এইগুলো একই ক্যাম্পাসে থাকলে ভালো হয়।

সেগুলো একই ক্যাম্পাসে করা যায় কিনা চিন্তা করা হবে। বিশেষ করে দুই বিভাগ একই ভবনে রাখতে পারলে ভালো হয়। অর্থ মন্ত্রণালয়ের ভবন চালু হলে ৬ নম্বর ভবনে জায়গা হবে। তখন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুই বিভাগ একই ভবনে রাখার চেষ্টা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: