মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বুধবার সিলেটে সংস্কারকৃত শিশু আদালতের উদ্বোধন  » «   আজ হবিগঞ্জের লাখাই কৃষ্ণপুর গণহত্যা দিবস  » «   বুধবার মৌলভীবাজারে অর্ধদিবস হরতালের ডাক, প্রতিহতের ঘোষণা আ. লীগের  » «   গোলাপগঞ্জ পৌরসভা মেয়র উপ-নির্বাচন: প্রতীক বরাদ্দ আজ  » «   কারগারে মালির কাজ করছেন রাগীব আলী, ডিভিশনের আবেদন  » «   ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর  » «   কোটা ইস্যুতে আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি মিছিল  » «   আশুরা উপলক্ষে সুনির্দিষ্ট হুমকি নেই: ডিএমপি কমিশনার  » «   একনেকে অনুমোদন পেলো ইভিএম কেনা প্রকল্প  » «   জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট  » «   ৫৬৮ কেজির লাড্ডু দিয়ে পালিত হল মোদির জন্মদিন  » «   দেশের সব নাগরিককে অধিকার রক্ষায় সক্রিয় হতে হবে-ড. কামাল  » «   ঐতিহাসিক পিয়ংইয়ং সফরে সস্ত্রীক প্রেসিডেন্ট মুন  » «   ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জিডিপির প্রবৃদ্ধি ৭.৮৬%  » «   মাদরাসা শিক্ষকের স্ত্রী ও ছাত্রকে গলাকেটে হত্যা  » «  

মাত্র চার হাজার টাকায় কন্যা শিশুকে বিক্রি!



নিউজ ডেস্ক::একদিকে অভাব ও অন্যদিকে একাধিক কন্যা সন্তান, এ কারণে নবজাতক শিশুকন্যাকে বিক্রি করে ক্লিনিকের পাওনা পরিশোধ করল খুলনার পাইকগাছার এক দম্পতি। খুলনার পাইকগাছা ফারিন হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ১২ ডিসেম্বর স্মরণখালী গ্রামের দিলিপ সরদারের স্ত্রী এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। এর পূর্বে এ পরিবারে আরও ৩টি কন্যা সন্তান থাকায় নবজাতকের প্রতি চরম অবহেলা ও অযত্ন দেখা দেয়। এমনকি জন্মের পরে তাকে বুকের দুধও পর্যন্ত দেয়া হয়নি বলে জানা গেছে।

বিষয়টি জানার পর পৌরসভার সরল গ্রামের লক্ষ্মণ সরদারের স্ত্রী কবিতা রাণী সরদার সকালে সেই হাসপাতালে গিয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে শিশুটি নেয়ার জন্য আগ্রহ দেখায়। এক পর্যায়ে শিশুটির পিতা-মাতা ক্লিনিকের টাকা পরিশোধের দাবি করে। কবিতা রাণী ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ৪ হাজার ২০০ টাকা পরিশোধ করে শিশু সন্তানটি নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে শিশুটির পিতা দিলিপ জানান, অভাবের কারনেই শিশুটি বিক্রি করতে হয়েছে। এদিকে লক্ষ্মণ চন্দ্র সরদার জানান, তাদের কোন সন্তান না থাকায় শিশুটিকে পেয়ে তারা অনেক খুশি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: