বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তরুণ ও যুবকদের জন্য যে চমক আ. লীগ-বিএনপির ইশতেহারে  » «   নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের ৯ জন দগ্ধ  » «   আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «   ভোটের ফলাফল প্রকাশে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মইনুলের জামিন  » «   বাংলাদেশের বিজয় দিবসকে অবজ্ঞা শেহবাগের!  » «   সারাদেশে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন  » «   প্রার্থিতা নিয়ে রিট খারিজ, নির্বাচন করতে পারবেন না খালেদা জিয়া  » «   জামায়াতের ২২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলে রুল  » «   সিলেটে প্রাধান্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার  » «   বিএনপির ইশতেহার ঘোষণা করছেন ফখরুল  » «   আপিলেও ভোটের পথ খুলল না ইলিয়াসপত্নী লুনার  » «   যেসব ‘বিশেষ’ অঙ্গীকার থাকছে আ. লীগের নির্বাচনি ইশতেহারে  » «  

মাত্র চার হাজার টাকায় কন্যা শিশুকে বিক্রি!



নিউজ ডেস্ক::একদিকে অভাব ও অন্যদিকে একাধিক কন্যা সন্তান, এ কারণে নবজাতক শিশুকন্যাকে বিক্রি করে ক্লিনিকের পাওনা পরিশোধ করল খুলনার পাইকগাছার এক দম্পতি। খুলনার পাইকগাছা ফারিন হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ১২ ডিসেম্বর স্মরণখালী গ্রামের দিলিপ সরদারের স্ত্রী এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেয়। এর পূর্বে এ পরিবারে আরও ৩টি কন্যা সন্তান থাকায় নবজাতকের প্রতি চরম অবহেলা ও অযত্ন দেখা দেয়। এমনকি জন্মের পরে তাকে বুকের দুধও পর্যন্ত দেয়া হয়নি বলে জানা গেছে।

বিষয়টি জানার পর পৌরসভার সরল গ্রামের লক্ষ্মণ সরদারের স্ত্রী কবিতা রাণী সরদার সকালে সেই হাসপাতালে গিয়ে খোঁজ-খবর নিয়ে শিশুটি নেয়ার জন্য আগ্রহ দেখায়। এক পর্যায়ে শিশুটির পিতা-মাতা ক্লিনিকের টাকা পরিশোধের দাবি করে। কবিতা রাণী ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ৪ হাজার ২০০ টাকা পরিশোধ করে শিশু সন্তানটি নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে শিশুটির পিতা দিলিপ জানান, অভাবের কারনেই শিশুটি বিক্রি করতে হয়েছে। এদিকে লক্ষ্মণ চন্দ্র সরদার জানান, তাদের কোন সন্তান না থাকায় শিশুটিকে পেয়ে তারা অনেক খুশি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: