মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
মক্কা-মদিনায় হাজিদের ‘হজ অ্যাপ’ সুবিধা দিচ্ছে ভারত!  » «   হজরত শাহজালালের (রহ.) মাজারে ভক্ত-আশেকানদের ঢল  » «   পশ্চিমবঙ্গেও ছেলেধরা গুজব, একজনকে পিটিয়ে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে তিনজনকে গণপিটুনি  » «   গণপিটুনিতে রেনু নিহতের ঘটনায় আটক ৩ জন রিমান্ডে  » «   ব্যারিস্টার সুমনের বিরুদ্ধে মামলা  » «   ফের জাতীয় সংলাপের আহ্বান ড. কামালের  » «   জবানবন্দি প্রত্যাহার ও চিকিৎসা- মিন্নির পক্ষে দুই আবেদনই নামঞ্জুর  » «   উ. কোরিয়ায় নির্বাচন: ভোট পড়েছে ৯৯.৯৮ শতাংশ  » «   এইডস ঝুঁকিতে সিলেট ও মৌলভীবাজার  » «   ঈদের আগেই সরকারি ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষার ফল  » «   বিমানের ৪৫ হাজার টিকিট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে হরিলুট  » «   মিন্নি নয়, রিফাত হত্যার নেপথ্যে চেয়ারম্যানের স্ত্রী?  » «   পাকিস্তানে নারী আত্মঘাতীর বিস্ফোরণে ছয় পুলিশসহ নিহত ৯  » «   সাইকেল চালিয়ে হজ করতে যাচ্ছেন ৮ ব্রিটিশ মুসলিম  » «  

‘মসজিদ’ সরাতে বললেন তসলিমা!



নিউজ ডেস্ক::বাংলাদেশের অন্যতম বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশ ত্যাগ করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাস করে আসছেন। কিছুকাল যুক্তরাষ্ট্রেও বসবাস করেছেন তিনি। বর্তমানে তিনি ভারত সরকার কর্তৃক ভারতে অজ্ঞাতবাসে অবস্থানের সুযোগ পেয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের কলকাতায় রয়েছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত এই লেখিকা।

বিতর্কিত এ লেখিকা এবার বিমানবন্দরের রানওয়ের মাঝে থাকা মসজিদ সরিয়ে ফেলার দাবি জানিয়েছেন। এক টুইটে তসলিমা দাবি করেন, কলকাতা বিমানবন্দরের রানওয়ের মাঝে মসজিদ থাকার কারণে বিমান উড়তে এবং অবতরণের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। তাই পুলিশের উচিত তা দ্রুত সরিয়ে দেয়া। বুধবার (৪ জুলাই) এ টুইট করেন তসলিমা নাসরিন।

টুইটে তসলিমা লেখেন, ‘কিছু মানুষ কয়েকটি পাথরের টুকরোর মধ্যে সিঁদুর মাখিয়ে তা একাডেমি অব ফাইন আর্টসের সামনের গাছের তলায় রেখেছিল। তাদের উদ্দেশ্য ছিল সেখানে একটা মন্দির নির্মাণ। পুলিশ সেই পাথরের টুকরোগুলো সরিয়ে দেয়। কলকাতা বিমানবন্দরের রানওয়ের মাঝে যে মসজিদ রয়েছে পুলিশের সেটাও সরিয়ে দেয়া উচিত। ওই মসজিদের কারণে বিমান উড়তে এবং অবতরণের ক্ষেত্রে সমস্যা হয়।’

এদিকে এক কমেন্টকারীর প্রশ্নের জবাবে তসলিমা নাসরিন বলেন, ‘খুব সম্ভবত ওই মসজিদ যখন নির্মাণ করা হয় তখন বিমানবন্দর অনেক ছোট ছিল। কিন্তু পরে বিমানবন্দরের বহর বৃদ্ধি হয়েছে। মুসলিমরা ওই মসজিদ সরিয়ে ফেলার বিরোধী। ওই মসজিদের কারণে দ্বিতীয় রানওয়ে নির্মাণ করা যাচ্ছে না।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: