বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শুক্রবার শ্রীলঙ্কার মসজিদে হামলার হুমকি, নিরাপত্তা জোরদার  » «   মোটরসাইকেলে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর মৃত্যু  » «   প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রিতে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা  » «   নুসরাত হত্যা: তদন্তে বেরিয়ে আসছে পুলিশ কর্মকর্তাদের গাফিলতি  » «   সিলেটের সীমান্ত দিয়ে ঢুকছে রোগাক্রান্ত ভারতীয় গরু  » «   খালেদা জিয়া সরকারের আইনগত সহায়তা পাওয়ার যোগ্য নন: আইনমন্ত্রী  » «   পরীক্ষাকেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ইনস্ট্রাক্টর কারাগারে  » «   নিউজিল্যান্ডের পার্মানেন্ট ভিসা পাচ্ছেন মুসলিমরা!  » «   জাফর ইকবাল হত্যাচেষ্টা মামলায় সাক্ষ্য দিলেন মহানগর হাকিম হরিদাস কুমার  » «   কান্নাজড়িত কণ্ঠে স্ত্রী-সন্তান হারানোর বর্ণনা দিলেন সুদেশ  » «   বহুদিন গোসল না করে অফিস করেছি: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী  » «   দল বহিষ্কার করতে পারে জেনেই শপথ নিয়েছি: জাহিদুর রহমান  » «   এবার শ্রীলঙ্কায় আদালতের পাশে বোমা বিস্ফোরণ  » «   কবরের জন্য জমি চাইলে বন্দেমাতরম বলতেই হবে: বিজেপি  » «   এবার শপথ নিচ্ছেন বিএনপির জাহিদুর  » «  

মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, নিউজিল্যান্ডের মসজিদ হামলায় জড়িত বন্দুকধারী ইসলামিক স্টেটের সন্ত্রাসীদের থেকে আলাদা কিছু নয়।ওয়াশিংটন পোস্টে বুধবার প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি উল্লেখ করেন, ওই হামলাকারীর শিক্ষা বা আদর্শকে খ্রিস্টান ধর্মের সাথে মেলানোর কোনো পথ নেই।

গত শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ান শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী ব্রেন্টন ট্যারান্ট নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে হামলা করে ৫০ জনকে হত্যা করে। হামলাকারী হামলার আগে নিজের পরিচয় দিতে গিয়ে বলেছিল, সে অভিবাসন ও মুসলিমবিদ্বেষী।

ওই নিবন্ধে এরদোগান আরো বলেন, আমি ক্রমাগতই বলে আসছি, সন্ত্রাসের কোনো ধর্ম নেই, কোনো ভাষা নেই। গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে যে হামলা হয়েছে সেটিকে আমি কোনো শিক্ষা, নৈতিকতা, মূল্যবোধের প্রভাব বলতে চাই না। যদি এ রকম কিছু এ হামলার জন্য দায়ী হয়ে থাকে, তাহলে সেটি হলো অবহেলা, প্রত্যাখ্যান ও ঘৃণা।

এরদোগান বলেন, ২৮ বছর বয়সী ট্যারান্ট আসলে ধর্ম নয়; বরং মানুষের মধ্যে বর্ণবাদের বিষ ছড়াতে চেয়েছে। এ ট্যার‌্যান্ট ও আইএসের মধ্যে আসলে কোনো পার্থক্য নেই। আইএস যেভাবে তুরস্ক ফ্রান্স ইন্দোনেশিয়াসহ সর্বত্র হামলা চালিয়ে নিষ্পাপ মানুষকে হত্যা করেছে, অস্ট্রেলিয়ান ওই বন্দুকধারীও নিউজিল্যান্ড তা-ই করেছে।

তিনি বলেন, ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর পশ্চিমা বিশ্বের দায়িত্ব বেড়ে গেছে। এখন তাদের ঘাড়ে বর্ণবাদ প্রত্যাখান, অভিবাসীদের নিয়ে অহেতুক আতঙ্ক প্রত্যাখ্যান এবং ইসলামোফোবিয়া বা ইসলামবিদ্বেষ প্রত্যাখানের দায়িত্ব বেড়েছে।

এদিকে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী জেসিন্দা আরডার্ন ওই হামলার পর যেভাবে মুসলমানদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং পশ্চিমা নেতাদেরকে তাদের দেশে বসবাসরত মুসলিমদের বুকে আকড়ে নেয়ার অনুরোধ করেছেন, তার ভূয়সী প্রশংসা করেন এরদোগান।

সূত্র: ভয়েস অব আমেরিকা

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: