সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ক্যাসিনো পঞ্চপাণ্ডবের রইল বাকি ১  » «   পুলিশের ওপর হামলা: দুই ‘জঙ্গি’ আটক  » «   সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কে চালকদের প্রতিযোগিতায় যাত্রীবাহী বাস খাদে, আহত ৭  » «   ইনস্টাগ্রামে ট্রাম্প-ওবামাকে পেছনে ফেললেন মোদি!  » «   একটি মোবাইল চার্জারের দাম ২২ হাজার টাকা  » «   বেতন বৈষম্য: কর্মবিরতিতে সাড়ে ৩ লাখ শিক্ষক  » «   আবরার হত্যা: শেষ চার ঘণ্টার নৃশংসতার চিত্র  » «   সংবিধান পড়ে শোনালেন আমান, পুলিশ বলল ‘গো ব্যাক’  » «   বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষা শুরু  » «   আবরার হত্যায় এবার মুজাহিদের স্বীকারোক্তি  » «   তিন সপ্তাহ ধরে কার্যালয়ে যান না যুবলীগ চেয়ারম্যান  » «   নোবেল পুরস্কার র‌্যাব-পুলিশের হাতে নয় : রিজভী  » «   বুরকিনা ফাসোতে মসজিদে ঢুকে ১৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ  » «   সৌদি-ইরান উত্তেজনা মধ্যস্ততায় তেহরানের পথে ইমরান খান  » «  

মসজিদে হামলাধারী ব্রেন্টন আইএস থেকে ভিন্ন কিছু নয়: এরদোগান



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, নিউজিল্যান্ডের মসজিদ হামলায় জড়িত বন্দুকধারী ইসলামিক স্টেটের সন্ত্রাসীদের থেকে আলাদা কিছু নয়।ওয়াশিংটন পোস্টে বুধবার প্রকাশিত এক নিবন্ধে তিনি উল্লেখ করেন, ওই হামলাকারীর শিক্ষা বা আদর্শকে খ্রিস্টান ধর্মের সাথে মেলানোর কোনো পথ নেই।

গত শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ান শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদী ব্রেন্টন ট্যারান্ট নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে হামলা করে ৫০ জনকে হত্যা করে। হামলাকারী হামলার আগে নিজের পরিচয় দিতে গিয়ে বলেছিল, সে অভিবাসন ও মুসলিমবিদ্বেষী।

ওই নিবন্ধে এরদোগান আরো বলেন, আমি ক্রমাগতই বলে আসছি, সন্ত্রাসের কোনো ধর্ম নেই, কোনো ভাষা নেই। গত শুক্রবার ক্রাইস্টচার্চে যে হামলা হয়েছে সেটিকে আমি কোনো শিক্ষা, নৈতিকতা, মূল্যবোধের প্রভাব বলতে চাই না। যদি এ রকম কিছু এ হামলার জন্য দায়ী হয়ে থাকে, তাহলে সেটি হলো অবহেলা, প্রত্যাখ্যান ও ঘৃণা।

এরদোগান বলেন, ২৮ বছর বয়সী ট্যারান্ট আসলে ধর্ম নয়; বরং মানুষের মধ্যে বর্ণবাদের বিষ ছড়াতে চেয়েছে। এ ট্যার‌্যান্ট ও আইএসের মধ্যে আসলে কোনো পার্থক্য নেই। আইএস যেভাবে তুরস্ক ফ্রান্স ইন্দোনেশিয়াসহ সর্বত্র হামলা চালিয়ে নিষ্পাপ মানুষকে হত্যা করেছে, অস্ট্রেলিয়ান ওই বন্দুকধারীও নিউজিল্যান্ড তা-ই করেছে।

তিনি বলেন, ক্রাইস্টচার্চ হামলার পর পশ্চিমা বিশ্বের দায়িত্ব বেড়ে গেছে। এখন তাদের ঘাড়ে বর্ণবাদ প্রত্যাখান, অভিবাসীদের নিয়ে অহেতুক আতঙ্ক প্রত্যাখ্যান এবং ইসলামোফোবিয়া বা ইসলামবিদ্বেষ প্রত্যাখানের দায়িত্ব বেড়েছে।

এদিকে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী জেসিন্দা আরডার্ন ওই হামলার পর যেভাবে মুসলমানদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন এবং পশ্চিমা নেতাদেরকে তাদের দেশে বসবাসরত মুসলিমদের বুকে আকড়ে নেয়ার অনুরোধ করেছেন, তার ভূয়সী প্রশংসা করেন এরদোগান।

সূত্র: ভয়েস অব আমেরিকা

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: