সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের ‘বিরোধিতায়’ ১১ জেলায় বাস চালানো বন্ধ  » «   নগরীতে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পিয়াজ, ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন  » «   বলিভিয়ার অশান্তির নেপথ্যে ‘সাদা সোনা’, যা পরবর্তী বিশ্বের আকাঙ্ক্ষিত বস্তু  » «   আবরার হত্যা: পলাতক চারজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «   ‘অপকর্মে’ সংকুচিত দ. কোরিয়ার শ্রমবাজার  » «   ৩০০ টাকার পিয়াজ সরকারের দিনবদলের সনদ: ডাকসু ভিপি নুর  » «   অযোধ্যা রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করছে মুসলিমরা  » «   ভাঙছে শরিক দল সঙ্কটে ঐক্যফ্রন্ট  » «   হলি আর্টিসান হামলা: রায় ২৭ নভেম্বর  » «   চাকা ফেটেছে নভোএয়ারের, ভাগ্যগুণে বেঁচে গেলেন ৩৩ যাত্রী  » «   হাত-পা ছাড়াই মুখে ভর করে লিখে পিইসি দিচ্ছে লিতুন  » «   প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া বিএনপির চিঠিতে আবরার হত্যার বর্ণনা  » «   ১৫০ যাত্রী নিয়ে মাঝ আকাশে বিপাকে ভারতীয় বিমান, রক্ষা করল পাকিস্তান  » «   বিমান ছাড়াও ট্রেন, ট্রাক, বাসে করে আসছে পেঁয়াজ: সিলেটে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   চুক্তির তথ্য জানতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিল বিএনপি  » «  

মসজিদে নামাজে যেতে ভয় হয় লন্ডন-আমেরিকার সিলেটিদের



প্রবাস ডেস্ক:: একের পর এক সন্ত্রাসী হামলায় আতঙ্কে রয়েছে লন্ডন-আমেরিকায় প্রবাসী সিলেটীরা। নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলার পর নামাজে মসজিদে যেতে ভয় হয় লন্ডন আমেরিকায় সিলেটিদের। ইস্ট লন্ডনের বাসিন্দা দরাজ আলী বলেন, নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলার পর বিশেষ করে মাগরিব ও এশার নামাজে মসজিদে যেতে কিছুটা ভয় হয়।

বিগত সময়ে এ ধরনের ঘটনার পরপরই বর্ণবাদী হামলার শিকার হতে হয়েছিলো মুসলিম কমিউনিটির অনেককে। এদিকে নিউজিল্যান্ডে মসজিদে অর্ধশতাধিক নিহত হওয়ায় প্রবাসীদের আতঙ্ক যেনো কাটছেই না। নিরাপত্তার মধ্যে মসজিদগুলোতে নামাজ আদায় করতেও এক অজানা আতঙ্কে রয়েছেন প্রবাসীরা। নিউজিল্যান্ডে হামলার দিনই পূর্ব লন্ডনে এক মুসল্লির ওপর হামলার চেষ্টা হয়েছে। শুক্রবার দুর্বৃত্তদের হাতুড়ির আঘাতে এক মুসল্লির মাথা ফেটে যায়। হামলার শিকার ব্যক্তি জুমার নামাজ আদায়ে মসজিদের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন।যদিও অনেকেই বলছেন মসজিদে যাতে মানুষ না যায় সে ভয় দেখানোর জন্যই এরকম হামলা করা হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় ৪৯ ব্যক্তি নিহত হওয়ার ঘটনায় শুক্রবার স্বাভাবিকভাবে নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কে ব্রিটেনের মুসলিমরা। মসজিদে মসজিদে ছিল পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা। এমন সতর্ক পরিস্থিতেই ওই হামলার ঘটনা ঘটল।

বহুজাতিক সংস্কৃতির দেশ ব্রিটেনে কোন ধরণের হামলা প্রত্যাশিত নয়, তবুও সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন কমিউনিটি নেতারা। নিউজিল্যান্ডে হামলার পর থেকে মসজিদগুলোয় নামাজের সময়ে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার কথা জানায় লন্ডন মুসলিম সেন্টার।

লন্ডন মুসলিম সেন্টারের মিডিয়া কর্মকর্তা বলেন, ‘মসজিদের যাতে সবাই নিরাপদে নামাজ আদায় করতে পারেন সেজন্য আমরা ভেতরে ও বাইরে নিরাপত্তা জোরদার করেছি।

উত্তর আমেরিকায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের অন্যতম গন্তব্য মিশিগান। মিশিগানের শহর হ্যামট্রামিক যার এখনকার নাম বাংলা টাউন। সেখানকার সিলেটিরা এক অজানা আতঙ্কে রয়েছেন। মিশিগানের বাসিন্দা সিলেটের আব্দুল লতিফ বলেন, গত তিন চারদিন ধরে মাগরিব ও এশার নামাজ পড়তে মসজিদে যেতে ভয় করছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: