মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাজমিস্ত্রি সেজে খুনি ধরলেন এসআই লালবুর রহমান!  » «   আগামী ৫ জুন পবিত্র ঈদুল ফিতর!  » «   বাংলাদেশের সঙ্গে ঝামেলা করতে চাচ্ছে পাকিস্তান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   লুটপাটের উন্নয়নের কথা শুনতে শুনতে জনগণ অতিষ্ঠ: রিজভী  » «   শ্লীলতাহানির বিচার না পেয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা, ওসি প্রত্যাহার  » «   ৩৪ পয়েন্টে ওয়াসার পানি পরীক্ষার নির্দেশ  » «   যেভাবে গণনা হবে ভারতে লোকসভা নির্বাচনের ভোট  » «   ঋণখেলাপিদের গণসুবিধার নীতিমালায় স্থিতি অবস্থার আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট  » «   স্বামী- স্ত্রী পরিচয়ে পতিতাবৃত্তি, সাংবাদিক পরিচয়ে ব্লাকমেইল!  » «   পাকিস্তানের নাগরিকদের ভিসা বন্ধ করল বাংলাদেশ  » «   সৌদি আরবের মক্কা ও জেদ্দা নগরীতে হুতিদের মিসাইল হামলা  » «   সারাদেশের পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট  » «   আত্মহত্যাচেষ্টার আগে শোভন-রাব্বানীর উদ্দেশে ফেসবুকে যা লিখলেন দিয়া  » «   এক সময়ের কোটিপতি এখন ভাঙারি দোকানের শ্রমিক!  » «   বগুড়া-৬ আসনে বিএনপির মনোনয়ন দৌঁড়ে এগিয়ে সিরাজ  » «  

মদ-গাঁজা নয়, নেশা জমছে স্যানিটারি ন্যাপকিনে!



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: নেশার কথা বললে সাধারণত আমাদের মাথায় যে জিনিসগুলো আসে তা হল সিগারেট, বিড়ি, মদ, গাঁজা। একটু বড় মাত্রায় ভাবলে হেরোইন, কোকেন ইত্যাদি। সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার যুবকরা নেশার জন্য যে দ্রব্য ব্যবহার করছে, তা শুনলে আপনার চোখ কপালে উঠতে পারে। স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করে নেশা করছে তারা।

প্রথমে স্যানিটারি ন্যাপকিনকে গরম পানিতে প্রায় এক ঘণ্টা ধরে ফুটিয়ে নেয়া হয়। তারপর ন্যাপকিনটিকে ফেলে দিয়ে ঠাণ্ডা করা হচ্ছে ফুটন্ত পানিকে। তিক্ত স্বাদের সেই পানি পান করছে ইন্দোনেশিয়ার একদল মানুষ।

তাদের দাবি, এই ন্যাপকিনের পানি পান করার পর তাদের আকাশে ভেসে থাকার অনুভূতি হচ্ছে! নেশার জন্য তারা ব্যবহৃত ও অব্যবহৃত দু’ধরনের ন্যাপকিনই ব্যবহার করছে।

এই ভয়ঙ্কর নেশা নিয়ে প্রথম সারির সংবাদপত্র ও প্রশাসনের তরফে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়েছে। দেশের সংবাদমাধ্যমগুলিতে কটাক্ষ করে বলা হয়েছে ‘বৈধ নেশার দ্রব্য’।

এমনিতে স্যানিটারি ন্যাপকিন বাজারে সহজ লভ্য। দামেও যথেষ্ট সস্তা। তাই তা থেকে ঘরে বসেই যদি নেশার প্রয়োজনীয় উপকরণ বানিয়ে নেওয়া হয়, তাহলে তো চিন্তার যথেষ্ট কারণ থেকেই যায়।

গত সপ্তাহ থেকে এরকম নেশায় আচ্ছন্ন বেশ কয়েক জনকে গ্রেফতার করেছে সে দেশের পুলিশ। আটকদের থেকেই নেশা করার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়েছে প্রশাসন।

ইন্দোনেশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, ফোটানোর ফলে ন্যাপকিনে ব্যবহৃত রাসায়নিক পানিতে মিশে যাচ্ছে। তাই তা পান করলে এরকম বিশেষ অনুভূতির সৃষ্টি হচ্ছে। কোন রাসায়নিক দ্রব্য থেকে এরকম নেশা হচ্ছে তা জানার জন্য পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: