রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চরমভাবে অবহেলিত প্রাথমিক শিক্ষা ও শিক্ষকরা  » «   এমপিও শিক্ষকদের বেতন দিচ্ছে না ব্যাংক!  » «   ইসরাইলের মরুভূমিতে ১২০০ বছরের পুরোনো মসজিদের খোঁজ  » «   জনসমাগম দেখলেই আতঙ্কে ভোগে আ’লীগ সরকার: ফখরুল  » «   ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে নিহত ২  » «   দুর্নীতি শব্দটি কীভাবে আসলো আই হ্যাভ নো আইডিয়া: ইকবাল মাহমুদ  » «   সেই প্রিয়া সাহাকে নিয়ে মিললো চাঞ্চল্যকর তথ্য  » «   লবণ সংকটে কোরবানির চামড়া নিয়ে উদ্বেগ  » «   দেশদ্রোহী হিসেবে প্রিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: সেতুমন্ত্রী  » «   মিন্নিকে আইনি সহায়তা দিতে ঢাকা থেকে ৪০ আইনজীবী যাচ্ছেন বরগুনায়!  » «   আলো-পানি ছাড়াই রাত কাটল আটক প্রিয়াঙ্কার  » «   মক্কা-মদিনায় ফ্রি ইন্টারনেট ও সিম পাচ্ছেন হাজিরা!  » «   পানিতে সাপের কামড়ে মৃত্যু ,পানিতেই জানাজা-দাফন  » «   নেত্রকোনায় শিশুর কাটা মাথা কাণ্ডে যা জানলো পুলিশ  » «   লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী, আজ দূত সম্মেলন  » «  

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো ইন্দোনেশিয়ায়-জাপান-অস্ট্রেলিয়া



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: একই দিনে ইন্দোনেশিয়া, জাপান ও অস্ট্রেলিয়ায় বড় ধরনের ভূমিকম্প আঘাত হানার খবর পাওয়া গেছে। তবে এসব ভূমিকম্পে কোথাও কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। জারি করা হয়নি কোনো সুনামি সঙ্কেতও। ফের বড় ধরনের ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো ইন্দোনেশিয়া। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ জানিয়েছে, শক্তিশালী ওই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ দশমিক ৫।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, পূর্ব তিমুরের রাজধানী দিলিতে প্রবল কম্পন অনুভূত হয়েছে। আতঙ্কিত লোকজন নিজেদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে এসেছে। ইন্দোনেশিয়ার অন্যতম পর্যটন দ্বীপ বালিতেও তীব্র কম্পন অনুভূত হয়েছে। অনেকেই সামাজিক মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, তারা বালিতেও প্রচণ্ড কম্পন অনুভব করেছেন।

এদিকে সোমবার ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়াতে কম্পনের পরই জাপানে আঘাত হানে আরেকটি ভূমিকম্প। ইন্দোনেশিয়ায় পাপুয়ার আবেপুরাতে একটি কম্পন হয় এবং অপর একটি কম্পন অনুভূত হয় জনপ্রিয় ট্যুরিস্ট স্পট সুলাওয়েলসিতে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ভূ তাত্ত্বিক জরিপ জানাচ্ছে, সোমবার ভোরে জাপানে ৫.৫ তীব্রতায় ভূমিকম্প আঘাত হানে। তবে তবে এতে কোনো সুনামি সতর্কবার্তা জারি করা হয়নি।

অস্ট্রেলিয়ার ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন জানিয়েছে, উত্তরাঞ্চলীয় ডারউইন শহরেও কম্পন অনুভূত হয়েছে। ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র থেকে ওই শহরটি ৭শ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। তবে কোন ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পের মাত্রা ৭ দশমিক ২ বলে জানানো হয়েছে। এটি সমুদ্রের ২২০ কিলোমিটার গভীরে আঘাত হেনেছে। এর মাত্র দু দিন আগে শনিবার চীনেও আঘাত হেনেছিল। ভূমিকম্পের আঘাতে চীনের সিচুয়ান প্রদেশের গঙজিয়ান এলাকা কেঁপে ওঠেছিলো। ৩১ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছিলো। রিখটার স্কেলে এই ভূকম্পনের মাত্রা ছিল ৫.৪। আহতদের দ্রুত হাসপাতালে ভরতির ব্যবস্থা করা হয়। তবে করো আঘাতই তেমন গুরুতর নয় বলে জানা গেছে।

চীনের সরকারি সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানায়, শনিবার রাত ১০.২৯ মিনিটে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। মাটি থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার ভিতরে ছিল কম্পনের উৎসস্থল। ফলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বেড়েছে। চীনের ভূমিকম্প নেটওয়ার্ক সেন্টারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত সোমবারের ভূকম্পের মতোই তীব্র ছিল এটি। চীনে গত ৭ দিন আগের ওই ভূমিকম্পে ১১ জন নিহত হয়েছিলো। একই সঙ্গে আহত হয়েছিলো ১২২ জন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: