রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না থাকায় ভালো নেই সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের মানুষ  » «   সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যা ‘অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু’: বিএসএফ মহাপরিচালক  » «   সর্বোচ্চ চেষ্টা’ করেও ওসি মোয়াজ্জেমকে ধরতে পারছে না পুলিশ  » «   পৃথিবীর ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড কুয়েতে  » «   রোহিঙ্গা সংকট সমাধান না হলে অস্থিতিশীল হবে এশিয়া: রাষ্ট্রপতি  » «   অবশেষে ইমরান-মোদির সৌজন্য সাক্ষাৎ  » «   এমপিও পাবেন মাদরাসার সাড়ে ২১ হাজার শিক্ষক  » «   বাজেট সমালোচকদের যে গল্প শোনালেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সুনামগঞ্জে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য ঠেকাতে প্রতিবাদ  » «   পশ্চিমবঙ্গে থাকতে হলে বাংলায় কথা বলতে হবে: মমতা  » «   ইকোসকে বিপুল ভোটে জয় পেল বাংলাদেশ  » «   মোবাইলে ১০০ টাকার কথা বললে ২৭ টাকা কেটে নেবে সরকার  » «   সাক্ষ্য দিতে চাওয়ায় প্রাণটাই কেড়ে নিল আসামিরা  » «   পশ্চিমবঙ্গকে বাংলাদেশ নয়; গুজরাট বানানো ভাল : দিলীপ ঘোষ  » «   বাজেটের প্রভাব: দাম বাড়বে যেসব জিনিসের  » «  

ভালবেসে বিয়ে, কিভাবে এতটা নির্মম হয় রনিরা?



নিউজ ডেস্ক::প্রথমে কথা কাটাকাটি। তারপরে বাইক নিয়ে তাড়া করে স্ত্রীকে লক্ষ্য করে অ্যাসিড ছোড়ার অভিযোগ উঠল এক পাষণ্ড স্বামীর বিরুদ্ধে। বোনকে বাঁচাতে গিয়ে জখম হয়েছে ছোট বোনও। দু’জনেই হাসপাতালের বার্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেলে কলকাতার নলহাটি পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে। জামাই রনি শেখের বিরুদ্ধে নলহাটি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন আক্রান্তের বাবা। ঘটনার চব্বিশ ঘণ্টা পরেও অভিযুক্তের সন্ধান পায়নি পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা প্রতিবেদন আরও জানায়, দু’বছর আগে রনিকে ভালবেসে বিয়ে করে দিদি। বিয়ের পর থেকেই শাশুড়ি, শ্বশুর নানা ভাবে শারীরিক এবং মানসিক অত্যাচার করত বলে অভিযোগ।

আক্রান্তের বাবার দাবি, শ্বশুরবাড়ির অত্যাচার সহ্য না করতে পেরে সাত দিন আগে মেয়ে বাড়ি পালিয়ে আসে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বোনকে সঙ্গে নিয়ে বাজারে দুধের প্যাকেট কিনতে গিয়েছিল ওই কিশোরী। ফেরার পথে রনি পথ আটকায় বলে পরিবারের দাবি।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আক্রান্তের বোনের কথায়, দুলাভাই বোনকে সন্দেহ করে। এ দিন রাস্তার মধ্যেই শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যাওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিল। বোন বলেছিল, অত্যাচার আর সহ্য করতে পারবে না। তাই শ্বশুরবাড়ি আর যাবে না। তখন কথা কাটাকাটি হয়।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে আক্রান্ত কিশোরী বলে, কথা বলার ফাঁকেই স্বামীর হাতে থাকা অ্যাসিডের বোতল থেকে কয়েক ফোঁটা অ্যাসিড বোনের হাতে পড়ে। বোন বুঝতে পেরে আমাকে সাইকেলের পিছনে বসিয়ে সাইকেল চালানো শুরু করে। পিছন থেকে রনি মোটরবাইকে এসে অ্যাসিড ছুড়ে দেয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: