সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ১ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইতালির নাগরিকত্ব হারাতে পারেন ৩ হাজার বাংলাদেশি  » «   নবীগঞ্জে আগুনে পুড়ে ছাই ৫টি ঘর, ১২ লাখ টাকার ক্ষতি  » «   ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি-সম্পাদকের প্রতিশ্রুতি  » «   শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে রণক্ষেত্র, আহত ৩০  » «   চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর  » «   মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের  » «   কাশ্মিরের মুসলমানদের ওপর নির্যাতন বন্ধের দাবিতে মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ মিছিল  » «   হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ  » «   আফগান সীমান্তে ৪ পাকিস্তানি সেনা নিহত  » «   ঈদের খরচ হিসেবে ‘ন্যায্য পাওনা’ চেয়েছিলাম: রাব্বানী  » «   পুলিশ সুপারদের কুচকাওয়াজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  » «   ছাত্রলীগের নেতৃত্বে জয়-লেখক  » «   হিন্দি চাপিয়ে দিলে ভাষা যুদ্ধের হুমকি, রাজ্যে রাজ্যে প্রতিবাদ  » «   শিক্ষামন্ত্রীর কড়া চিঠি  » «   পরিবহন ধর্মঘটে বিপর্যস্ত প্যারিস; ৩৮০ কিমি ট্র্যাফিক জ্যাম!  » «  

বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৪ সেনার পরিচয়



প্রবাস ডেস্ক::আফ্রিকার মালিতে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ৪ বাংলাদেশি সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৩ জন।

নিহতরা হলেন, ওয়ারেন্ট অফিসার আবুল কালাম (পিরোজপুর), সৈনিক রায়হান (পাবনা), ল্যান্স কর্পোরাল আক্তার (ময়মনসিংহ) এবং সৈনিক (পাচক) জামাল (চাপাইনবাবগঞ্জ)। এদিকে আহত ৩ জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা যায়। বাকিরা সবাই নিরাপদে আছে।

উল্লেখ্য, এর আগে, ২৩ সেপ্টেম্বর , ২০১৭ আফ্রিকার মালিতে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছিলেন। এ সময় আহত হয়েছিলেন আরো চার জন। নিহতরা হলেন সার্জেন্ট আলতাফ, ইএমই (দিনাজপুর), ল্যান্স করপোরাল জাকিরুল, আর্টিলারি (নেত্রোকোনা), সৈনিক মনোয়ার, ইস্টবেঙ্গল (বরিশাল)। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানানো হয়।

আইএসপিআর জানায়, মালিতে শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ত্রাসীদের সঙ্গে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় শান্তিরক্ষীরা সফলভাবে তাদের প্রতিহত করতে সক্ষম হয়। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দায়িত্ব পালন শেষে ক্যাম্পে ফেরার পথে আবারও সন্ত্রাসীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় সাহসিকতা ও সফলতার সঙ্গে তারা সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতে সক্ষম হয়। তবে, সংঘর্ষের একপর্যায়ে সন্ত্রাসীদের পুঁতে রাখা ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) বিস্ফোরণে তিন জন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত হন। আহত হন আরও চার জন। তারা হলেন মেজর জাদিদ, পদাতিক (ঢাকা); করপোরাল মহিম, পদাতিক (নোয়াখালী); সৈনিক সবুজ, পদাতিক (নওগাঁ) ও সৈনিক সরোয়ার, পদাতিক (যশোর)। আহতদের গাঁও শহরে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: