বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
উদ্ধার হলো শাহনাজের বাইক, ধরা পড়ল চোর  » «   বিদ্যুতের ঋতুভিত্তিক চাহিদার অবসান ঘটাতে হবে: জ্বালানি উপদেষ্টা  » «   পদ্মা নদীর ওপারেই বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে  » «   স্যাটেলাইটে ধরা পড়ল সুন্দরবনের ৪০ একর বন উধাও!  » «   রহস্য খোলাসা করলেন সৌদি থেকে পালিয়ে আসা সেই তরুণী  » «   সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন ফরম কিনলেন তৃতীয় লিঙ্গের ৮ জন  » «   শাস্তির বদলে পদোন্নতি! লেক দূষণ রোধের ৫০ কোটি টাকা নয়ছয়  » «   ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট চুক্তি প্রত্যাখ্যান  » «   প্রধানমন্ত্রীর সই জাল করে টাকা আত্মসাৎ!  » «   আন্তর্জাতিক ক্বিরাত সম্মেলন শুরু ৮ ফেব্রুয়ারি  » «   এমপিদের শপথ গ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিটের শুনানি বুধবার  » «   গায়েবি মামলা বলতে কিছু নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   মেধাবীরা আত্মহত্যা করে আর মেধাহীনরা জাতির ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করে  » «   ৫০ আসনের ৪৭টিতে অনিয়ম: টিআইবি  » «   টিলাগড় ইকোপার্ক: বাঘ-সিংহ নিয়ে কেবলই আশ্বাস!  » «  

বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে শিশুকে হত্যা



নিউজ ডেস্ক::দিনাজপুরে শশুর বাড়িতে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে দশ বছরের শিশু মিনহাজুল ইসলামকে হত্যা করল আপন খালাতো ভাই আজিজুর রহমান। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (২৯ মে) রাতে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার দুলু গ্রামে।

বুধবার (৩০ মে) দুপুর ১২ টার সময় পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে। হত্যা কাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আজিজুর রহমানকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে শিশুটির পরিবারের লোকজন।

নিহত শিশুটির নাম মিনহাজুল ইসলাম (১০)। সে বিরামপুর উপজেলার জোতবানী গ্রামের কৃষি শ্রমিক দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। সে চকবিশু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। গ্রেফতারকৃত আজিজুর রহমান(২২) একই গ্রামের রশিদুল ইসলামের ছেলে।

দেলোয়ার হোসেন বিরামপুর থানায় জানান, মঙ্গলবার (২৯ মে) ১২টার দিকে আজিজুর মিনহাজুলকে নিয়ে হাকিমপুরে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যাবে বলে বের হয়। রাত ৯ টার দিকে আজিজুর একা বাড়িতে ফিরে আসে। পরিবারের লোকজন মিনহাজুলের খোঁজ করলে আজিজুর জানায় সে মিনহাজুলকে নবাবগঞ্জে নিয়ে গিয়ে হত্যা করেছে।

জোতবানী ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য মর্জিনা বেগম জানান, আজিজুলকে নিয়ে তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা মিনহাজুলের লাশ খুঁজতে বের হয়। কিন্তু আজিজুর সারা রাত ধরে একেক বার একেক স্থানের কথা বলে হয়রানি করে। বুধবার সকাল ১১টার সময় শিশুটির পরিবারের লোকজন আজিজুরকে বিরামপুর থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

ঘটনাটি নবাবগঞ্জ থানায় হওয়ায় হাকিমপুর থানা পুলিশ আজিজুরকে নবাবগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করে। এর মধ্যে দুপুর ১২ টার সময় নবাবগঞ্জ উপজেলার চকদুলু গ্রামের মানুষ মোবাইল করে পুলিশকে জানান ভূট্রা ক্ষেতে একটি শিশুর লাশ পড়ে আছে। পরে পরিবারের লোকজন গিয়ে শিশুটির লাশ সনাক্ত করে।

নবাবগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার জানান, সকালে এলাকাবাসী চকদুলু গ্রামে ভূট্রা ক্ষেতে একটি শিশুর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে দুপুরে দিকে মিনহাজুলের পরিবারের লোকজন এসে লাশটি শনাক্ত করে। নিহত শিশুটির গলায় ও বুকে চাকু দিয়ে হুল দেয়া হয়েছে। ঘটনা স্থল থেকে একটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: