শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «   গজারী বনে যুবতীর অর্ধগলিত লাশ  » «  

বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে শিশুকে হত্যা



নিউজ ডেস্ক::দিনাজপুরে শশুর বাড়িতে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে দশ বছরের শিশু মিনহাজুল ইসলামকে হত্যা করল আপন খালাতো ভাই আজিজুর রহমান। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (২৯ মে) রাতে দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার দুলু গ্রামে।

বুধবার (৩০ মে) দুপুর ১২ টার সময় পুলিশ শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে। হত্যা কাণ্ডের সঙ্গে জড়িত আজিজুর রহমানকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে শিশুটির পরিবারের লোকজন।

নিহত শিশুটির নাম মিনহাজুল ইসলাম (১০)। সে বিরামপুর উপজেলার জোতবানী গ্রামের কৃষি শ্রমিক দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। সে চকবিশু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। গ্রেফতারকৃত আজিজুর রহমান(২২) একই গ্রামের রশিদুল ইসলামের ছেলে।

দেলোয়ার হোসেন বিরামপুর থানায় জানান, মঙ্গলবার (২৯ মে) ১২টার দিকে আজিজুর মিনহাজুলকে নিয়ে হাকিমপুরে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যাবে বলে বের হয়। রাত ৯ টার দিকে আজিজুর একা বাড়িতে ফিরে আসে। পরিবারের লোকজন মিনহাজুলের খোঁজ করলে আজিজুর জানায় সে মিনহাজুলকে নবাবগঞ্জে নিয়ে গিয়ে হত্যা করেছে।

জোতবানী ইউনিয়নের সংরক্ষিত নারী সদস্য মর্জিনা বেগম জানান, আজিজুলকে নিয়ে তিনিসহ পরিবারের সদস্যরা মিনহাজুলের লাশ খুঁজতে বের হয়। কিন্তু আজিজুর সারা রাত ধরে একেক বার একেক স্থানের কথা বলে হয়রানি করে। বুধবার সকাল ১১টার সময় শিশুটির পরিবারের লোকজন আজিজুরকে বিরামপুর থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

ঘটনাটি নবাবগঞ্জ থানায় হওয়ায় হাকিমপুর থানা পুলিশ আজিজুরকে নবাবগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করে। এর মধ্যে দুপুর ১২ টার সময় নবাবগঞ্জ উপজেলার চকদুলু গ্রামের মানুষ মোবাইল করে পুলিশকে জানান ভূট্রা ক্ষেতে একটি শিশুর লাশ পড়ে আছে। পরে পরিবারের লোকজন গিয়ে শিশুটির লাশ সনাক্ত করে।

নবাবগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার জানান, সকালে এলাকাবাসী চকদুলু গ্রামে ভূট্রা ক্ষেতে একটি শিশুর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে দুপুরে দিকে মিনহাজুলের পরিবারের লোকজন এসে লাশটি শনাক্ত করে। নিহত শিশুটির গলায় ও বুকে চাকু দিয়ে হুল দেয়া হয়েছে। ঘটনা স্থল থেকে একটি চাকু উদ্ধার করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: