সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

বেশি বুদ্ধিমান হবার ৭টি মারাত্মক সমস্যা!



6. buddimanরকমারি ডেস্ক:
অন্যদের চাইতে আপনার আই কিউ এতো বেশি যে তা ঈর্ষনীয়। কিন্তু তাতে কি আপনার জীবন অনেক সহজ হয়ে গেছে? কিছু কিছু ক্ষেত্রে সহজ হলেও বুদ্ধিমান মানুষ এমন কিছু সমস্যায় পড়ে যা আমরা, সাধারণ মানুষেরা ঘুণাক্ষরেও টের পাই না। বিশ্বাস হচ্ছে না? দেখুন বেশি বুদ্ধিমান হবার বিপত্তিগুলো।

১) পরিশ্রমের মূল্য জানেন না আপনি
বয়স কম থাকতেই যদি আপনি বুঝে যান যে অন্যদের থেকে আপনার বুদ্ধি বেশি, তাহলে দেখা যাবে আপনি পরিশ্রম না করেই কাজ করে ফেলছেন। সুতরাং পরিশ্রমের মূল্যটি আপনি কখনো বুঝে উঠতে পারবেন না, এর অভ্যাসটাও আপনার হবে না। জীবনে অনয় কোনো সময়ে আপনার যখন পরিশ্রমের দরকার হবে, তখন বিপদে পড়তে হবে আপনাকে।

২) অনুভূতির চাইতে চিন্তা বেশি
সাধারণ মানুষ আবেগি হয়ে পড়লে কী করেন? তারা হাসেন, দাঁত কিড়মিড় করেন, চিৎকার করেন, কাঁদেন, হাত পা ছোঁড়েন। আর বুদ্ধিমান মানুষ? তারা নিজের আবেগটাক দমন করেন, সময় নিয়ে ভাবেন এর ব্যাপারে আর কথার মাধ্যমে তা প্রকাশ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু যতো কথাই ব্যবহার করেন না কেন, তাদের অনুভুতি ঠিকমতো প্রকাশিত হয় না।

৩) আপনি দরকারের চাইতে বেশি চিন্তা করেন
কোনো কাজ করার আগে একজন সাধারণ মানুষ দুইবার চিন্তা করেন। আপনি করেন বিশবার বা তারো বেশি। এভাবে বারবার চিন্তা করতে করতে মাথা খারাপ হবার জোগাড় হয় আপনার। কিন্তু এভাবে চিন্তা না করেও থাকতে পারেন না আপনি। এমনকি কোনো সিদ্ধান্ত নেবার আগে এভাবে বার বার চিন্তা করতে গিয়ে দেখা যায়, সিদ্ধান্ত নেবার সাহসটাই হারিয়ে ফেলেছেন আপনি।

৪) ভূল শুধরে দিতে গিয়ে ঝামেলায় পড়েন আপনি
অন্যদের চাইতে বেশি জানেন এবং বোঝেন আপনি। এ কারণে কথাবার্তার মাঝে তাদের ছোটখাটো ভুল ধরিয়ে দেওয়ার কাজটা আপনি করে থাকেন সচরাচর। আপনার চোখে এই কাজটি তুচ্ছ হলেও অন্যদের কাছে এটা ভীষণ বিরক্তিকর এবং তারা এর জন্য আপনার ওপর হাড়ে হাড়ে চটে থাকতে পারে।

৫) অন্যরা বেশি বেশি প্রত্যাশা করে আপনাকে নিয়ে
পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, আপনাকে সবার সেরা হতেই হবে। তা স্কুল-কলেজে হোক, অফিসে হোক অথবা অন্য কিছু। আর এই প্রত্যাশার চাপ সারাক্ষণ আপনাকে ঘিরে রাখে, অন্যদেরকে নিরাশ করার ভয় থাকে আপনার মনে।

৬) আপনি ভালো করেই বোঝেন আপনি কতোটা অজ্ঞ
সাধারণ বুদ্ধির মানুষ অল্প কিছু জানা থাকলেই ভাবেন আমরা কতো বুদ্ধিমান। তাদের চোখে আপনি তো একেবারে সুপারম্যান! কারণ আপনি তাদের চাইতেও অনেক বেশি সমঝদার। কিন্তু বুদ্ধি বেশি বলে আপনি এটাও জানেন, পৃথিবীতে জানার মতো কতো কিছু আছে আর তার সামনে আপনার জ্ঞান কতোটা ক্ষুদ্র। এ কারণে যখন অন্যেরা নিজেদের সীমিত জ্ঞান নিয়ে সুখি, তখন আপনি নিজের অজ্ঞতা নিয়ে দুঃখের সাগরে ভেসে চলেছেন।

৭) মানুষ আপনাকে দাম্ভিক মনে করে
আপনি নতুন কিছু শিখেছেন, এই কথা সাধারণ কথোপকথনের মাঝে বলতে গিয়ে দেখুন, মানুষ মনে করবে আপনি নিজের জ্ঞান নিয়ে বড়াই করতে এসেছেন। ফলে তাদের সাথে আরও দুরত্ব বাড়বে আপনার।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: