বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পাবলিক পরীক্ষার সব ফি দেবে সরকার  » «   বাচ্চারা সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ইভিএম, দাবি লালুপুত্রের  » «   আগামীকাল প্রাথমিকের প্রথম ধাপের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা  » «   পরাজিত হওয়া মানেই হার নয়: মমতা  » «   কুলাউড়ায় ওজন বাড়াতে চিংড়িতে বিষাক্ত জেলি!  » «   শতবর্ষী বৃদ্ধাকে ধর্ষণ: ‘আমাকে ছেড়ে দাও, আমি রোজা রাখছি’  » «   কিছুটা সময় লাগলেও ইসরাইল-আমেরিকার পতন অনিবার্য: ধর্মীয় নেতা  » «   মেয়াদোত্তীর্ণ সেমাই ও অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার তৈরি: সিলেটে ওয়েল ফুডকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা  » «   একক দল হিসেবেই ম্যাজিক ফিগারে মোদির বিজেপি!  » «   পারিবারিক কলহে সৎ মাকে কুপিয়ে জখম করেছে ছেলে  » «   রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে নিয়োগ দেয়া হবে: অর্থমন্ত্রী  » «   পবিত্র কোরআন কেটে ভেতরে ইয়াবা পাচার, ৩ রোহিঙ্গা আটক  » «   গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে একই পরিবারের চার জন নিহত  » «   খালেদার কারামুক্তি, এবারও ‘হ্যান্ডল’ করতে পারেনি বিএনপি!  » «   বালিশ মাসুদের খোলা চিঠি  » «  

বেকায়দায় বালু ভর্তি ট্রাকের চালকরা



trucসংবাদ ২১ ডটকম:: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে ইটের খোয়া ভর্তি ট্রাক নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার সঙ্গে সঙ্গে অপেক্ষা করছেন ট্রাক চালক সেলিম। গত রোববার থেকে শুধু সেলিম নয়, এরকম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় নিয়ে সময় পার করছেন আরো ২৩টি ট্রাকের চালক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

গতকাল রোববার রাত থেকে গুলশানের বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ব্যারিকেট দেয়া ২৪টি ট্রাকের চালকেরা অবস্থান করছেন। কেউ জানেন না কখন তাদের যেতে দেয়া হবে। এমনকি তাদের খাওয়ার জন্য সামান্য টাকা দেয়া হচ্ছে বলে জানান তারা।

৫ জানুয়ারি সোমবার গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করার লক্ষ্যে সমাবেশে যোগ দেয়ার কথা ছিল বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার। তিনি যাতে সমাবেশে যোগ দিতে না পারেন সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অবস্থানের পাশাপাশি বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বালি ও ইটের খোয়া ভর্তি ট্রাক আড়াআড়ি করে রাখা হয়।

চালক সেলিম জানান, তিনি রোববার গাবতলী থেকে ইটের খোয়া বোঝাই ট্রাক নিয়ে বনানীতে ডেলিভারি দিতে যাচ্ছিলেন। কাকলি মোড়ে যাওয়ার পরপরই পুলিশ গাড়িটির গতি রোধ করে কাগজপত্র দেখতে চায়।

তিনি জানান, এরপর তাকে ১০ মিনিটের জন্য পুলিশের সঙ্গে যাওয়ার কথা বলে খালেদা জিয়া গুলশান কার্যালয়ের সামনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে এসে তিনি আরো কয়েকটি ট্রাক আড়াআড়িভাবে দাঁড় করিয়ে রাখতে দেখতে পান।

সেলিম জানান, রোববার থেকে এখানে অবস্থান করছে। পুলিশ ট্রাকের চাবি নিয়ে গেছেন। কবে গাড়ির চাবি দেয়া হবে বা তাদের যেতে দিবে এ বিষয়ে কিছু বলেনি।

তিনি আরো জানান, গাড়িতে পাঁচজন কুলি ও একজন হেলপার ছিল। এ অবস্থায় দেখে রাতেই তিনজন কুলি বাসা চলে গেছে। বাকি তিন জনের সকাল-দুপুরের খাবারের জন্য মাত্র ১০০ টাকা দিয়েছে পুলিশ।

এ অবস্থায় সেলিমের পরিবারের সদস্যা উৎকণ্ঠায় দিন পার করছে বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে গাড়ির মালিক ও ডেলিভারের সদস্যরা উৎকণ্ঠায় দিন পার করেছে বলে জানান ট্রাক চালকরা। রাজনৈতিক এ উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে থেকে রেহাই দিতে পুলিশের প্রতি আহ্বান জানান তারা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: