রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

বিয়ে ভাঙল মিঠুনপুত্রের!



বিনোদন ডেস্ক::ধর্ষণের মামলায় জামিন পেলেও শেষ রক্ষা হলো না অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মিমোর। অবশেষে ভেঙেই গেল মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলের বিয়ে। রবিবার (৮ জুলাই) ভারতের তামিলনাড়ুর নীলগিরি জেলার উধগমন্ডলমের একটি হোটেলে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। জানাযায় বিলাসবহুল এই হোটেলটি মিঠুনেরই।

বিয়ের অনুষ্ঠানে হোটেলেটিতে তদন্তকারীরা উপস্থিত হওয়ার পরেই বিয়ে বাতিল করে দিয়ে ফিরে গেছে কনেপক্ষ। কিছু দিন আগে এক নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ ও প্রতারণার অভিযোগ ওঠে মিমোর বিরুদ্ধে। কিন্তু তা সত্ত্বেও বিয়ে বাতিল করেননি কনে মদালসা শর্মার পরিবার। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আজই তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। খবর: আনন্দ বাজার

মিমোর বিরুদ্ধে ঐ তরুণীর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে চার বছর ধরে এক নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক রেখেছিলেন তিনি। ধর্ষণের পর তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে তাকে ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত করান মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালি। বলেও অভিযোগ করেন ওই ভোজপুরি অভিনেত্রী।

তরুণীর আদালতে দেওয়া ভাষ্য মতে, ‘পানীয়ের সঙ্গে মাদক মিশিয়ে ওই তাকে অচেতন করে তাঁর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেন মিমো। ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন জানার পরই তাঁকে কিছু ওষুধ দেওয়া হয়েছিল। শুধু তাই নয়, পরবর্তীতে ওই তরুণীর ‘কুণ্ডলী’ জানতে চান তিনি। কিন্তু সেটি না মেলায় ওই তরুণীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করেন।’

এছাড়াও ঐ তরুণীর অভিযোগ করেন, ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকিও দেন যোগিতা। এর পরই ভয়ে মুম্বাই থেকে দিল্লি চলে যান তিনি, পরে রোহিণী থানায় মিমোদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

এই সপ্তাহের শুরুতে দিল্লির এক আদালত জানায়, মিমো ও যোগিতার বিরুদ্ধে এফআইআর করার মতো যথেষ্ট প্রমাণ আছে।

বৃহস্পতিবার গ্রেফতারি এড়াতে মুম্বাই হাইকোর্টের আবেদন করেছিলেন মিমো ও তার মা। সেই আবেদন খারিজ করে বিচারপতি তাদেরকে দিল্লির সংশ্লিষ্ট আদালতে গিয়ে আবেদন জানাতে বলেন। এরপর রবিবার (৮ জুলাই) দিল্লির আদালত এক লাখ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে মা-ছেলের জামিন দেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: