সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আবরার হত্যায় এবার মুজাহিদের স্বীকারোক্তি  » «   তিন সপ্তাহ ধরে কার্যালয়ে যান না যুবলীগ চেয়ারম্যান  » «   নোবেল পুরস্কার র‌্যাব-পুলিশের হাতে নয় : রিজভী  » «   বুরকিনা ফাসোতে মসজিদে ঢুকে ১৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ  » «   সৌদি-ইরান উত্তেজনা মধ্যস্ততায় তেহরানের পথে ইমরান খান  » «   ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, ৭৬ শতাংশ ফেল  » «   সরকার ছাত্র রাজনীতি বন্ধের পক্ষে নয়: ওবায়দুল কাদের  » «   ৮ দিন পর ফিরলেন আমিরাতের প্রথম মহাকাশচারী  » «   শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত দলের সদস্য নিহত  » «   ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি নিষিদ্ধ চেয়ে হাইকোর্টে রিট  » «   টাইফুনে লন্ডভন্ড জাপান, নিহত বেড়ে ১৯  » «   আবরারের খুনিকে কারাগারে গণপিটুনি  » «   রাজীবের মৃত্যু: ১০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ স্বজন পরিবহনকে  » «   আমি বহু ইস্যুতেই নোবেল পাই, ওরা দেয় না: ট্রাম্প  » «  

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সেশনজট মুক্ত রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর



বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সেশনজট মুক্ত রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সেশনজট মুক্ত রাখতে শিক্ষক- শিক্ষার্থীসহ সবাইকে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশকে সুন্দর রাখতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

শনিবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের  উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অস্ত্রের ঝনঝনানি চাই না। শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে অস্ত্রের বদলে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে হবে। অবৈধভাবে ক্ষমতায় যারা আসে তারা দেশের উন্নতি না করে নিজেদের উন্নয়নে ব্যস্ত ছিল বলে একসময় দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অস্ত্রের ঝনঝনানি ছিল। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে শিক্ষার সুস্থ পরিবেশ ফিরিয়ে এনেছে।

ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা উল্লেখ শেখ হাসিনা বলেন,  ডিজিটালাইজশনের ফলে আজ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ শুভক্ষণে  আপনাদের সঙ্গে কথা বলতে পারছি। তাছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে ২০০টিরও অধিক সেবা দেয়া হচ্ছে। অনলাইনের মাধ্যমে পরীক্ষার ফলাফল থেকে শুরু করে ভর্তির ও চাকরির আবেদন সবই করা যাচ্ছে ।

শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধ্বে সঠিক ইতিহাস জানার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের রয়েছে এক গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। বর্তমান প্রজন্মকে এ ইতিহাস জানতে হবে। মিলিটারি প্রশাসকদের জন্য দেশ অন্ধকারে ছিল। তারা ইতিহাসকে বিকৃত করেছে। যার ফলে ৭৫ পরবর্তী একটি প্রজন্ম এ ইতিহাস জানা থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: