শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক হবে প্রধানমন্ত্রীর  » «   কাশ্মীর বিদ্রোহী নেতার নামে পাকিস্তানের ডাকটিকিটি প্রকাশ  » «   সংসদ নির্বাচনে হুমকি ‘সাইবার ক্রাইম’, গুজব ঠেকাতে সজাগ পুলিশ  » «   তাঞ্জানিয়ায় ফেরি ডুবি, নিহত বেড়ে ১৩৬  » «   আইনগত অনুমোদন পেলেই সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার: সিইসি  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের কার জন্য কত টাকা গৃহঋণ  » «   গণেশের ছবি দিয়ে বিজ্ঞাপন: হিন্দুদের কাছে ট্রাম্পের দলের দুঃখ প্রকাশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলো কোটা বাতিলের সুপারিশ  » «   রেলের আধুনিকায়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  » «   কেন মুনকে বিশেষ সেই ‘পবিত্র পর্বতে’ নিয়ে গেলেন কিম?  » «   সুখোই কিনলে ভারতকেও নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে!  » «   প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের পথে লন্ডন পৌঁছেছেন  » «   তাঁতশিল্প আধুনিকায়নে বিশেষ উদ্যোগ, বাড়ছে ঋণ  » «   আফগানিস্তানে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ১৫  » «   রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়িয়ে দুই পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «  

বিশ্বনাথে স্বামীর নির্যাতনের স্বীকার ফারজানাকে ওসিসিতে স্থানান্তর



IMG_20001-300x169নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে সারা রাত পিটানোর ঘটনায় লন্ডন প্রবাসী স্বামী আনোয়ার আলীর বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে নির্যাতনের স্বীকার স্ত্রী ফারজানা বেগম বাদি হয়ে বিশ্বনাথ থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে, বৃহস্পতিবার ফারজানাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালের ওয়ন-স্টপ ক্রাইসিস সেলে (ওসিসি)ওসিসিতে স্থানাস্তর করা হয়েছে। ওসিসিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি এ অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে।
প্রসঙ্গত, গত সোমবার দিবাগত রাত ১১টার পর আনোয়ার আলী হঠাৎ করে স্ত্রী ফারজানাকে একটি চেয়ারের সাথে হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া যায়।
গত কয়েক মাস আগে বিশ্বনাথ উপজেলার পদনাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের লন্ডন প্রবাসী ছেলে আনোয়ার আলী সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানার আকিলপুর গ্রামের মাহমুদ আলীর মেয়ে ফারজানা বেগমকে (১৯) বিয়ে করেন। বিয়ের ১১ দিন পর আনোয়ার আলী লন্ডন চলে যান। গত এপ্রিল মাসে তিনি ফের দেশে আসেন। দেশে এসেই তিনি ফারজানার উপর নির্যাতন শুরু করেন। প্রায় দিনই তিনি স্ত্রীকে কোন না কোনভাবে নির্যাতন করতেন বলেন ফারজানা গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন।

এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ রফিকুল হোসেন অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। তদন্তপূর্বক আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: